ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ভারত

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য অপ্রাসঙ্গিক, কলকাতার অনুষ্ঠানে লিটন

ভাস্কর সরদার, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৯ ঘণ্টা, আগস্ট ২১, ২০২২
পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য অপ্রাসঙ্গিক, কলকাতার অনুষ্ঠানে লিটন

কলকাতা: শেখ হাসিনাকে টিকিয়ে রাখতে ভারতের সহায়তা চেয়েছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন। গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামে এক অনুষ্ঠানে নিজেই এ কথা জানান তিনি।

তার এমন বক্তব্যের পর থেকেই বাংলাদেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে সমালোচনা চলছে। এবার মোমেনের ওই বক্তব্যকে অপ্রাসঙ্গিক বললেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।  

রোববার (২১ আগস্ট) কলকাতা প্রেসক্লাবের এক আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।  

লিটন বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী অপ্রাসঙ্গিক কথা বলেছেন। এমন কথা বলা তার ঠিক হয়নি। কথাবার্তা বলার ক্ষেত্রে আরও সতর্ক হওয়া উচিত ছিল।  

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বাংলাদেশের স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকী ও বাংলাদেশের জাতীয় শোক দিবস এবং ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় শেখ হাসিনার প্রাণনাশের অপচেষ্টার প্রতিবাদ দিবসে শহীদের স্মরণে কলকাতা প্রেসক্লাবে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন লিটন, সাংসদ সদস্য আরোমা দত্ত, রাজশাহী সিটি আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহীন আক্তার রেনি, মুক্তিযুদ্ধের রণাঙ্গন থেকে সংবাদ সংগ্রহকারী কলকাতার বিশিষ্ট সাংবাদিক দিলীপ চক্রবর্তীসহ বিশিষ্টজনেরা।

এরপরই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে আগামী সেপ্টেম্বর মাসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর দিল্লি সফরে তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি বাস্তবায়নের ব্যাপারেও আশা প্রকাশ করেন লিটন। তার অভিমত, এই চুক্তি হলে তা উভয় দেশের জন্যই ভালো।  

তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ খুবই আশা নিয়ে তাকিয়ে থাকে তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তির দিকে। যখনই কোনো সফরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ভারতের যান কিংবা ভারতের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে সফরে আসেন, তখন বাংলাদেশের মানুষ আশা করে যে তিস্তার পানি বণ্টনের একটা সমাধান হবে।  

এর পাশাপাশি সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন সেক্টরে চীনের বিনিয়োগ এবং বাংলাদেশের ঋণের ফাঁদে পড়ার আশঙ্কা অমূলক বলে মন্তব্য করেন লিটন।  

এছাড়া দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ করবে বলেও আশা প্রকাশ করেন লিটন। তিনি বলেন, বিএনপি নির্বাচনে আসুক সেটা আমরা সবাই চাই। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও বলছেন বিএনপিকে সাথে নিয়ে একটা অর্থবহ নির্বাচন হোক এবং নির্বাচনে যদি তারা অংশগ্রহণ করে তবেই তারা তাদের জনপ্রিয়তার অবস্থানটা কি বুঝতে পারবে। আমরাও চাই, তারা এসে একটা পরীক্ষা দিক।

৭১ মুক্তিযুদ্ধে ভারত সরকার এবং তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীসহ ভারতের জনগণের অবদানের কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, সে সময় ভারত যেভাবে বাংলাদেশকে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল তা হাজারবার বললেও ঋণ শোধ করা যাবে না।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, আমরাও তার সাথেই আছি। সে কারণেই আমরা চাই মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারত যেভাবে বাংলাদেশের পাশে দাঁড়িয়েছে, সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে, আগামী দিনগুলিতেও ঠিক সেভাবেই সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

পাশাপাশি রাজশাহীর মেয়র বলেন, আগামী বছর জুন মাসে সিটি নির্বাচন। নির্বাচনের পরে কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিমের সঙ্গে আলোচনার পরিকল্পনা আছে। সব ঠিক থাকলে কলকাতা এবং রাজশাহীর মধ্যে কিছু চুক্তি হতে পারে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৫ ঘণ্টা, আগস্ট ২১, ২০২২
ভিএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa