ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

ফুটবল

মেসির পরবর্তী তিন চ্যালেঞ্জ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭২৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ৭, ২০১৭
মেসির পরবর্তী তিন চ্যালেঞ্জ ছবি: সংগৃহীত

বার্সেলোনার জার্সিতে ৬০০তম ম্যাচের মাইলফলক ছোঁয়া লিওনেল মেসির সামনে আরও কয়েকটি রেকর্ড অপেক্ষা করছে। বার্সার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে তুলে ধরা হয়েছে আর্জেন্টাইন সুপারস্টারের তিনটি চ্যালেঞ্জ।

চ্যাম্পিয়নস লিগে গোলের সেঞ্চুরি থেকে আর মাত্র তিনটি গোল দূরে মেসি (একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে করে দেখিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো)। ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের আসরে ১১৯ ম্যাচে ৯৭ বার লক্ষ্যভেদ করেছেন বার্সার প্রাণভোমরা।

উয়েফা প্রতিযোগিতায় অবশ্য ১০০টি গোল হয়ে গেছে মেসির। তিনটি স্কোরের জন্য ইউরোপিয়ান সুপার কাপকে (চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ইউরোপা লিগ জয়ী দল মুখোমুখি হয়) ধন্যবাদ দিতেই পারেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী।

ইউরোপের শীর্ষ লিগগুলোর একটি ক্লাবের হয়ে সবচেয়ে বেশি গোলের কীর্তিতে নাম লেখানোর দ্বারপ্রান্তে মেসি। ৬০০ ম্যাচে ৫২৩টি গোল করেছেন বিশ্ব ফুটবলে এই ক্ষুদে জাদুকর। বর্তমান রেকর্ডধারী জার্মান কিংবদন্তি জার্ড মুলার বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে ১৯৬৫ থেকে ১৯৭৯ সময়ে ৫২৫টি গোলস্কোর করেন।

একটি রেকর্ড আছে যেখানে সামনের বছরগুলোতে পৌঁছাতে পারেন ত্রিশ বছর বয়সী মেসি। লা লিগার (স্প্যানিশ লিগ) ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ম্যাচে জয়ের তালিকায় শীর্ষে উঠতে আরও অপেক্ষা করতে হবে তাকে।

সবশেষ সেভিয়ার বিপক্ষে জয় দিয়ে সংখ্যাটা ৩৯৩ ম্যাচে ২৯৮-তে নিয়ে যান মেসি। তার চেয়ে এগিয়ে আছেন মানোলো সানচিস (৩১২), জাভি হার্নান্দেজ (৩২২), রাউল গঞ্জালেজ (৩২৭), আন্দোনি জুবিজারেত্তা (৩৩৩) ও রেকর্ড হোল্ডার সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ আইকন ইকার ক্যাসিয়াস (৩৩৪) যিনি ৩৬টি ম্যাচ বেশি জিতেছেন।

প্রসঙ্গত, বার্সার হয়ে সবচেয়ে বেশি ৭৬৭টি ম্যাচ খেলেছেন জাভি। তার ধারেকাছেও কেউ নেই। আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার ম্যাচ সংখ্যা ৬৪৩। এর পরেই মেসির অবস্থান।

বাংলাদেশ সময়: ১৩২৪ ঘণ্টা, ৭ নভেম্বর, ২০১৭
এমআরএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।