ঢাকা, রবিবার, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২১ শাবান ১৪৪৫

বিনোদন

অভিনয়শিল্পী সংঘের আয়োজনে তারার মেলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২৩
অভিনয়শিল্পী সংঘের আয়োজনে তারার মেলা

গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার উলুখোলা এলাকার একটি রিসোর্টে অনুষ্ঠিত হয়েছে টেলিভিশন নাটকের অভিনয়শিল্পীদের সংগঠন অভিনয়শিল্পী সংঘের ইক্যুইটি দিবস। শনিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দিনব্যাপী এই আয়োজন যেন তারায় মেলায় পরিণত হয়।

পাশাপাশি অভিনয় শিল্পী সংঘের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই সংগঠনেন সভাপতি আহসান হাবিব নাসিমের সভাপতিত্বে ও অভিনয় শিল্পী রনক হাসানের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন- অভিনেতা আমিরুল হক চৌধুরী, সহিদুল আলম সাচ্চু, ডলি জহুর, দিলারা জাহান, মামুনুর রশীদ ও তারিক রহমান খান।  

এর আগে আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উদ্ভোধন করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।  

এদিকে বনভোজন ও সাধারণ সভায় আরো অংশ নেন সুর্বণা মুস্তাফা, শম্পা রেজা, জয়া আহসান, পীরজাদা হারুণ, জাকিয়া বারী মম, প্রাণ রায়, সুজাত শিমুল, জ্যোতিকা জ্যোতি, জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়, তারিন জাহান, আজিজুল হাকিম, শ্যামল মাওলা, সজল, ফারজানা চুমকী, শাহরিয়ার নাজিম জয়, ফারজানা ছবি, মোশাররফ করিম, আজমেরী হক বাঁধন, মৌসুমী হামিদ, মানসী প্রকৃতি, দীপা খন্দকার, ঊর্মীলা শ্রাবন্তী কর, তানভীন সুইটি, তাসনিয়া ফারিণ, চাষী আলম, মিশু সাব্বির প্রমুখ।

এ প্রসঙ্গে নন্দিত অভিনেত্রী সুর্বণা মুস্তফা  বলেন, এখানে এসে সবার সঙ্গে দেখা হচ্ছে। আড্ডা দিতে পেরে খুব ভালো লাগছে। শত ব্যস্ততার মাঝে এমন একটি ছুটির দিন পেয়ে ভীষণ ভালো লাগছে।

অন্যদিকে অভিনেতা সজল বলেন, সবাইকে একসঙ্গে নিয়ে সারাদিন সময় কাটাচ্ছি। খুব ভালো লাগছে। এটা তো সব সময় সম্ভব হয় না। সুন্দর এ আয়োজনের ধন্যবাদ দিতে চাই অভিনয় শিল্পী সংঘের সাবাইকে।

অভিনেত্রী তারিন জাহান বলেন, বছরে একটা দিন আমরা সবশিল্পীরা একত্রিত হই। এই দিনটিতে আমি আসার চেষ্টা করি। সবাই সারাবছর কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকে এমন দিনে সবার দেখা হয়, আনন্দ উৎসবে পরিণত হয় দিনটি। আমি দিনটি এনজয় করছি।  

অভিনেতা প্রাণ রায় বলেন, আমার কতটা ভালো লাগছে তা বলে বুঝাতে পারব না। সবাইকে এক সঙ্গে দেখে আমি ভীষণ আনন্দিত আমি।

জনপ্রিয় অভিনেত্রী মৌসুমী হামিদ বলেন, বছরের এই দিনের জন্য অপেক্ষায় থাকি। এখানে এলে সবার সঙ্গে দেখা হয়। মন খুলে আড্ডা দিতে পারি।

বনভোজনে অভিনয় শিল্পী সংঘের কমিটির সদস্যরা ছাড়াও সাংবাদিক, প্রযোজক, পরিচালক, সংগীতশিল্পী, কাহিনীকার, গীতিকারসহ ছোটপর্দার সংশ্লিষ্ট অনেকে অংশ নেন।

এবার বনভোজনে প্রায় এক হাজারের বেশি মানুষ অংশ নিয়েছেন। বনভোজনে ছিল জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয়ী শিল্পীদের সম্মাননা, ফানুস উড়ানো, র‌্যাফেল ড্র, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ আরো আকর্ষণীয়সব আয়োজন।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২৩
এনএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।