ঢাকা, বুধবার, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯, ১০ আগস্ট ২০২২, ১১ মহররম ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

রোগতান্ত্রিক সংযোগ না থাকলে ইবোলা হবে না

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০১৪
রোগতান্ত্রিক সংযোগ না থাকলে ইবোলা হবে না

ঢাকা: বিশ্বব্যাপী ইবোলা ভাইরাস নিয়ে সম্প্রতি যে আতঙ্ক ছড়ানো হচ্ছে তা নিয়ে শঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ (সিডিসি) পরিচালক ডা. বেনজীর আহম্মেদ।

তিনি বলেন, ইবোলা মারাত্মক ভাইরাস হলেও বাংলাদেশের জন্য আতঙ্কের কিছু নেই, কেন না রোগতান্ত্রিক সংযোগ না থাকলে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।



বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ওয়ার্ল্ড ইবোলা ডককম আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

ডা. বেনজীর বলেন, রোগতান্ত্রিক সংযোগ বলতে, যেসব দেশে ইবোলা ভাইরাস পাওয়া গেছে সেসব দেশের মানুষের সংস্পর্শ না থাকলে এ রোগ হবে না এমনটি বোঝানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, পশ্চিম আফ্রিকার সিয়েরালিওন, গিনি, লাইবেরিয়ায় ইবোলা ভাইরাসের উদ্ভব। তাই এসব দেশ থেকে বাংলাদেশের জনগণকে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। এজন্যই আমাদের দেশে এ রোগের প্রাদুর্ভাবের সম্ভাবনা অনেক কম।
 
ডা. বেনজীর বলেন, বাংলাদেশ সরকার ইবোলা প্রতিরোধে ব্যাপক পদক্ষেপ নিয়েছে। এজন্য ১৬টি জল ও স্থল বন্দরে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। প্রস্তুত রাখা হয়েছে বিশেষ মেডিকেল টিম। তাছাড়া সেনাবাহিনী পুলিশ বাহিনীর সদস্যসহ পশ্চিম আফ্রিকার দেশগুলোতে কর্মরত বাঙালিদের সর্তক অবস্থানে থাকতে বলা হয়ছে।

ইবোলা প্রতিরোধযোগ্য দাবি করে তিনি বলেন, যদি রোগীকে লক্ষণ ভিত্তিক চিকিৎসা দেওয়া যায় তাহলে এ রোগ প্রতিরোধ করা যেতে পারে।

তিনি আরও বলেন, ইবোলা ভাইরাস দ্রুত সংক্রমণ সক্ষমতা রাখে বলে এতে ঝুঁকি বেশি।

তাই সবাইকে এ সম্পর্কে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে বলেন তিনি।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৮১৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa