ঢাকা, সোমবার, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ মে ২০২২, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

টিকা কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলার কারণে পুলিশ মোতায়েন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০২২
টিকা কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলার কারণে পুলিশ মোতায়েন টিকা কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলার কারণে পুলিশ মোতায়েন

বরগুনা: বরগুনায় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা টিকা কেন্দ্র দফায় দফায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় বরগুনা জিলা স্কুল টিকা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিদিন সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের জন্য একমাত্র টিকা কেন্দ্র স্থাপন করা হয় বরগুনা জিলা স্কুলে। এসব শিক্ষার্থীরা প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ টিকা নিতে এসে ছোটখাটো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে দেখা গেছে। দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থাকায় দুই শিক্ষার্থী অসুস্থ হলে তাদের বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ বিষয়ে তথ্য জানেন না সিভিল সার্জন কর্তৃপক্ষ।

চালিতাতলা স্কুলের শিক্ষার্থী রফিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, ওমিক্রন প্রতিরোধে সরকারি নিষেধাজ্ঞা ১০০ জনের বেশি জনসমাগম নিষিদ্ধ হলেও আমরা একটি টিকা কেন্দ্রে হাজার হাজার শিক্ষার্থী টিকা নিচ্ছি।

টিকেট কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা বরগুনা সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুন বাংলানিউজকে বলেন, জিলা স্কুল টিকা কেন্দ্রের শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে আমরা চেষ্টা করছি। বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীরা পুলিশ আসার খবর পেয়ে পালিয়ে গেছে। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে।

বরগুনা সদর হাসপাতালের মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট এনামুল কবির বলেন, পর্যাপ্ত বুথ না থাকায় শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি আমাদেরও বিপাকে পরতে হচ্ছে। আরও কয়েকটি বুথ থাকলে সহজে এবং দ্রুততম সময়ের মধ্যে টিকা দেওয়া যেত।

এ বিষয়ে বরগুনার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহম্মেদ মোবাইল ফোনে বাংলানিউজকে বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে প্রয়োজনীয় সকল প্রকার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বরগুনার সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ফজলুল হক বাংলানিউজকে বলেন, বরগুনা জিলা স্কুলে একটা শীততাপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষ থাকার কারণে ফাইজারের টিকা শিক্ষার্থীদের আলাদা কেন্দ্র স্থাপন করা যাচ্ছে না এই মুহূর্তে। তবে বিকল্প ব্যবস্থা করার চেষ্টা করবো।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০২২
কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa