ঢাকা, শনিবার, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ০২ মার্চ ২০২৪, ২০ শাবান ১৪৪৫

ইসলাম

যমুনার তীরে শুরু হচ্ছে সিরাজগঞ্জ জেলা ইজতেমা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২২, ২০২২
যমুনার তীরে শুরু হচ্ছে সিরাজগঞ্জ জেলা ইজতেমা সিরাজগঞ্জের ইজতেমা প্রাঙ্গণ। ছবি: বাংলানিউজ

সিরাজগঞ্জ: যমুনা নদীর তীরে শুরু হচ্ছে তিন দিনব্যাপী সিরাজগঞ্জ জেলা ইজতেমা।

শুক্রবার (২৩ ডিসেম্বর) সকাল থেকে পৌর এলাকার রানীগ্রাম মহল্লায় যমুনা নদীর তীরে ইজতেমা শুরু হবে।

যা রোববার (২৫ ডিসেম্বর) আখেরি মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে শেষ হবে।

সিরাজগঞ্জ জেলা তাবলিগ জামায়তের (নিজাম উদ্দিন অনুসারী) আয়োজনে এ ইজতেমায় অর্ধ লাখেরও বেশি মুসল্লি অংশ নেবেন বলে জানিয়েছেন আয়োজকেরা।

বৃহস্পতিবার (২২ ডিসেম্বর) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ইজতেমা আয়োজনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে কমিটি। প্রায় ৫০ বিঘা জমির ওপর করা ইজতেমা স্থলের আশপাশে রাখা হয়েছে মুসল্লিদের সকল সুযোগ-সুবিধা। এখানে ছয়টা খিতরা তৈরি করা হয়েছে। প্রতিটি খিতরায় ৪০০ থেকে ৪৫০ লোক থাকতে পারবে। ২৫টি পয়েন্টে এসব খিতরায় মোট ৩৬০টি রুম করা হয়েছে। এখানে মুসল্লিদের জন্য রাখা হয়েছে ১২৫টি বাথরুম।

এছাড়াও স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে দুইটি মেডিকেল টিম রাখা হয়েছে। অন্যদিকে, সার্বিক নিরাপত্তার জন্য ইজতেমা স্থলে একটি পুলিশ ক্যাম্প বসানো হয়েছে।

তাবলিগ জামায়াতের সিরাজগঞ্জ জেলা ফয়সাল সূরা সদস্য ডা. এস এম নাজিম উদ্দীন জানান, ইজতেমায় সিরাজগঞ্জ জেলা ছাড়াও পাবনা, বগুড়া, নাটোর, নওগাঁ ও টাঙ্গাইল জেলার মুসল্লিরা অংশ নেবেন। এছাড়াও ভারত, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া থেকে ওলামায়ে কেরামরা যোগ দেবেন।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির বলেন, ইজতেমার আয়োজনে সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করা হয়েছে। নিরাপত্তার দিকে চিন্তা করে ইজতেমায় একটি পুলিশ ক্যাম্প নিয়োজিত থাকবে। এছাড়াও ইজতেমা চলাকালীন সময়ে পুলিশ টহল অব্যাহত থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২২, ২০২২
এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।