ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

আইন ও আদালত

কুমিল্লায় গৃহবধূকে হত্যার দায়ে ছয়জনের যাবজ্জীবন 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৩৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০২২
কুমিল্লায় গৃহবধূকে হত্যার দায়ে ছয়জনের যাবজ্জীবন 

কুমিল্লা: গৃহবধূ হত্যার ১৬ বছর পর ছয়জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন কুমিল্লা আদালত। বুধবার (৩০ নভেম্বর) দুপুর ১২টায় কুমিল্লা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৫ম আদালতের বিচারক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন এ রায় দেন।

 

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- কুমিল্লার দাউদকান্দির বড়সাতপাড়া গ্রামের কাউসার ওরফে অপূর্ব, মুরাদনগরের বড়ইয়া কুড়ি গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম, দাউদকান্দির সাতপাড়া গ্রামের শফিকুল ইসলাম, একই গ্রামের আক্তার হোসেন ও লালচাঁন স্বর্ণকার এবং দেবিদ্বারের ভানী গ্রামের মহসিন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী আ হ ম তাইফুর আলম।  

এজাহারের বরাত দিয়ে তিনি জানান, ২০০৭ সালের ১৯ জানুয়ারি রাতে ডাকাতির উদ্দেশে ঘরে ঢুকে গৃহবধূ শাহনাজ আক্তারকে হত্যা করা হয়। ঘটনার দিন তিনি তার স্বামী ফারুক মিয়ার বাড়ি দাউদকান্দির ইলিয়টগঞ্জে ছিলেন। ঘটনার সময় শাহনাজ ওয়াশরুমে ছিলেন। সেখান থেকে তাকে টেনেহিঁচড়ে বের করে ডাকাতদল। এসময় তার হাত-পা বেঁধে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে, নাকমুখ তোয়ালে দিয়ে বেঁধে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে আসামিরা।  

তিনি বলেন, রায় ঘোষণার সময় আসামি কাউসার ছাড়া বাকিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। মামলার বাদী ছিলেন শাহনাজের বাবা সৈয়দ আহমেদ। প্রথমে অজ্ঞাতদের আসামি করে দাউদকান্দি থানায় মামলা করা হয়। পরে চূড়ান্ত চার্জশিটে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের নাম উঠে আসে।

মামলার আসামিপক্ষের আইনজীবী মাসুদ সালাউদ্দিন জানান, আমরা এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আবেদন করব।

কুমিল্লা আদালতের পুলিশ পরিদর্শক মুজিবুর রহমান জানান, আসামিদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩০ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০২২
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa