ঢাকা, বুধবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৮, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ সফর ১৪৪৩

নির্বাচন

২১ জুন ইউপি নির্বাচন: মাঠে শিবচরের ১৩ ইউনিয়নের প্রার্থীরা

ইমতিয়াজ আহমেদ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১১২ ঘণ্টা, জুন ৮, ২০২১
২১ জুন ইউপি নির্বাচন: মাঠে শিবচরের ১৩ ইউনিয়নের প্রার্থীরা উপজেলার শিরুয়াইল ইউনিয়নের নয়াবাজারে নির্বাচনী পোস্টার। ছবি: বাংলানিউজ

মাদারীপুর: প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিতব্য স্থগিত হওয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের নতুন তারিখ ঘোষণার পর মাঠে নেমেছেন মাদারীপুর জেলার শিবচরের ১৩ ইউনিয়ন পরিষদের প্রার্থীরা।  

আগামী ২১ জুন এই উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত হবে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে নির্বাচন স্থগিত হওয়ার পর প্রচার প্রচারণা থেকে সরে এসেছিলেন প্রার্থীরা। নতুন করে তারিখ ঘোষণার পর আবারও সরব হয়ে উঠেছেন চেয়ারম্যান ও সদস্য পদের প্রার্থীরা। নতুন তারিখ ঘোষণার পর নতুন করে লাগানো হচ্ছে পোস্টার, করা হচ্ছে উঠান বৈঠক। ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চাইতে শুরু করেছেন অনেকেই। হাট-বাজারের চায়ের দোকানগুলো নির্বাচনী আলাপে মুখোর হয়ে উঠছে।  

সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, গত শুক্রবার থেকেই প্রার্থীরা নতুন করে পোস্টার লাগানো শুরু করেছেন। বাজার, সড়কসহ বিভিন্ন স্থানে লাগানো হচ্ছে পোস্টার। উপজেলার প্রেসেও নতুন করে ছাপানোর কাজ চলছে। এছাড়াও প্রার্থীরা ভোটারদের কাছে যাওয়া শুরু করেছেন। বিভিন্ন এলাকাতে উঠান বৈঠকও করতে দেখা গেছে প্রার্থীদের।

ভোটারদের সঙ্গে আলাপ করলে তারা জানান, নির্বাচন স্থগিত হওয়ার পর অনেক প্রার্থীরাই ঝিমিয়ে পড়েছিলেন। কোনো কার্যক্রম চালাতে দেখা যায়নি। এখন আবার তারিখ ঘোষণা হয়েছে তারা মাঠে নেমেছেন। ভোট চাইছেন। তবে কিছু কিছু প্রার্থীরা এই স্থগিত সময়েও মাঠে ছিলেন। ভোটারদের খোঁজখবর রেখেছেন। ঈদের সময় সাহায্য সহযোগিতা করেছেন। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে এদের মধ্যেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবার সম্ভাবনা বেশি।

শিবচর উপজেলা আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, শিবচর উপজেলা আওয়ামী লীগ অধ্যূষিত এলাকা। এই উপজেলা শতকরা ৯০ ভাগ জনগণ আওয়ামী লীগ সমর্থিত। তৃণমূল পর্যায়ে বিশেষ করে ইউনিয়ন পর্যায়ের রাজনীতিতেও একাধিক যোগ্য প্রার্থী রয়েছেন, যারা আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। কেউ ইউনিয়ন পর্যায়ের কমিটিতে আবার কেউ কেউ উপজেলা পর্যায়ের কমিটিতে রয়েছেন।

ইউনিয়ন পর্যায় থেকে দলীয় মনোনয়ন দিতে গেলে একাধিক যোগ্য প্রার্থীদের মধ্যে বেছে নিতে সংশয় সৃষ্টি হয়। তাছাড়া পরস্পরের মধ্যে মনোমালিন্য ও দূরত্ব সৃষ্টি হয়। এই মনোমালিন্য আর দূরত্ব রোধে শিবচরের ১৩টি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে কোনো দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। দলীয় সমর্থনে একাধিক প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। অর্থাৎ আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত সব প্রার্থীরাই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। শিবচর উপজেলা আওয়ামী লীগের দাবি, এর মাধ্যমে সাধারণ জনগণের মধ্যে ভোট প্রদানের উৎসাহ তৈরি হয়েছে। নির্বাচন নিয়ে সাধারণ ভোটাররা স্বতঃস্ফুর্ত রয়েছেন। নিজেদের পছন্দের প্রার্থীদের ভোটদানের সুযোগ তৈরি হয়েছে।

শিবচর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. সেলিম বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সুপারিশে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামী লীগ প্রার্থীতা উন্মুক্ত রেখেছে। এখানে দলীয় একক কোনো সমর্থন দেওয়া হয়নি। কারণ প্রার্থীদের বেশির ভাগই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। একক প্রার্থী দিলে অন্তর্দ্বন্দ্ব তৈরি হয়। এখন ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করতে পারবে।

শিবচর উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, প্রথম ধাপে উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ১৩টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৭৯ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৪০৪ জন এবং সংরক্ষিত সাধারণ সদস্য পদে ১১৫ জন প্রার্থী রয়েছেন। ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন ১ লাখ ৭১ হাজার ২৫৫ জন ভোটার।

শিবচর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. হারুন অর রশিদ জানান, গত ১১ মে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় নির্বাচন স্থগিত করা হয়। উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে প্রথম ধাপে আগামী ২১ জুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আমাদের সব প্রস্তুতি ইতোমধ্যেই নেওয়া হয়েছে। আইনশৃঙ্খলার কোনো অবনতি কোথাও ঘটেনি।

বাংলাদেশ সময়: ১০৫৮ ঘণ্টা, জুন ০৮, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa