ঢাকা, রবিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

পিরোজপুরে ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু, চিকিৎসক আটক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮২৯ ঘণ্টা, এপ্রিল ১১, ২০১৪
পিরোজপুরে ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু, চিকিৎসক আটক

পিরোজপুর: পিরোজপুরের কাউখালীতে একটি ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় এক স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্কুল ছাত্রীর নাম শাহনাজ (১২)।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ক্লিনিক ঘেরাও করলে পুলিশ অভিযুক্ত চিকিৎসক মাইনুল ইসলামকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। শাহনাজ কাউখালীর কেউন্দিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী ।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে মুক্তি ক্লিনিকে ওই ছাত্রীর অ্যাপিন্ডিসাইটিস অপারেশন করেন কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মাইনুল ইসলাম।

অপারেশনের সময় মাত্রাতিরিক্ত চেতনানাশক ঔষধ প্রয়োগ করার কারণে অপারেশন থিয়েটারেই শিশুটির মৃত্যু হয়। কিন্তু বিষয়টি চেপে যাওয়ার চেষ্টা চালায় ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ। ঘণ্টাখানেক পরে বিষয়টি জানাজানি হলে শিশুর স্বজন এবং এলাকাবাসী ক্লিনিক ঘেরাও করলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় অভিযুক্ত চিকিৎসককে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

শাহনাজের পিতা শহিদুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, চিকিৎসার জন্য তার মেয়েকে ক্লিনিকে নিয়ে আসা হলে তড়িঘড়ি করে তাকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হয়। ভুল চিকিৎসার কারণেই তার মেয়ে মারা গেছে।

সর্বশেষ খবর অনুযায়ী এ ব্যাপারে যেন কোন মামলা না হয় সে জন্য চিকিৎসক ও ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ কাউখালী থানার সাথে দফারফা করার চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে কাউখালী থানান ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুলতান মাহমুদ জানান অভিযুক্ত চিকিৎসককে আটক করা হয়েছে। নিহতের স্বজনরা লিখিত অভিযোগ দিলে মামলা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৮২৯ ঘণ্টা, এপ্রিল ১১, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa