ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১১ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতীক পেলেন পাঁচ প্রার্থী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪
ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতীক পেলেন পাঁচ প্রার্থী

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন (মসিক) নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এ সময় পছন্দ অনুযায়ী প্রতীক পেয়ে উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রচারণায় নামেন মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীরা।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) নগরীর টাউন হল তারেক স্মৃতি অডিটরিয়ামে নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে প্রতীক বরাদ্দ নিতে আসেন প্রার্থীরা।

এর প্রথমদিকে পাঁচজন মেয়র প্রার্থীর মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ করা হয়। তাদের মধ্যে জাতীয় পার্টি মনোনীত জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম স্বপন মণ্ডল পেয়েছেন লাঙল প্রতীক। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে মসিকের সদ্য সাবেক মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইকরামুল হক টিটু পেয়েছেন দেওয়াল ঘড়ি প্রতীক, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম পেয়েছেন ঘোড়া প্রতীক, শহর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি অ্যাড. সাদেক খান মিল্কী টজু পেয়েছেন হাতি প্রতীক, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাবেক সদস্য কৃষিবিদ ড. রেজাউল হক পেয়েছেন হরিণ প্রতীক।  

এ সময় মো. ইকরামুল হক টিটু বলেন, ঘড়ি উন্নয়নের প্রতীক। উন্নয়নের অসমাপ্ত কাজ করতে নগরবাসী আবারও ঘড়ি প্রতীকে আস্থা রাখবে। বিগত পাঁচ বছরে ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে শতভাগ উন্নয়ন করা সম্ভব হয়নি। সাধারণ মানুষ আমার প্রতি তাদের সমর্থন দিলে চলমান উন্নয়ন কাজ ভালোভাবে সম্পন্ন করতে পারব। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি নেতাকর্মীরা আমার সঙ্গে রয়েছেন। আশ রাখছি জয় সহজেই আসবে।  

হাতি প্রতীক পাওয়া সাদেক খান মিল্কী টজু বলেন, নগরের মানুষ আকাশ দেখতে চায়, পরিচ্ছন্ন নগরীতে বসবাস করতে চায়, যানজট সমস্যার নিরসন চান তাই তাদের দাবির প্রেক্ষিতে আমি প্রার্থী হয়েছি। পছন্দের প্রতীক হাতি পেয়েছি। মানুষ পরিবর্তনের লক্ষ্যে হাতি প্রতীকেই আস্থা রাখবে।  

ঘোড়া নিয়ে প্রচারণার মাঠে নেমেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম। এ সময় তিনি বলেন, প্রতীক হাতে পেয়েই মানুষের ধারে ধারে যাচ্ছি। আমার পক্ষে সাধারণ মানুষের বেশ সাড়া পাচ্ছি। কারণ বিগত সময়ে প্রত্যাশা অনুযায়ী সাধারণ মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটেনি। মানুষকে সুন্দর স্মার্ট শহর উপহার দিতেই আমার প্রার্থী হওয়া।  

সেই সঙ্গে প্রতীক পেয়ে মেয়র প্রার্থীদের পাশাপাশি প্রচারণায় নেমেছেন সাধারণ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থীরা।  

প্রসঙ্গত, নগরের ৩৩টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচজন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৯ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৬৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আগামী ৯ মার্চ ইভিএমের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে ভোটগ্রহণ। এতে মোট ভোটার রয়েছে তিন লাখ ৩৬ হাজার ৪৯৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার এক লাখ ৬৩ হাজার ৮৭২ জন, নারী এক লাখ ৭২ হাজার ৬১৫ জন এবং হিজড়া নয় জন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।