ঢাকা, শুক্রবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নির্বাচন

কক্সবাজারে ২ ইউনিয়নের ১৬টির মধ্যে ৮টিতে নৌকার হার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৪১ ঘণ্টা, নভেম্বর ১২, ২০২১
কক্সবাজারে ২ ইউনিয়নের ১৬টির মধ্যে ৮টিতে নৌকার হার ...

কক্সবাজার: ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কক্সবাজার সদর ও রামু উপজেলার ১৬ ইউনিয়নের মধ্যে আটটিতে নৌকা বিজয় হলেও হেরে গেছে বাকি আটটিতে। এর মধ্যে সাতটিতে বিদ্রোহী এবং একটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়ী হয়েছেন।

এর মধ্যে কক্সবাজার সদর উপজেলায় ঝিলংজা ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের টিপু সুলতান, চৌফলদণ্ডীতে মুজিবুর রহমান (নৌকা), ভারুয়াখালী ইউনিয়নে কামাল উদ্দিন (নৌকা) পিএমখালী ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আব্দুল্লাহ এবং খুরুশকুল ইউনিয়নে শাহাজাহান সিদ্দিকী জয়লাভ করেছেন।
 
রামুতে ১১ ইউনিয়নে ৪টিতে নৌকা বিজয়ী হয়েছে।  
এর মধ্যে ফতেখাঁরকুল সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগৈর বিদ্রোহী প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম ভুট্টো (আনারস) ৬ হাজার ৩৫৪ ভোট পেয়ে বেসরকাবিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম নৌকা প্রতীকের নুরুল হক চৌধুরী পেয়েছেন ৪ হাজার ৭৩৪ ভোট।
 
কাউয়ারখোপ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শামসুল আলম (মোটরসাইকেল) ২ হাজার ৭৭৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম নৌকা প্রতীকের ওসমান সরওয়ার মামুন পেয়েছেন ২ হাজার ৭৫০ ভোট।
 
রশিদ নগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এমডি শাহ আলম (আনারস) ৩ হাজার ৯৯৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন, তার নিকটতম স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. হান্নান সিদ্দিকী (মোটরসাইকেল) পেয়েছেন ৩ হাজার ৯২৪ ভোট।
 
কচ্ছপিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আবু মো. ইসমাঈল (নোমান) ৩ হাজার ৭২৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. তৈয়ব উল্লাহ (চশমা) পেয়েছেন ৩ হাজার ৪২৫ ভোট।
 
গর্জনীয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মুজিবুর রহমান ৪ হাজার ১৮৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম বিএনপির প্রার্থী গোলাম মৌলা চৌধুরী পেয়েছেন ২ হাজার ৯৭৭ ভোট।
 
ঈদগড়ে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ফিরোজ আহমদ ভুট্টো (আনারস) ৪ হাজার ৯১৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের নুরুল আলম পেয়েছেন ৩ হাজার ২৯৫ ভোট।
 
চাকমারকুল ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের  নুরুল ইসলাম সিকদার ৩ হাজার ৯৫১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরুল আলম (আনারস) পেয়েছেন  ৩ হাজার ৬৭৪ ভোট।
 
জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের কামাল শাসুদ্দীন প্রিন্স ৪ হাজার ৩৬৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম স্বতন্ত্র প্রার্থী আবছার কামাল সিকদার ( মোটর সাইকেল) পেয়েছেন ৩ হাজার ৪৪৭ ভোট।
 
রাজারকুল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মুফিজুর রহমান (ঘোড়া) ৫ হাজার ৭৬৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক পেয়েছেন ৩ হাজার ৫৪৭ ভোট।
 
দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী খোদেসতা গেম রীণা ৫ হাজার ৯১৫ ভোট পেয়ে বেসকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মো. ইউনুচ পেয়েছেন (টেবিলফ্যান) ৩ হাজার ৪৩৫ ভোট।
 
খুনিয়াপালং ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল হক (চশমা) ৮ হাজার ৯৬৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের আব্দুল মাবুদ পেয়েছেন ৮হাজার ৯১৬ ভোট।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৫৪১ ঘণ্টা, নভেম্বর ১২, ২০২১
এসবি/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa