ঢাকা, সোমবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ শাবান ১৪৪৫

আইন ও আদালত

দিনাজপুরে পুড়িয়ে হত্যার ২৮ বছর পর ৩ আসামির যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২২ ঘণ্টা, মার্চ ৩০, ২০২৩
দিনাজপুরে পুড়িয়ে হত্যার ২৮ বছর পর ৩ আসামির যাবজ্জীবন

দিনাজপুর: দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জেরে আব্দুল হক নামে এক ব্যক্তিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার ২৮ বছর পর তিনজন আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাস করে সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

 

এছাড়া তাদের তিনজনকে একই মামলার অন্য একটি ধারায় (পেনাল কোড ৪৩৬/৩৪) ১০ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই মাস করে সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।  

আদালত সূত্রে জানা যায়, উভয় ধারার সাজা একই সঙ্গে কার্যকর হবে।

বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) দুপুরে দিনাজপুর অতিরিক্ত দায়রা জজ-২ আদালতের বিচারক শ্যাম সুন্দর রায় এ আদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- চিরিরবন্দর উপজেলার নান্দ্রাই ভোজুপাড়া এলাকার মৃত আফাজ উদ্দিন শাহের ছেলে মোফিল শাহ, মোফিল উদ্দিন শাহের ছেলে হামিদুল হক ও একই এলাকার মৃত আজিমুদ্দিনের ছেলে বাবুল হোসেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জেরে নান্দ্রাই ভোজুপাড়া এলাকায় ১৯৯৫ সালের ৫ এপ্রিল আব্দুল হকের ঘরে আগুন লাগিয়ে দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করে দেন ওই তিনজন। এতে পুড়ে মারা যান ঘরে থাকা আব্দুল হক। এতে তার মেয়ে রশিদা খাতুন গুরুতর আহত হন। এছাড়া ওই তিনজন আব্দুল হকের বাড়ির পাশে তার ছেলের ঘরের দরজাও বাইরে থেকে আটকে দিয়ে অগ্নিসংযোগ করেন। ঘটনার পরদিন হত্যা ও অগ্নিকাণ্ডের অভিযোগে নিহতের ছেলে এন্তাজুল হক বাদী হয়ে চিরিরবন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ তাদের তিনজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেয়।  
মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় ২৮ বছর পর বৃহস্পতিবার এ রায় দিলেন আদালত।  

দিনাজপুর আদালত পুলিশ পরিদর্শক রাজ্জাকুল ইসলাম জানান, আদালতের নির্দেশে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৯ ঘণ্টা, মার্চ ৩০, ২০২৩
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।