ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নির্বাচন

নিবার্চন পরবর্তী সহিংসতা

মাগুরায় অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ পাঁচজনকে পিটিয়ে আহত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ১২, ২০২১
মাগুরায় অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ পাঁচজনকে পিটিয়ে আহত ...

মাগুরা: মাগুরা সদর উপজেলার চাউলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে হেরে যাওয়ায় রাতের আঁধারে প্রতিপক্ষ বিজয়ী মেম্বারের সমর্থকদের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে অন্তঃসত্ত্বাসহ পাঁচজনকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। এ সময় দোকান ও বাড়িঘরে ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে পরাজিত মেম্বার প্রাথীর বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) দিনগত রাতে মাগুরা সদর উপজেলার চাউলিয়া ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডে বুজরুক শ্রীখন্ডী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় গ্রামবাসী ও পুলিশ জানিয়েছে, গতকাল বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সদর উপজেলার চাউলিয়া ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডে টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে আকিদুল শেখ বেসরকারিভাবে জয়লাভ করেন। তার প্রতিদ্বন্দী ফুটবল প্রতীকের মোশাররফ হোসেন ওরফে মশা পরাজিত হন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে মোশাররফ হোসেনের কর্মী-সমর্থকরা বিজয়ী মেম্বার আকিদুল শেখের সমর্থকদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ও দোকানপাট ভাঙচুর করে।  

এ সময় ইব্রাহিম শেখ (৪৬), স্বাধীন (১৫), রাজু (৪৫), রাহান (২৫) এবং হুসনা বেগম (৩৮) নামে এক অন্তঃসত্ত্বাসহ পাঁচজন গুরুতর আহত হয়।

মাগুরা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক অমর প্রসাদ বলেন, আহত পাঁচজনকে মাগুরা ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত রাজু শেখ দাবি করে বলেন, তার এবং প্রতিবেশী ইব্রাহিম শেখ এর দুইটি দোকান ভাঙচুর এবং লুটপাট চালানো হয়। অন্যদিকে ক্ষতিগ্রস্ত শহিদুল ইসলাম বলেছেন, তার এবং জব্বার শেখের দুইটি বাড়িতে ভাঙচুর এবং কিছু মালামাল লুটপাট করা হয়েছে।

এই হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় উভয়পক্ষই পরস্পরবিরোধী বক্তব্য দিয়েছেন।  

বিজয়ী মেম্বার আকিদুল শেখ বলেন, আমি নির্বাচনে জয়লাভ করার কারণে আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মোশাররফ হোসেন বৃহস্পতিবার রাতে আমার কর্মী-সমর্থকদের বাড়িঘরে হামলা লুটপাট চালায়। এসময় পাঁচজন আহত হয়েছে।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে মোশাররফ হোসেন বলেন, নির্বাচনে হেরে যাওয়ায় আমার লোকজনের মন-মানসিকতা এমনিতেই খুব খারাপ ছিল। এরপরে বিজয়ী আকিদুল শেখের লোকজন আমার লোকজনকে দেখে বিদ্রুপ করলে লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের গালমন্দ করেছে।  

মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনজুর আলম বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই মেম্বার প্রাথীর সমর্থকদের বাড়িঘরে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মিলন হোসেন (২০) নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। ফের যেন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ১২, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa