ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯, ১১ আগস্ট ২০২২, ১২ মহররম ১৪৪৪

নির্বাচন

কুসিকে সাক্কুর ১৭ বছর অধ্যায়ের অবসান

সোলায়মান হাজারী ডালিম, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৫০ ঘণ্টা, জুন ১৫, ২০২২
কুসিকে সাক্কুর ১৭ বছর অধ্যায়ের অবসান

কুমিল্লা থেকে: একবার পৌরসভার মেয়র ও দুইবার সিটি মেয়র মিলিয়ে দীর্ঘ ১৭ বছর টানা কুমিল্লা নগরীর ক্ষমতায় ছিলেন মনিরুল হক সাক্কু। সেই অধ্যায়ের সমাপ্তি হতে চলেছে।

কুমিল্লা নগর ভবনের নতুন কর্তা হতে চলেছেন আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত।  

সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বেসরকারী ভাবে বিজয়ী হয়েছেন আরফানুল হক রিফাত। নানা সমীকরণ ও জল্পনা কল্পনার পর জয় গেলো নৌকার ঘরে। এ জন্য নৌকার প্রার্থীর কাছে কুমিল্লাবাসীর চাহিদাও থাকবে বেশি।  

২০০৫ সালে তৎকালীন পৌর চেয়ারম্যান কামরুল হাসানের মৃত্যুর পর উপ-নির্বাচনে সাক্কু প্রথম কুমিল্লা আদর্শ সদর পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।  

২০০৭ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকার এ চেয়ারম্যান পদকে স্থগিত করলে তিনি হাইকোর্টে রিট করেন, ২০০৯ সালে আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর তার আপিল নিষ্পত্তি হয়। তখন থেকে পদবী হয় পৌর মেয়র।  

২০১১ কুমিল্লা সদরের ১৮ ওয়ার্ড ও সদর দক্ষিনের ৯টি ওয়ার্ডকে এককীভূত করে প্রথমবার কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন গঠন করা হয়। ২০১২ সালে নির্বাচন হয়। সে নির্বাচনে প্রয়াত বর্ষীয়াণ আওয়ামীলীগ নেতা অধ্যক্ষ আফজাল খানকে ৩৫ হাজার ভোটে পরাজিত করেন।  

পরবর্তীতে ২০১৭ সালে আওয়ামীলীগের বর্তমান সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য আনজুম সুলতানা সীমাকে ১১ হাজার ভোটে পরাজিত করেন। সেবার তিনি বিএনপি থেকে নির্বাচন করেছিলেন। তবে নির্বাচিত হয়ে শপথ গ্রহণ করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পা ছুঁয়ে সালাম করে আলোচনায় আসেন। কুমিল্লার সাধারণ মানুষ বলছে আওয়ামীলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলকে কাজে লাগিয়ে বারবার কারিশমা দেখিয়েছেন সাক্কু।  

তবে দীর্ঘ এই সময় ক্ষমতায় থেকে সাক্কু কুমিল্লা নগর বাসীর জন্য কি করতে পেরেছেন তা নিয়ে রয়েছে বিস্তর আলোচনা সমালোচনা। স্থানীয়রা বলছেন এত বছর ক্ষমতায় থেকেও কেন সাক্কু নগরবাসীকে এই দুর্বিষহ যানজট থেকে মুক্তি দিতে পারেনি।  

কুমিল্লা নগরবাসীর জন্য অভিশাপের আরেক নাম যানজট। ৬০ লাখ জনসংখ্যার শহরে রিক্সা, ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সা, মিশুক, সিএনজি চালিত অটোরিক্সার জন্য পা ফেলার সুযোগ নেই। প্রতিদিনই দেখা যায় নগরীর একপ্রান্ত পর্যন্ত একটির পেছনে লেগে আছে আরেকটি গাড়ি। আর এই গাড়ির সারি চলতে চলতে থাকে সকাল থেকে রাত অবধি। দীর্ঘ এই সময় ক্ষমতায় থেকেও তিনি এর সমাধান করতে পারেননি।  

এছাড়া জলাবদ্ধতা সমস্যায়ও নাকাল ছিলো প্রাচীন এই নগরীর মানুষ। কবির আহম্মদ নামের চক বাজার এলাকার এক বাসিন্দা বলেন, দীর্ঘ সময় ধরে ক্ষমতায় থেকে সাক্কু তার নিজের উন্নয়ন করেছেন, কুমিল্লার উন্নয়ন করতে পারেননি।

নতুন মেয়রের কাছে কুমিল্লাবাসীর দাবী যানজট ও জলাবদ্ধতা সমস্যা যেন গুরুত্ব দিয়ে সমাধান করেন।  

বাংলাদেশ সময়: ২৩৫০ ঘণ্টা, জুন ১৫, ২০২২
এসএইচডি/আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa