ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

তথ্যপ্রযুক্তি

একযোগে ক্লাউড কমপিউটিং সেবা দেবে মাইক্রোসফট-ফুজিৎসু

মনোয়ারুল ইসলাম | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭৩২ ঘণ্টা, জুলাই ১৩, ২০১০
একযোগে ক্লাউড কমপিউটিং সেবা দেবে  মাইক্রোসফট-ফুজিৎসু

ক্লাউড কমপিউটিং সেবার মানোন্নয়নে সোমবার চুক্তি সই করেছে মাইক্রোসফট ও জাপানি প্রতিষ্ঠান ফুজিৎসু। তাদের তৈরি করা ক্লাউড কমপিউটিং সার্ভারে তথ্য ও প্রোগ্রাম সংরক্ষিত থাকবে।

যে কোনো ভোক্তার নিজস্ব কমপিউটার থেকে এ তথ্য ব্যবহার করা যাবে।

প্রাতিষ্ঠান দুটির সূত্রে জানা যায়, এদের চুক্তিবদ্ধ হওয়ার মূল লক্ষ্য হচ্ছে ভোক্তাদেরকে কম খরচে তথ্য ও প্রোগ্রাম সংরক্ষণের সুযোগ করে দেওয়া। ভোক্তা কম শক্তিশালী ও কম মেমোরি সম্পন্ন কমপিউটারের মাধ্যমেও ক্লাউড কমপিউটিং সেবা উপভোগ করতে পারবেন।   এজন্য দরকার হবে কেবল উচ্চগতির ইন্টারনেট সংযোগ।

ফুজিৎসু আইসিটি সার্ভিসের মূখপাত্র কাজু ইশিদা জানান, মাইক্রোসফট ও ফুজিৎসু চুক্তিবদ্ধ হওয়ায় ভোক্তাদের জন্য ক্লাউড কমপিউটিং সেবার ক্ষেত্রে নতুন দুয়ার উন্মোচিত হবে। তাছাড়া এখন থেকে ফুজিৎসু মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ অ্যাজুর এর উপর ভিত্তি করে তাদের ডাটা সেন্টারের উন্নয়ন করবে। এ কাজ চলতি বছরের শেষ নাগাদ শুরু হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

কাজু ইশিদা আরও জানান, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ২০১৬ সালের মার্চ মাসের মধ্যে শুধু ক্লাউড কমপিউটিং সেবা প্রদান করেই ১ হাজার ৭০০ কোটি ডলার মুনাফা করা সম্ভব হবে। অন্যদিকে ফুজিৎসুর প্রেসিডেন্ট মাসামি ইয়ামামুতু জানান, ক্লাউড কমপিউটিং প্রযুক্তির উন্নয়নে গত বছরের তুলনায় এ বছর ৫৪ ভাগ বেশি বিনিয়োগ করা হয়েছে। তাই এ বছর তাঁরা গত বছরের তুলনায় দ্বিগুণ মুনাফা আশা করছেন।

এ মুহূর্তে ফুজিৎসু বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে ডাটা সেন্টার স্থাপনের কাজ করছে। সম্প্রতি চীনে তারা এরকমই একটি ডাটা সেন্টার স্থাপন করেছে। আগামী বছর এটি কাজ শুর করবে। তাছাড়া ২০১১ সালের মধ্যে জাপানের বাইরে ৫টি দেশে ডাটা সেন্টার স্থাপন করবে ফুজিৎসু। সম্ভাব্য ৫টি দেশ হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন, জার্মানি, সিঙ্গাপুর ও যুক্তরাষ্ট্র। আর ডাটা সেন্টারগুলোর সুষ্ঠু পরিচালনার জন্য প্রায় ৫ হাজার প্রকৌশলীকে প্রশিক্ষণ দেবে বলে জানিয়েছেন মাসামি ইয়ামামুতু।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ১৪০৪ ঘণ্টা, জুলাই ১৩, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa