ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ইসলাম

‘সাফীরুল কোরআন’ সম্পর্কে জানুন

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০২১
‘সাফীরুল কোরআন’ সম্পর্কে জানুন

ঢাকা: সম্প্রতি প্রথম রমজান থেকে বাংলাদেশে শুরু হয়েছে সাফীরুল কোরআন শিক্ষা। এরপর থেকেই যেমন মানুষের উৎসাহ পাওয়া গেছে, তেমনি উঠে এসেছে কিছু সাধারণ প্রশ্নও।

সাফীরুল কোরআনের লেখক ও গবেষক ড. আবুল কালাম আজাদের সঙ্গে এ সম্পর্কে প্রচলিত ও সাধারণ কিছু আলোচনা করেছেন সাফীরুল কোরআনের প্রশাসনিক প্রধান মুহাম্মাদ রশিদ আল মাজিদ খান সিদ্দিকী মামুন।  

সাফীরুল কোরআন হচ্ছে কোরআনের দূত। এটি কোরানিক আরবি ভাষা শেখার একটি কোর্স। ‘সাফীরুল কোরআন’ হলো সহজ উপায়ে কোরানিক ভাষা শেখার এমন একটি বিস্তারিত কোর্স, যার মাধ্যমে পবিত্র আল কোরআনের আয়াত পড়ে বা শুনে অতি সহজে প্রতিটি শব্দ বা বাক্যের অর্থ বোঝা যায়। কোরআনিক আরবি ভাষা শেখার এ কার্যকরী কোর্সটি সাধারণত তিনটি স্তরে শেখানো হয়ে থাকে। যার প্রাথমিক স্তরের কোর্সটি সম্পন্ন করার পর আগ্রহী শিক্ষার্থীরা কোরআনিক ভাষার প্রায় ৭০-৮০ শতাংশ শব্দ বা আয়াতের ভাবার্থ বুঝতে সক্ষম হবেন। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্তরের কোর্স শেষ করার মাধ্যমে তারা কোরআন-হাদিসের পবিত্র গ্রন্থগুলো পড়ে সঠিক অর্থ অনুধাবনের পাশাপাশি এগুলোর উপর অধিকতর গবেষণা ও জ্ঞানার্জনের সক্ষমতা অর্জন করেন।  

সাফীরুল কোরআনের লেখক ও গবেষক, লন্ডন প্রবাসী বাংলাদেশি ওস্তাদ ড. আবুল কালাম আজাদ। তিনি নব্বইয়ের দশকে উচ্চতর শিক্ষার উদ্দেশে মদীনায় পাড়ি জমান। এরপর থেকে প্রবাসেই তার জীবনের অধিকাংশ সময় কেটেছে। বিখ্যাত মদীনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জনের পরবর্তী কয়েক দশক তিনি পবিত্র আল কোরআনের উপর বিস্তারিত পড়াশোনা ও গবেষণার মাধ্যমে সহজে আল-কোরআন পড়ে বোঝার আধুনিক পদ্ধতি ‘সাফীরুল কোরআন’ উদ্ভাবন করেন। বিগত কয়েক বছর ধরেই এ অভিনব পদ্ধতি প্রয়োগ করে তিনি নিজেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষাভাষী মুসলিম জনগোষ্ঠীর মধ্যে নামমাত্র ফি’র বিনিময়ে বিস্তারিত কোর্সটি পরিচালনা করে আসছেন।  

সহজ উপায়ে কোরানিক আরবি ভাষা শেখার একটি প্রাথমিক স্তরের কোর্স। যা সম্পন্ন করার পর আগ্রহী শিক্ষার্থীরা আল কোরআনের প্রায় ৭০-৮০ শতাংশ শব্দ বা আয়াতের ভাবার্থ বুঝতে সক্ষম হবেন, ইনশাআল্লাহ।  

৩০ দিনের একটি ছোট কোর্স। প্রতিদিন মাত্র ১০টা করে কোরানিক আরবি শব্দার্থ শিখতে পারলে এক মাসে প্রায় ৩০০ শব্দ শিখে ফেলতে পারবেন। ইনশাআল্লাহ উক্ত শব্দের সমাহারে শিক্ষার্থীরা আল কোরআনের প্রায় ৭০-৮০ শতাংশ শব্দ বা আয়াতের ভাবার্থ বুঝতে পারবেন।  

মিনি সাফীরুল কোরআন বাংলা ভাষাভাষী মুসলমান নারী-পুরুষদের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে। তবে ক্লাস নোটগুলোতে বাংলা শব্দের পাশাপাশি ইংরেজি শব্দের অর্থ বলে দেওয়া হয়।  

এবারই প্রথম পবিত্র রমজান মাস (মার্চ ২০২১) উপলক্ষে বাংলা ভাষাভাষী ২০ হাজারেরও বেশি সংখ্যক মুসলমান নারী-পুরুষকে সম্পূর্ণ ফ্রিতে কোরআনিক ভাষা শেখানোর উদ্যোগ নিয়েছে দ্বীনি শিক্ষার প্রতিষ্ঠান ‘সাফীরুল কোরআন’। বাংলা ভাষাভাষী যেকোনো বয়স ও শ্রেণি-পেশার মুসলিম নারী-পুরুষ যারা বাংলা লিখতে-পড়তে এবং কোরআন শুদ্ধ করে পড়তে পারেন তারা সবাই বিনা দ্বিধায় আমন্ত্রিত।  

আগ্রহী শিক্ষার্থীদের কোর্সে জয়েন করতে সাফীরুল কোরআনের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে (https://www.facebook.com/safeerulquranarabic/) যুক্ত হওয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।  

নিরাপত্তার খাতিরে আমরা প্রতিদিন একটি করে নতুন লিংক দিয়ে থাকি। সেই নতুন লিংকের জন্য নিয়মিত সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোতে নজর রাখতে হবে। নিয়মিত ফেসবুক লাইভ ফলো করবেন। আমরা বাংলাদেশ সময় প্রতিদিন দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৩টা ও যুক্তরাজ্য সময় সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত। সেখানে লাইভে থাকি।

প্রতিদিনের ফেসবুক রেকর্ড লাইভটি আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোতে সেভ থাকে। আপনার সুবিধামতো সময় মেকআপ ক্লাসটি করতে পারবেন। সেখানে প্রতিদিনের ক্লাস নোট পিডিএফ করে দেওয়া থাকে তা ডাউনলোড করে নিতে পারেন।  

শুধুমাত্র আগের হয়ে যাওয়া ক্লাসগুলোর লিংক ও নোটগুলো আমাদের ফেসবুক মেসেজে যোগাযোগ করে সংগ্রহ করে নিন এবং তা মনোযোগের সঙ্গে অধ্যয়ন করে পরবর্তী ক্লাসটি উপভোগ করুন। ক্লাসের নোট পিডিএফটি পড়তে প্রথমত আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারে Adobe Reader সফটওয়্যারটি ইন্সটল থাকতে হবে। না থাকলে আপনার বাসায় ডিভাইস ভালো বুঝেন এমন কাউকে বলুন অ্যাপ্লিকেশনটি ইন্সটল করে দিতে। কিছু কিছু আধুনিক মোবাইলে আগে থেকেই সফটওয়্যারটি ইন্সটল করা থাকে। তারপর আপনি ক্লাস নোটের নামটির উপর ক্লিক করলে সেভ বা ডাউনলোড অপশন পাবেন। অতঃপর আপনার পছন্দনীয় ফোল্ডারে সেভ করে রাখুন।  

আমাদের মনে হয় আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারে অটো ডাউনলোড অপশনটি চালু করা আছে। তাই মোবাইলে হলে ফাইল ফোল্ডারে দেখুন এবং কম্পিউটারে ডাউনলোড ফোল্ডারে পাবেন। তবে মনে রাখবেন ক্লাস নোট পিডিএফটি পড়তে প্রথমত আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারে Adobe Readerসফটওয়্যারটি ইন্সটল থাকতে হবে।

মিনি সাফীরুল কোরআন কোর্স করার জন্য কোনো রেজিস্ট্রেশন দরকার নেই। রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই যে কেউ এ কোর্স করছেন এবং করতে পারবেন।  

আমাদের প্রতিদিনের ক্লাসগুলো নিয়মিত আপলোড করা হচ্ছে। অনুগ্রহ করে সাবস্ক্রাইব করুন ও নিয়মিত আপডেট পেতে বেল বাটনে চাপ দিন। YouTube লিংক- https://www.youtube.com/channel/UCXNQRaew-vSSG1PdchbRTvg 

আমাদের উদ্দেশ্য দ্বীনের খেদমত করা এবং আপনাদের কোরআন ও ইসলাম সম্পর্কে সঠিক ধারণা দেওয়া। নিশ্চয়ই আল্লাহ তা’আলার কাছে ইসলামের উপর বান্দার জ্ঞানের পরিধিটাই সবচেয়ে বেশি গ্রহণযোগ্যতা পায়, দুনিয়াবী কোনো সার্টিফিকেট নয়। তাই আমরাও শুধুমাত্র আখিরাতের কথা চিন্তা করে কোরআনের দ্যূত তৈরি করার কার্যক্রম হাতে নিয়েছি। সম্পূর্ণ কোর্সে ছাত্র-ছাত্রীদের শেখার অগ্রগতি বিচারের মানদণ্ড বা কোনো প্রথাগত পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে না। কারণ আমরা বিশ্বাস করি কোরআন যত পড়বেন ততই নিজেকে তার আলোকে আলোকিত করতে পারবেন। তাই বেশি বেশি কোরআন পড়ুন।  

আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোতে নিয়মিত যোগাযোগ রাখুন। আমরা পরবর্তী কোর্স চালু হলে এখানে ঘোষণা দেবো। আপনি অতি সহজেই আমাদের সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন।  

এটি একটি আন্তর্জাতিক কোরআনিক আরবি ভাষা শেখার অনলাইন প্রতিষ্ঠান। লেখক ও গবেষক, লন্ডন প্রবাসী বাংলাদেশি ওস্তাদ ড. আবুল কালাম আজাদ পবিত্র আল কোরআনের উপর বিস্তারিত পড়াশোনা ও গবেষণার মাধ্যমে সহজে আল-কোরআন পড়ে বোঝার আধুনিক পদ্ধতি ‘সাফীরুল কোরআন’ উদ্ভাবন করেন। বিগত কয়েক বছর ধরেই এ অভিনব পদ্ধতি প্রয়োগ করে তিনি নিজেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষা-ভাষী মুসলিম জনগোষ্ঠীর মধ্যে বিস্তারিত কোর্সটি পরিচালনা করে আসছেন। সার্বিক সহযোগিতায় আছেন সাফীরুল কোরআনের অ্যাডমিন প্রধান মুহাম্মাদ রশিদ আল মাজিদ খান সিদ্দিকী মামুন ও বাংলাদেশে অবস্থিত সাফীরুল কোরআনের চার শতকের বেশি প্রাক্তন ছাত্রছাত্রী। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির এ মহৎ উদ্যোগকে আরও দ্রুতগতি করতে সহপ্রতিষ্ঠান হিসেবে যুক্ত হয়েছে ইসলাম বিষয়ক শিক্ষা-গবেষণা ও মানব সেবামূলক বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান মুসলিম রিসার্চ সেন্টার (এমআরসি)।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১২ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০২১
আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa