ঢাকা, শনিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

হাসপাতালের সরকারি ফর্মে এরিস্টোফার্মা!

মাজেদুল নয়ন, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২২৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ৬, ২০১৪
হাসপাতালের সরকারি ফর্মে এরিস্টোফার্মা! ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ছাড়পত্র ছাপিয়ে দিয়েছে ওষুধ কোম্পানি এরিস্টোফার্মা। আর এই ছাপিয়ে দেওয়ার স্বাক্ষরও রেখেছে তারা।

সরকারি ফর্মের নিচে বসিয়ে দিয়েছে নিজেদের লোগো ও নাম। তবে কিভাবে রোগীর ছাড়পত্রের মতো বিষয়ে ওষুধ কোম্পানি জড়ালো, তা বলতে পারছে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

বাংলানিউজের হাতে আসা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালার একটি ছাড়পত্রে দেখা যায়, ফেব্রুয়ারির ১৯ তারিখে একজন রোগীকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে, সেই ছাড়পত্রের নিচে লেখা রয়েছে ‘সৌজন্যে: এরিস্টোফার্মা লিমিটেড। ’

এ প্রসঙ্গে গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার শহীদুল গণির কাছে জানতে চাইলে তিনি কিছু বলতে পারেননি।
এছাড়াও চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের নিউরো মেডিসিন বিভাগে খোঁজ নিলেও কর্তৃপক্ষ কোন কিছু জানাতে পারেনি।

এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন) এবিএম আব্দুল হান্নান বাংলানিউজকে বলেন, বিষয়টি আমলে নিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। কারণ জানতে চাওয়া হয়েছে কর্তৃপক্ষের কাছে। প্রমাণিত হলে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, সরকারি ফরমে ওষুধ কোম্পানির বিজ্ঞাপন কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না। এটি শুধু অনৈতিক নয়, অপরাধও।

এ ধরনের ওষুধ কোম্পানির বিরুদ্ধেও ব্যাবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয় কর্তৃপক্ষ। এর আগেও ওষুধ বিক্রি করতে অনৈতিকভাবে চিকিৎসকদের অর্থ প্রদান করে সমালোচনায় পড়েছিলো এরিস্টোফার্মা।

কার্যত প্রেসক্রিপশন থেকে শুরু করে হাসপাতালের সব কাগজেই কোম্পানির নাম অথবা ওষুধের নাম দেখতে মরিয়া থাকে ওষুধ কোম্পানিগুলো। তাদের এমন আগ্রাসনে চিকিৎসা ব্যবস্থায় হরহামেশাই তৈরি হয় নানামুখী ঝামেলা। চিকিৎসাসেবা বাধাগ্রস্ত হয় তাদের কারণে।

আইন অনুযায়ী পত্রিকায় ওষুধের বিজ্ঞাপন দিতে না পারায় এমন অনৈতিক উপায়ে তারা ওষুধের প্রচারণা চালান বলে মনে করা হয়। যদিও বিভিন্ন সময়ে নানা কৌশলে সংবাদপত্রগুলোতে বিজ্ঞাপনও প্রচার করছে তারা।  

আর হাসপাতালের সামনে ওষুধ কোম্পানির রিপ্রেজেন্টিটিভদের উপস্থিতি নিয়ে বেকায়দায় রয়েছে স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্টরা। এরই মধ্যে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বেশ কয়েকটি হাসপাতালে দুপুর ২টার আগে রিপ্রেজেন্টিটিভদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে হাসপাতালে রোগীদের প্রেসক্রিপশন চেক করার ঘটনায় বেশ নিন্দায় রয়েছে ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধিরা। এরই মধ্যে হাসপাতালের ছাড়পত্রে কোম্পানির বিজ্ঞাপন নিয়ে বেশ বিব্রত অবস্থায় রয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও মন্ত্রণালয়।

বিদ্র: আপনার আশপাশে স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি আর অনিয়মের বা সেবা পেতে হয়রানির শিকার হলে তার খবর জানান বাংলানিউজকে। মেইল পাঠান [email protected] এ ঠিকানায়। অথবা ফোন করুন ০১৬৭৪১৭৪০৭০ এ নম্বরে।

বাংলাদেশ সময়: ১২২৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ৬, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa