ঢাকা, শনিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ায় মৃত্যুদণ্ড থেকে বেঁচে গেলেন গোপালগঞ্জের ওলিয়ার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩২৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৬
মালয়েশিয়ায় মৃত্যুদণ্ড থেকে বেঁচে গেলেন গোপালগঞ্জের ওলিয়ার আইনজীবীর সঙ্গে সাদা গেঞ্জি পরা ওলিয়ার শেখ

মালয়েশিয়ায় মিথ্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত বাংলাদেশি ওলিয়ার শেখকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে। তার বাড়ি গোপালগঞ্জের মুসছুদপুর থানার ছাগলচিরায়।

ঢাকা: মালয়েশিয়ায় মিথ্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত বাংলাদেশি ওলিয়ার শেখকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে। তার বাড়ি গোপালগঞ্জের মুসছুদপুর থানার ছাগলচিরায়।

অপর দুই বাংলাদেশিকে হত্যার অভিযোগে দ‍ায়ের হওয়া মামলায় তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের আদেশ দেওয়া হয়েছিলো।  

দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণ হওয়ায় বুধবার (১৪ ডিসেম্বর) জেল থেকে মুক্তি পান তিনি। মুক্তি পেয়েই ছুটে যান বাংলাদেশ হাই কমিশনে। এ সময় তাকে ঘিরে এক আনন্দঘন পরিবেশ তৈরি হয়।  

বাংলাদেশি ওলিয়ার শেখ উন্নত জীবনের আশায় মালয়েশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর জোহর বাহরুতে গিয়ে কাজ শুরু করেন। দুর্ভাগ্যবশত জোড়া খুনের ঘটনায় ২০১০ সালে গ্রেফতার হন তিনি। আদালত তার বিরুদ্ধে ১০ বছরের কারাদণ্ডসহ ফাঁসির আদেশ দেন।  

ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপীল করা হয় সেরেমবানের উচ্চ আদালতে। ২০১২ সালের দিকে বাংলাদেশ হাই কমিশনের পক্ষে প্রথম সচিব (শ্রম) মুশাররাত জেবিন বিষয়টির দেখভাল শুরু করেন। ওলিয়ার শেখের পক্ষে আইনি লড়াই চালান মালয় আইনজীবী রাতজি বিন ইয়াতিমাম।  

এ বছরের মাঝামাঝিতে চূড়ান্ত শুনানি শেষে ওলিয়ার শেখকে বেকসুর খালাসের আদেশ দেন আদালত। বুধবার তাকে জেল থেকে মুক্তি দেওয়া হয়।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৬
জেডএম/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa