ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৩ মে ২০২৪, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫

ইসলাম

হালাল সার্টিফিকেট পেতে হটডগের নাম পরিবর্তনের আদেশ

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৪, ২০১৬
হালাল সার্টিফিকেট পেতে হটডগের নাম পরিবর্তনের আদেশ ছবি: সংগৃহীত

মালয়েশিয়া একটি মুসলমানপ্রধান দেশ। দক্ষিণপূর্ব এশিয়ায় অবস্থিত মালয়েশিয়ার আয়তন ৩,২৯,৮৪৫ বর্গকি.মি.। এর রাজধানীর নাম কুয়ালালামপুর, পুত্রজায়া হলো ফেডারেল সরকারের রাজধানী।

মালয়েশিয়া একটি মুসলমানপ্রধান দেশ। দক্ষিণপূর্ব এশিয়ায় অবস্থিত মালয়েশিয়ার আয়তন ৩,২৯,৮৪৫ বর্গকি.মি.।

এর রাজধানীর নাম কুয়ালালামপুর, পুত্রজায়া হলো ফেডারেল সরকারের রাজধানী।

মালয়েশিয়ার মোট জনসংখ্যার ৬০% মুসলিম। বাকিরা বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান। সেই মালয়েশিয়ায় হালাল সার্টিফিকেট পেতে হটডগের নাম পরিবর্তনের আদেশ দেওয়া হয়েছে। ‘হটডগের’ নাম না বদলালে ‘হালাল সনদ’ পাবে না হোটেল-রেস্তোরাঁগুলো। মুসলিম অধ্যুষিত দেশটির ধর্ম সংক্রান্ত সরকারি বিভাগ এ কথা জানিয়েছে।

ইসলামি উন্নয়ন বিভাগ নামের সরকারি অফিসটির হালাল ডিভিশনের পরিচালক সিরাজুদ্দিন সুহাইমি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘যেসব হালাল পণ্য ক্রেতাদের দ্বিধায় ফেলে, সেগুলো আমরা বদলাতে বাধ্য। ইসলামে কুকুর প্রাণীটিকে নাপাক বলে গণ্য করা হয় এবং কোনোভাবেই হালাল সনদের সঙ্গে এর সংযোগ থাকতে পারে না। ’

হটডগের পরিবর্তে পশ্চিমা এ খাবরের নাম ‘হট সসেজ’ রাখা যায় বলে অভিমতও দিয়েছে সরকারি দপ্তরটি। মূলত মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশটিতে ধর্মীয় দিক বিবেচনা করেই নাম পাল্টানোর কথা ভাবা হয়েছে।  

শুধু ‘হটডগ’ নয়, যেসব খাবারের শেষে ‘ডগ’ শব্দটি আছে সেগুলোর নামও ধীরে ধীরে পরিবর্তন করা হবে বলে জানা গেছে। এর আগে বিদেশ থেকে আসা মুসলিম পর্যটকরা হটডগ নিয়ে অভিযোগ করেছিলেন।  

মালয়েশিয়ার খাবারের দোকানগুলোতে দীর্ঘদিন ধরেই বিক্রি হয়ে আসছে জনপ্রিয় পশ্চিমা খাবার হটডগ। পাউরুটি ও মাংস সহযোগে খাবারটি বেশ মুখরোচক।

মালয়েশিয়ায় বহু ফেরিওয়ালা হটডগ বিক্রি করেন। এ ছাড়া অনেক হালাল রেস্তোরাঁয়ও বিক্রি হয় হটডগ। সবাইকেই প্রতি দু’বছর অন্তর ‘ডিপার্টমেন্ট অফ ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট’ থেকে তাদের হালাল সনদ রিনিউ করাতে হয়।

মালয়েশিয়া মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠের দেশ। তবে উদারপন্থী হিসেবে পরিচিত। যদিও খাবারের নাম পরিবর্তন করা নির্দেশের কারণে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সরকারের নানা সমালোচনা হচ্ছে।

মালয়েশিয়ার রাষ্ট্র ধর্ম ইসলাম। সেখানে সিভিল কোর্টের পাশাপাশি শরিয়া আদালতের কার্যক্রম পরিচালিত হয়৷ শরিয়া আদালতে সাধারণত মুসলমানদের মামলা-মোকাদ্দমা পরিচালনা করা হয়।

-ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস অবলম্বনে

বাংলাদেশ সময়: ২০২০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৪, ২০১৬
এমএইউ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।