ঢাকা, শনিবার, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬ মহররম ১৪৪৬

ভারত

রাহুলের জয় পাওয়া আসনে প্রার্থী হতে পারেন প্রিয়াঙ্কা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৪৪ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০২৪
রাহুলের জয় পাওয়া আসনে প্রার্থী হতে পারেন প্রিয়াঙ্কা

কলকাতা: ভারতের লোকসভা উপনির্বাচনে কেরল রাজ্যের ওয়েনাড় আসন থেকে কংগ্রেসের প্রার্থী হতে পারেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। কংগ্রেস সূত্রে এমনই জানা যাচ্ছে।

দেশটিতে সদ্য শেষ হয়েছে লোকসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনে ওয়েনাড় এবং উত্তরপ্রদেশের রায়বেরেলি আসন - এই দুই আসন থেকে কংগ্রেস প্রার্থী করেছিল রাহুল গান্ধীকে। এবার দুই আসন থেকেই প্রায় সাড়ে তিন লাখের বেশি ভোটে জয় পেয়েছেন রাহুল। কিন্তু এহেন পরিস্থিতিতে সংসদ সদস্য হিসেবে রাহুল যেকোনো একটি আসন নিজের দখলে রেখে দিতে পারবেন। অপরটি ছেড়ে দিতে হবে।

শোনা যাচ্ছে, রাহুল রায়বেরেলি আসনটি নিজের কাছে রেখে ওয়েনাড় থেকে ইস্তফা দিতে পারেন। যে কারণে ওয়েনাড় আসনে উপনির্বাচন হতে চলেছে। আর ওই আসন থেকে কংগ্রেস প্রার্থী করতে পারেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে। আর তাই যদি হয়, ওয়েনাড কেন্দ্রে হাতেখড়ি হতে চলেছে প্রিয়াঙ্কার।

রাজ্যটির প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির প্রধান কে. শুধাকরণ ইঙ্গিত দিয়েছেন, ওয়েনাড় আসন থেকে রাহুল গান্ধী পদত্যাগ করতে পারেন। এ ব্যাপারে আমাদের দুঃখ পাওয়া উচিত নয়। প্রত্যেকেরই এটি বোঝা উচিত এবং তাকে তাদের সমস্ত শুভেচ্ছা এবং সমর্থন দেওয়া উচিত।

তবে দেশটির বিভিন্ন গণমাধ্যম সূত্রে জানা যাচ্ছে, ওয়েনাড়ারের একাধিক কেন্দ্রে একাধিক ইতিমধ্যে প্রিয়াঙ্কার সমর্থনে পোস্টার পড়েছে। ওই আসন প্রিয়াঙ্কাকে দায়িত্ব দেওয়া হোক এমন আহ্বান জানানো হয়েছে।

ভারতের আইন অনুযায়ী, একজন প্রার্থী একের বেশি আসন থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারলেও জয়ের পর একটি আসনে নিজের কাছে ধরে রাখতে পারবেন। এবং ভোট গণনার দিন থেকে ১৪ দিনের মধ্যে দ্বিতীয় আসনটি থেকে ইস্তফা দিতে হয়। অন্যথায় দুটি আসনই ফাঁকা বলে ঘোষণা করা হবে। গত ৪ জুন ভারতের লোকসভা নির্বাচনে ফলাফল ঘোষিত হয়েছে। সেক্ষেত্রে ১৮ জুনের মধ্যে রাহুলকে একটি কেন্দ্র থেকে ইস্তফা দিতেই হবে।  

যদিও রাহুল নিজেও জানিয়েছেন, এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিষয়ে খুবই দ্বিধায় রয়েছেন তিনি। কারণ ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশের আমেঠি আসন থেকে প্রার্থী হয়েছিলেন রাহুল৷ সেবার বিজেপি প্রার্থী স্মৃতি ইরানির কাছে ৫৫ হাজারের বেশি ভোটে পরাজিত হন।  

কিন্তু ওয়েনাড়ে ৭ লাখের বেশি ভোট জয় পান রাহুল। ওয়েনাড়ে কংগ্রেসের পাশাপাশি সমর্থন দিয়েছিল ‘ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লিগ’ এর ভোটার।

চলতি নির্বাচনের এবার আমেঠির বদলে রায়বেলেরি থেকে প্রার্থী হয়েছিলেন রাহুল। কিন্তু নানা সমীকরণ ভেবে ওয়েনাড় আসনও হাত ছাড়া করেননি৷ ফলে ওয়েনাড় এবারও তাকে বিরূপ করেনি।

বাংলাদেশ সময়: ২২৩৭ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০২৪
ভিএস/এসএএইচ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।