ঢাকা, শনিবার, ৮ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারি ২০২২, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

শিক্ষা

তথ্যপ্রযুক্তির দিক দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে জাবি

জাবি প্রতিনিধি | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৯ ঘণ্টা, মার্চ ১৬, ২০১২
তথ্যপ্রযুক্তির দিক দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে জাবি

জাবি : ১৯৭১ সালে ঢাকার অদূরে সাভারে প্রতিষ্ঠা পায় দেশের একমাত্র আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি)।

প্রতিষ্ঠার পর থেকেই এ বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যপ্রযুক্তির ছোঁয়া খুব ভালোভাবে না লাগলেও বর্তমান প্রশাসন দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই বিশ্ববিদ্যালয় তথ্যপ্রযুক্তির দিক থেকে এগিয়ে যেতে শুরু করে।



বিশ্ববিদ্যালয়কে তথ্যপ্রযুক্তি দিক দিয়ে এগিয়ে নিতে ছাত্র ও ছাত্রী হলগুলো ওয়াইফাইয়ের আওতায় আনা হয়েছে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্ট্রাল লাইব্রেরি এরিয়া ওয়াইফাইয়ের আওতায় আনা হয়। এতে করে শিক্ষার্থীরা হলে ও লাইব্রেরিতে বসে ইন্টারনেট সুবিধা পাচ্ছেন ।

সম্প্রতি, তথ্যপ্রযুক্তি ও বিজ্ঞান গবেষণার দিক থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়কে আরো একধাপ এগিয়ে নিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজ্ঞান শিক্ষা ও গবেষণা পরিচালনার লক্ষ্যে উন্নত যন্ত্রপাতির সরবরাহ বৃদ্ধি করা হয়েছে।

হটস্পট, অনলাইন জার্নাল, বিভিন্ন বইয়ের ই-সংস্করণ ও গবেষণা উপাত্ত প্রাপ্তির সুবিধাসহ কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি এখন আগের তুলনায় অনেক বেশি সমৃদ্ধ বলে দাবি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ অফিস সূত্রে জানা যায়, আগের প্রশাসনের প্রতিষ্ঠিত ইন্টারনেটের Bandwidth  2 Mbps  থেকে ২০ 20 Mbps-এ উন্নীত করা হয়েছে। অবিলম্বে আরো ১০ Mbps Bandwidth বৃদ্ধি করা হবে। হলে হলে WiFi ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়া হয়েছে। ক্যাম্পাসে Optical Fiber Cable স্থাপনের লক্ষ্যে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে HEQEP প্রকল্পের আওতায় UGC-এর তত্ত্বাবধানে ২ বছর মেয়াদী ৩ কোটি ৬২ লাখ ৩০ হাজার টাকার  Sub-project (CP- 76)-এর কাজ গত বছর জানুয়ারি মাসে শুরু হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের website পূর্ণাঙ্গ ও তথ্য-নির্ভর করার উদ্দেশ্যে নতুনভাবে ডিজাইনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

এছাড়া Bd REN-এর ১ম পর্যায়ের কাজ হিসেবে UGC থেকে ক্যাম্পাস পর্যন্ত Optical Fiber Cable স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন থেকে এ ব্যাপারে আরো ৪ কোটি টাকা দেওয়ার আশ্বাস পাওয়া গেছে বলে জানা যায়।

এ সব বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শরীফ এনামুল কবির বলেন, ‘একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন। সে লক্ষ্যে ইতোমধ্যেই আমরা এ বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রযুক্তিনির্ভর নানান কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। আমি চাই, এ ক্যাম্পাসের প্রাচীন আমলের নথি পদ্ধতি উঠে গিয়ে সব কিছু কম্পিউটারে সংরক্ষিত থাক। ’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনসহ সব অনুষদ, ইনস্টিটিউট, বিভাগ, হল এবং বিভিন্ন অফিস বর্তমানে কম্পিউটার-সজ্জিত করে সবখানে ইন্টারনেট সংযোগের ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং হলে হলে ছাত্রছাত্রীরা স্বল্প ব্যয়ে ইন্টারনেট সেবা পাচ্ছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারনেট সেবার দায়িত্বে থাকা পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. ফরিদ আহমদ বলেন, ‘ইন্টারনেট সুবিধা বৃদ্ধির লক্ষ্যে গত বছর জানুয়ারি মাসে শুরু হওয়া কাজ এ বছরের শেষ অথবা আগামী বছরের শুরুর দিকে শেষ হবে। এ প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে ক্যাম্পাসের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসের বিভিন্ন অনুষদ, ইনস্টিটিউট ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে হাইস্পিডে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। ’

বাংলাদেশ সময় : ১৬২৮ ঘণ্টা, মার্চ ১৬, ২০১২
প্রতিবেদন : ওয়ালিউল্লাহ
সম্পাদনা : আশিস বিশ্বাস, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa