ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৩ জুন ২০২৪, ০৫ জিলহজ ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

শরীয়তপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর প্রতিপক্ষের হামলা-গাড়ি ভাঙচুর

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০০৮ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২৪
শরীয়তপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর প্রতিপক্ষের হামলা-গাড়ি ভাঙচুর

শরীয়তপুর: শরীয়তপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিপক্ষের লোকজনের হামলার শিকার হয়েছেন মোটরসাইকেল প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল আমিন কোতোয়াল ও তার সমর্থকরা। ভাঙচুর করা হয়েছে তার গাড়ি, ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে তার প্রচারপত্রও।

হামলায় মোটরসাইকেল প্রতীকের সমর্থক ও তিন সাংবাদিকসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন।  

শনিবার (১৮ মে) সন্ধ্যায় সদর উপজেলার শৌলপাড়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, প্রতিপক্ষ ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান আকন্দ উজ্জলের সমর্থক শৌলপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা খান ও ইউপি সদস্য দেলোয়ার আকন, ইউপি সদস্য দুলাল মোল্যা, মামুন আকন ও ইউসুফ মুন্সীর নেতৃত্বে এ হামলা চালানো হয়। হামলাকারীরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র ও লাঠিসোঁটা নিয়ে ধাওয়া করে। এতে মোটরসাইকেল প্রতীকের সমর্থক ও তিন সাংবাদিকসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন।

আহত তিন সাংবাদিক হলেন- ভোরের পাতার শরীয়তপুর ব্যুরো প্রধান জামাল মল্লিক, বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম, দেশ টিভি ও দৈনিক আমাদের সময়ের শরীয়তপুর প্রতিনিধি রোমান আকন্দ ও দৈনিক প্রতিদিনের শরীয়তপুর প্রতিনিধি আশিকুর রহমান।  

এর আগে বিকেলে চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল আমিন কোতোয়াল গাড়ি নিয়ে চন্দ্রপুর বাজার দিয়ে প্রচারণায় যাওয়ার সময় ঘোড়া প্রতীকের সমর্থকরা হামলার চেষ্টা করে। এ সময় শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও শরীয়তপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র রফিকুল ইসলাম কোতোয়ালসহ দলীয় নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।  

হামলার ব্যাপারে নুরুল আমিন কোতোয়াল বলেন, চন্দ্রপুর বাজারে নির্বাচনী প্রচারণায় গেলে প্রতিপক্ষ ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান আকন্দ উজ্জলের সমর্থকরা বাধার সৃষ্টি করে। এরপর আমরা শৌলপাড়া বাজারে এলে ঘোড়া প্রতীকের সমর্থকরা স্লোগান দিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আমার সমর্থক ও তিনজন সাংবাদিকসহ অন্তত ৩০ জন আহত হন। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমি অবিলম্বে হামলাকারীদের আইনের আওতায় এনে গ্রেপ্তারের দাবি জানাই।

এ ঘটনায় হামলার শিকার সাংবাদিক জামাল মল্লিক, রোমান আকন্দ ও আশিকুর রহমান বলেন, শৌলপাড়া বাজারে মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রচারণার সময় ঘোড়া প্রতীকের সমর্থকরা হামলা চালায়। এ সময় আমরা সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলা শিকার হয়েছি। আমরা হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার দাবি জানাচ্ছি।

এদিকে এসব অভিযোগের ব্যাপারে অভিযুক্ত প্রতিপক্ষ ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান আকন্দ উজ্জলের মোবাইলফোনে একাধিকবার কল করলেও তিনি রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।   

হামলার ব্যাপারে শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মাহবুবুল আলম বলেন, সন্ধ্যায় শৌলপাড়া বাজারে মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রচার চলছিল। এ সময় প্রতিপক্ষ ঘোড়া প্রতীকের সমর্থকরা তাদের বাধা দেয়। এর জেরে তাদের দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। তখন তিন সাংবাদিকসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন শুনেছি। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এখন পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০০০৫ ঘণ্টা, মে ১৮, ২০২৪
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।