ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ কার্তিক ১৪২৮, ২৯ অক্টোবর ২০২১, ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ফিচার

কর্মের মধ্য দিয়ে লেখক-পাঠকমহলে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন হাবীবুল্লাহ সিরাজী

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯১৯ ঘণ্টা, মে ২৫, ২০২১
কর্মের মধ্য দিয়ে লেখক-পাঠকমহলে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন হাবীবুল্লাহ সিরাজী হাবীবুল্লাহ সিরাজী

ঢাকা: একুশে পদকপ্রাপ্ত বিশিষ্ট কবি ও লেখক এবং বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ ও সংস্কৃতি বিষয়ক সচিব মো. বদরুল আরেফীন।

প্রতিমন্ত্রী ও সচিব ২৫ মে (মঙ্গলবার) পৃথক শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

শোকবার্তায় সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী জানান, আশির দশকে জাতীয় কবিতা পরিষদ গঠনে অগ্রণী ভূমিকা রাখেন কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী। তিনি তার কবিতা ও কর্মে মুক্তিযুদ্ধ এবং প্রগতিশীলতাকে তুলে ধরেছেন যা পাঠকমহলে বেশ সমাদৃত হয়েছে। হাবীবুল্লাহ সিরাজী তার সৃজনশীলতা ও কর্মের মধ্য দিয়ে লেখক ও পাঠকমহলে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন।

কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী (৭৩) সোমবার (২৪ মে) রাত আনুমানিক ১১টার দিকে রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

পদ্য-গদ্য মিলিয়ে হাবীবুল্লাহ সিরাজীর গ্রন্থের সংখ্যা ৫০টির অধিক। লিখেছেন উপন্যাস, প্রবন্ধ, স্মৃতিকথাও। কবিতার জন্য ২০১৬ সালে একুশে পদক এবং ১৯৯১ সালে পান বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার। এছাড়া যশোর সাহিত্য পরিষদ পুরস্কার (১৯৮৭), আলাওল সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮৯), বিষ্ণু দে পুরস্কার (২০০৭), রূপসী বাংলা পুরস্কার (২০১০), মহাদিগন্ত পুরস্কারসহ (২০১১) বিভিন্ন পুরস্কারে ভূষিত হন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ০৯১৮ ঘণ্টা, মে ২৫, ২০২১
এইচএমএস/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa