ঢাকা, বুধবার, ২৫ মাঘ ১৪২৯, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৬ রজব ১৪৪৪

ভারত

গাড়ির টায়ারে লুকানো ছিল কোটি রুপি 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৫, ২০২২
গাড়ির টায়ারে লুকানো ছিল কোটি রুপি 

কলকাতা: ভারতের পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চায়েত ভোটের আগে ফের অবৈধ রুপির সন্ধান মিলল। দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমার কায়দায় টাকা লুকানো হয়েছিল গাড়ির টায়ারে মধ্যে।

এ ঘটনায় গাড়িতে থাকা ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  

রোববার (০৫ ডিসেম্বর) পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ির ডুয়ার্সের বানারহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।  

জানা গেছে, ওই গাড়ি থেকে রুপির বান্ডেলগুলো উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে এত পরিমাণ রুপি কি উদ্দেশ্যে, কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল, সে তথ্য এখনও সামনে আসেনি। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রোববার জলপাইগুড়ির ডুয়ার্সের বানারহাট থানার অন্তর্গত বিন্নাগুড়ি ফাঁড়ির কাছে পুলিশ গোপন সূত্রে জানতে পারে, বিহার থেকে আগত ছোট একটি গাড়ি করে পশ্চিমবঙ্গের বিপুল অঙ্কের টাকা আসছে। খবর পাওয়া মাত্র বিন্নাগুড়ি ফাঁড়ির পুলিশ নাকা চেকিং শুরু করে। তল্লাশি চালাতে গিয়ে একটি কালো রঙের ছোট গাড়ি আটক করে। জানতে পারে গাড়ির মালিক বিহারের বাসিন্দা। ওই গাড়িতে বেশ কয়েকজন ছিল। পুলিশ ওই ব্যক্তিদের টাকার ব্যপারে প্রশ্ন করলে তারা অস্বীকার করে।

সন্দেহের তালিকার সঙ্গে গাড়ি মিলে গেলে তল্লাশি শুরু করে পুলশি। সবকিছু দেখে কিছু না পেয়ে ছেড়ে দেওয়ার প্রস্ততি নেওয়ার সময় চোখে পড়ে গাড়ি অতিরিক্তর চাকা (স্টপনি)-তে। সেই টায়ার কাটতেই সেখান বিপুল সংখ্যক রুপির বান্ডিল উদ্ধার হয়। রুপির পরিমাণ কত তা জানতে, গতকাল রাতভর ব্যাঙ্কের কর্মীদের এনে গোনানো হয়। সোমবার (৫ ডিসেম্বর) জানা যায়, টায়ারের ভেতর কালো প্লাস্টিকে মোড়া ৯৪টি বান্ডিলে মোট ৯৩ লাখ ৮৩ হাজার রুপি ছিল।

গাড়িতে থাকা ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আটক গাড়ির নম্বর প্লেট অনুযায়ী, গাড়িটি বিহার রাজ্যের পূর্নিয়া জেলার বাসিন্দা আহমদ হুসেনের। বিহারের গাড়ির অভিমুখ ছিল পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ার জেলার বীরপাড়ার দিকে।

উল্লেখ্য, গত ২২ জুলাই পশ্চিমবঙ্গের সাবেক শিক্ষামন্ত্রী তথা সামিয়িক বহিষ্কৃত শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের টালিগঞ্জের অভিজাত ফ্লাট থেকে উদ্ধার হয় প্রায় ২০ কোটি রুপি। ওই ঘটনার ছয়দিনের মাথায় ২৮ জুলাই বেলঘরিয়ার অর্পিতার বেলঘড়িয়ার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধারার ২৭ কোটি ৯০ লাখ রুপি। এরপর ৩০ জুলাই পশ্চিমবঙ্গের হাওড়ার পাঁচলায় ঝাড়খণ্ডের কংগ্রেসের বিধায়কের গাড়ি থেকে উদ্ধার হয় ৫০ লাখ রুপি। পরে ওই তিন কংগ্রেস বিধায়কের গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর গত ১০ সেপ্টেম্বর গার্ডেনরি চেয়ে এক ব্যবসায়ী আমির খানের খাটের তলা থেকে উদ্ধার করা হয় ১৭ কোটি ৩২ লাখ রুপি। এরপর ফের পশ্চিমবঙ্গ থেকে বিপুল অবৈধ রুপি উদ্ধার হল জলপাইগুড়ি থেকে। যা নিয়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৫, ২০২২
ভিএস/এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa