ঢাকা, সোমবার, ৩ আষাঢ় ১৪৩১, ১৭ জুন ২০২৪, ০৯ জিলহজ ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

‘নয়ন ভাইয়ের মাইরের কোনো আওয়াজ হয় না, খেলা হবে ২১ তারিখের পরে’

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৩ ঘণ্টা, মে ১৮, ২০২৪
‘নয়ন ভাইয়ের মাইরের কোনো আওয়াজ হয় না, খেলা হবে ২১ তারিখের পরে’

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার পরিষদের নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে, ততই উত্তেজনা যেন ছড়িয়ে পড়ছে। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই নির্বাচনী মাঠে স্থানীয় সংসদ সদস্য নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন প্রভাব বিস্তার করছেন বলে অভিযোগ করে আসছেন আলতাফ হোসেন মাস্টার নামে একজন চেয়ারম্যান প্রার্থী।

 

তার অভিযোগ- প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্রতীকের প্রার্থী মামুনুর রশিদ এমপি নয়নের ভগ্নিপতি হওয়ায় তিনি প্রভাব বিস্তার করাচ্ছেন।

সম্প্রতি রায়পুর পৌর শহরে আনারস প্রতীকের পক্ষে একটি পথসভায় রায়পুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী জামশেদ কবির বাক্কি বিল্লাহ উত্তেজনামূলক বক্তব্য রেখেছেন।

সেখানে এমপির প্রভাব বিস্তারের বিষয়টি তার বক্তব্যে উঠে আসে। যদিও বক্তব্যে তিনি বারবার দাবি করেছেন সংসদ সদস্য নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করছেন না এবং মাঠ প্রর্যায়েও প্রভাব বিস্তার করছেন না।

তবে বক্তব্যের বিষয়ে জামশেদ কবির বাক্কি বিল্লাহর দাবি- নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত রাখতেই তিনি এমন বক্তব্য দিয়েছেন।

অন্যদিকে রায়পুর পৌরসভার সাবেক মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এবং আলতাফ মাস্টারের কর্মী ইসমাইল হোসেন খোকনও নির্বাচনী সভায় বাকী বিল্লাহ উদ্দেশে করে ছাগল চোর, জুতা চোর বলে আখ্যায়িত করেছেন।  

নির্বাচনী আচরণ বিধি-৫ক এর ২ ধারায় বলা আছে, ডিজিটাল বা সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণাকালে ব্যক্তিগত চরিত্র হনন করে কোনো বক্তব্য বা বিবৃতি, কোনো ধরনের তিক্ত বা উসকানিমূলক বা মানহানিকর কিংবা লিঙ্গ, সাম্প্রদায়িকতা বা ধর্মানুভূতিতে আঘাত লাগে এমন কোন বক্তব্য বা বিবৃতি প্রদান করা যাবে না।

কিন্তু রায়পুর উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী এবং তাদের কর্মীদের 'উসকানিমূলক' বক্তব্যের ফলে আচরণ বিধি লঙ্ঘন হচ্ছে।

রায়পুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনারস প্রতীকের পক্ষের কাজী জামশেদ কবির বাক্কী বিল্লাহ তার বক্তব্যের একটি অংশে বলেছেন, আপনেতো নয়ন (সংসদ সদস্য নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন) ভাইকে চিনেন না। নয়ন ভাই এমন নেতা, যার বিচক্ষণতার কাছে সবাই এখন আত্মসমর্পণ করেছেন। আমি সেদিন বলেছিলাম নয়ন ভাইয়ের মাইরের কোনো আওয়াজ হয় না। ভেতরে ভেতরে রক্তক্ষরণ হয়। কাটবেও না, ছিড়বেও না, সেলাইও লাগবে না। দেখবেন ভেতরে শুধু যন্ত্রণা হচ্ছে। ফুলা ও বেদনাদায়ক জখম। থেঁতলাইয়া যাবে, থেঁতলাইয়া।  

২১ তারিখের পর খেলা হবে হুঁশিয়ারি দিয়ে এ আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, সাবধান- উনি (এমপি নয়ন) প্রভাব খাটান নাই। উনি চুপ করে খেলা দেখতেছেন। ওনার খেলা শুরু হবে ২১ তারিখের পরে। কারণ উনি তো ২১ তারিখ আগ পর্যন্ত এমপি হিসেবে আচরণবিধি লঙ্ঘন করতে পারে না। উনি একজন বিজ্ঞ আইনজীবী। উনি একজন পার্লামেন্ট মেম্বার। উনি আপনাকে (প্রার্থী আলতাফ হোসেন) হুমকি দেবে কেন? উনি কি আচরণবিধি লঙ্ঘন করবেন? আলতাফ মাস্টারকে হুমকি দিলে প্রভাব বিস্তার করলে নয়ন এমপির ইজ্জত থাকে? নয়ন এমপি ইশারা দিলেই তো ধুমা হয়ে যায়। কাজেই খেলা হবে ২১ তারিখের পরে। সবাই প্রস্তুত থাকেন।

আলতাফ হোসেন মাস্টারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আহাম্মক, অপদার্থ, বেক্কল। সে নিজেকে দাবি করে জনপ্রিয়। পাগলের সুখ মনে মনে, রাতে উঠে তারা (তারকা) গুনে। আবার সে এমপি, মোহাম্মদ আলী খোকন, মেয়রকে তোয়াক্কা করে না। রাষ্ট্রের ক্ষমতাকে সে অবজ্ঞা করে, সে আহাম্মক। উপজেলা আওয়ামী লীগ জেলা আওয়ামী লীগ সহযোগী সংগঠনের ক্ষমতাকে সে চ্যালেঞ্জ করে। ২১ তারিখের পর তুমি তার জবাব পাবে।

তিনি আরও বলেন, বেঈমান, নিমেখারাম, আওয়ামী লীগ করে সুবিধা নিয়েছো, কিন্তু আলতাফ মাস্টারের কালো টাকায় বিক্রি হয়ে পৌরসভার ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে তলে তলে হোন্ডা (আলতাফ মাস্টারের প্রতীক) চালাইতেছো। আমরা তোমাদেরকে দেখে রেখেছি। আমরা তোমাদেরকে চিনে রেখেছি। ২ নং ইউনিয়ন (আলতাফ মাস্টারের গ্রামের বাড়ি) থেকে ২১ তারিখে এসে আলতাফ মাস্টার তোমাদের পাশে দাঁড়াতে পারবে না। এখনো সময় আছে, চলে আসুন আনারসের প্রার্থীর পক্ষে। দলকে যারা চ্যালেঞ্জ দিবে, দল সাংগঠনিকভাবে ২১ তারিখের পরে তাদের প্রতিহত করবে।

নির্বাচনে আলতাফ মাস্টারের পক্ষ হয়ে কাজ করছেন দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিন্টু ফরাজি। তাকে উদ্দেশ্য করেও বক্তব্য দেন কাজী বাক্কী বিল্লাহ। বলেন, মিন্টু ফরাজি আরেক বেয়াদব, সে রোহিঙ্গা, বহিরাগত। সে আমাদের মোহাম্মদ আলী খোকনের (কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক প্রিসিডিয়াম সদস্য) মৃত বাবাকে নিয়ে কটূক্তি করেছেন। বেয়াদব।

প্রত্যক্ষভাবে আলতাফ মাস্টারের কর্মীদেরকে হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে বাক্কী বিল্লাহর বিরুদ্ধে।  

আলতাফ মাস্টারের পক্ষের কাজ করাদের উদ্দেশ্য করে করে বাক্কী বিল্লাহ বলেন, এখনো যারা বেইমানি করতেছেন, তারা চলে আসুন, ফিরে আসুন। আওয়ামী লীগকে যদি ভালোবাসেন আনারসকে (প্রার্থী মামুনুর রশিদ) ভোট দিতে হবে। উম্মুক্ত নির্বাচন মানে এ নয়- আপনি যা খুশি তা করবেন। দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করবেন, আমি জানি আপনি তলে তলে আওয়ামী লীগের শত্রুদের সঙ্গে আঁতাত করে দলের ক্ষতি করতে চান।  

আওয়ামী লীগ নেতা কাজী জামশেদ কবির বাক্কি বিল্লাহ গত কয়েদিন ধরেই আনারস প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী জনসভায় গিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আলতাফ মাস্টারকে উদ্দ্যেশ্য করে কটূক্তিমূলক বক্তব্য রেখে আসছেন।  

গত ১৫ মে রাতে উপজেলার দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের মোল্লারহাট বাজারে আনারস প্রার্থীর জনসভায় তিনি আলতাফ মাস্টারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আলতাফ মাস্টার নামাজ পড়ে, কুকর্মও করে। জমি দখল করে, ভূমি দস্যুতা করে মানুষের জীবন নষ্ট করে। তার নামাজ হলো লেবাস। আলতাফ মাস্টার চরাঞ্চলের নেতা না, সে হলো চর দখলকারী দস্যু। আলতাফ মাস্টার পশ্চিমাঞ্চলের কলঙ্ক। মাস্টার নামের কলঙ্ক। এ লোকটাকে মাস্টার খেতাব দিয়ে মাস্টার সাহেবদের কলঙ্কিত করেছে। মাস্টার নামটাই ভুয়া।  

সেদিনের বক্তব্যের একপর্যায়ে বাক্কি বিল্লাহ বলেছেন, আপনার সঙ্গে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নাই। এখনো সময় আছে, বেহুশ হয়েন না। খবরদার এখনো সময় আছে। প্রত্যাহারের সময় না থাকলেও রাতের আঁধারে মোহাম্মদ আলী খোকনের পায়ে থাকেন। প্রেস ব্রিফ্রিং দেন যে, আমি আওয়ামী লীগকে, এমপিকে, মোহাম্মদ আলী খোকন ভাইয়ের সঙ্গে বেয়াদবি করেছি। আমি প্রত্যাহার করলাম।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ নেতা কাজী জামশেদ কবির বাক্কি বিল্লাহ বাংলানিউজকে বলেন, প্রথম থেকেই আচরণ বিধি লঙ্ঘন করে উত্তেজনাকর বক্তব্য মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী ও তার লোকজন দেওয়া শুরু করেছে। তাই আমাদের দলের নেতাকর্মীদের মনোবল উজ্জীবিত করার জন্য আমরাও কিছু কথা বলেছি। এগুলো মূলত রাজনৈতিক কৌশল।

মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী ও সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা আলতাফ হোসেন মাস্টার বলেন, আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ও তার লোকজন প্রভাব খাটিয়ে গায়ের জোরে আচরণ বিধি লঙ্ঘন করেই যাচ্ছেন। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। তার পক্ষে আমাদের এমপি মহোদয় (লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন) প্রভাব বিস্তার করছেন।

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে আগামী ২১ মে লক্ষ্মীপুরের রায়পুরেও অনুষ্ঠিত হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৩ ঘণ্টা, মে ১৮, ২০২৪
জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।