ঢাকা, রবিবার, ২২ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

ফুটবল

সৌদিকে হারিয়ে আর্জেন্টিনাকে বার্তা দিল পোল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৬, ২০২২
সৌদিকে হারিয়ে আর্জেন্টিনাকে বার্তা দিল পোল্যান্ড

জিতলেই প্রথম দল হিসেবে শেষ ষোলো নিশ্চিত হয়ে যেত সৌদি আরবের। আক্রমণে দাপটও দেখালো তারা।

কিন্তু প্রথম ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে হারানো দলটি এবার পোল্যান্ডের কাছে হেরে গেল। ফলে মেক্সিকোর বিপক্ষে বাঁচা-মরার লড়াইয়ে নামার আগে স্বপ্নটা একটু বড় হলো মেসিদের। কারণ এখনো পরের পর্বে ওঠার পথ গ্রুপের সবার জন্য উন্মুক্ত রয়ে গেল।

এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে শনিবার ২-০ গোলে জয় তুলে নিয়ে শেষ ষোলোর পথে এক পা দিয়ে রাখলো পোলিশরা। পিওতর জেলিনস্কির গোলে এগিয়ে যায় তারা। কিছুক্ষণ পর সৌদি আরব পেনাল্টি থেকে গোল করার সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি। এরপর প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন পোলিশ স্ট্রাইকার রবের্ত লেভানদোভস্কি।  

২ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে আছে পোল্যান্ড। ৩ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে সৌদি আরব। ১ ম্যাচে ১ পয়েন্ট নিয়ে তিনে থাকা মেক্সিকোর বিপক্ষে দিনের শেষ ম্যাচে খেলতে নামবে এখনও পয়েন্টের খাতা খোলার অপেক্ষায় থাকা আর্জেন্টিনা। গ্রুপ পর্বে পোল্যান্ডের শেষ ম্যাচ আর্জেন্টিনার বিপক্ষে। আগের ম্যাচে তারা মেক্সিকোর সঙ্গে ড্র করেছিল। শেষ ম্যাচে মেসিদের সঙ্গে ড্র করলেও চলবে তাদের। সৌদি আরবের জন্যও সুযোগ আছে পরের পর্বে ওঠার। গ্রুপ পর্বে তাদের পরবর্তী ম্যাচ মেক্সিকোর বিপক্ষে। এছাড়া আর্জেন্টিনা-মেক্সিকো ম্যাচের দিকেও নজর থাকবে তাদের। কারণ আর্জেন্টিনাকে হারালে পোল্যান্ডের সমান পয়েন্ট হয়ে যাবে মেক্সিকোর।

খেলার শুরুতে পোলিশর আক্রমণে এগিয়ে থাকলেও প্রথম সুযোগ পায় সৌদি আরব। ডি-বক্স থেকে জোরালো শট নেন মোহামেদ কাননো। তবে দারুণ দক্ষতায় বল ক্রসবারের ওপর দিয়ে পাঠান পোলিশ গোলরক্ষক ভয়চেখ স্ট্যাসনি। পোল্যান্ড ভালো সুযোগ পায় ৩৯তম মিনিটে। ডান দিক থেকে সতীর্থের পাস বক্সে পেলেও সৌদি গোলরক্ষক এগিয়ে আসায় শট নিতে পারেননি রবের্ত লেভানদোভস্কি। তবে বার্সা স্ট্রাইকারের কাটব্যাকে বল পেয়ে জালে পাঠান পিওতর জেলিনস্কি।  

পিছিয়ে পড়ে সৌদি আরব সমতায় ফেরার জন্য মরিয়া চেষ্টা চালায়। কিছুক্ষণের মধ্যেই সুযোগও পেয়ে যায় তারা। ডি-বক্সে পোলিশ ডিফেন্ডার বেইলিকের পায়ে লেগে পড়ে যান সৌদি আরবের আল-শেহরি। ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পট-কিকে সেলিম আল-দাওসারির শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান পোলিশ গোলরক্ষক। ফিরতি বল উড়িয়ে মারেন সৌদি ফরোয়ার্ড মোহামেদ আল-ব্রেইক।  

দ্বিতীয়ার্ধে বেশ কয়েকবার সুযোগ নষ্ট করে সৌদি আরব। ৫৬তম মিনিটে কাছ থেকে আল-দাওসারির প্রচেষ্টা পা দিয়ে ঠেকান জুভেন্টাস গোলরক্ষক স্ট্যাসনি। কিছুক্ষণ সুযোগ পায় পোল্যান্ডও। কিন্তু ছয় গজ বক্সের মুখে আর্কাদিউস মিলিকের দারুণ হেড ক্রসবারে লাগে। একটু পর লেভার শট গোলরক্ষকের পা ছুঁয়ে পোস্টে লাগে।  

তবে ৮২তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন লেভা। বক্সের সামনে সৌদি আরবের আবদুল্লাহ আল-মালকি বলের নিয়ন্ত্রণ হারালে বক্সে ঢুকে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন এই পোলিশ স্ট্রাইকার। এটাই বিশ্বকাপে তার প্রথম গোল, আর জাতীয় দলের জার্সিতে ৭৭তম। গোল করেই ছুটে গিয়ে মাটিতে শুয়ে পড়েন তিনি। আবেগে কাঁদতেও দেখা যায় তাকে। কারণ বিশ্বকাপের মঞ্চে গোল করার স্বপ্ন তার দীর্ঘদিনের। শেষ দিকে অবশ্য আরেকবার সুযোগ পান লেভা। কিন্তু এবার তার প্রচেষ্টা দারুণ দক্ষতায় ঠেকান সৌদি গোলরক্ষক। ফলে আর ব্যবধান বাড়েনি।  

বাংলাদেশ সময়: ২১০৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৬, ২০২২
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa