ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ায় অভিযানে সবচেয়ে বেশি আটক বাংলাদেশি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪৫১ ঘণ্টা, জুলাই ১, ২০১৭
মালয়েশিয়ায় অভিযানে সবচেয়ে বেশি আটক বাংলাদেশি মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে পুলিশের অভিযান

ঢাকা: অবৈধ শ্রমিকের নিবন্ধনের জন্য ই-কার্ড (এনফোর্সমেন্ট কার্ড) গ্রহণের বেধে দেওয়া মেয়াদ শেষ হলে শুক্রবার (৩০ জুন) রাত থেকে জোরালো অভিযান চালায় মালয়েশিয়ান ইমিগ্রেশন বিভাগ। এরপর মধ্যরাত থেকেই দেশটির বিভিন্ন স্থানে অ্যাপার্টমেন্ট ও কনডোগুলোতে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে সবচেয়ে বেশি আটক হয়েছেন বাংলাদেশিরা। 

স্বয়ং ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক সেরি মুস্তাফার আলীর নেতৃত্বে একটি দল জালান জাতি কিরি এবং কাপারে মধ্যরাতে অভিযান পরিচালনা করে।  

আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তারা ২৩৯ জন শ্রমিকের কাগজপত্র পরীক্ষা করেন।

এর মধ্যে ৫১ জনের কাছে কোনো বৈধ কাগজ পাওয়া যায়নি। যার বেশিরভাগই বাংলাদেশি বলে জানান মুস্তাফার।  

তিনি বলেন, সেখানকার আসবাবপত্র এবং প্লাস্টিক ম্যানুফেকচারিং ফ্যাক্টরিগুলোতে অভিযান চালানো হয়। আশ্চর্যজনক হচ্ছে ডরমিটরিগুলোতে পরিস্থিতি ছিল শান্ত। শ্রমিকরা নিশ্চিন্ত মনেই ছিলেন একসঙ্গে। মায়ানমারের একজন নারী শ্রমিক জানান, নিবন্ধনের মেয়াদের শেষ সর্ম্পকে তিনি জানতেন না।  

সেই নারী বলেছেন, আমাদের নিয়োগকর্তা সবার কার্ড প্রস্তুতির জন্য কাজ করছেন। তবে এখনো সবাই পাননি। তিনি আমাদের এ বিষয়ে চিন্তা করতে মানা করেছেন।

শুক্রবারই মুস্তাফার কঠোর ভাষায় জানিয়েছেন, এ নিবন্ধনের মেয়াদ আর বাড়ানো হবে না।  

তিনি বলেন, যারা ভেবেছেন আবারো মেয়াদ বাড়ানো হবে, তাদের বলছি আর কোনো সুযোগ নেই। আমরা এখন কঠিন সিদ্ধান্তে যাবো। এটা হয়তো মায়া-মমতাহীন মনে হবে, তবে আমাদের দেশের লাভ এবং সার্বভৌমত্বকে গুরুত্ব দিতে হবে।

অনুমোদনহীন বিদেশি শ্রমিকদের ধরতে প্রতিদিনই অভিযান চলবে। আমাদের দেশকে অবৈধ শ্রমিকমুক্ত করতে হলে এটা করতেই হবে।  

শুক্রবার (৩০ জুন) অনলাইনে ই-কার্ড নিবন্ধনের মেয়াদ শেষ হয়।  

মুস্তাফার আরো বলেন, ইমিগ্রেশন বিভাগ এর আগে নিয়োগকর্তা এবং বিদেশি শ্রমিকদের এ বিষয়ে সচেতন করতে বেশ কিছু কর্মসূচিও পালন করেছে। বিদেশি দূতাবাসগুলোকেও এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হয় এবং আলোচনা করা হয়।  

চলতি বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ই-কার্ড নিবন্ধন শুরু হয়। এক বছরের জন্য অবৈধ বিদেশি শ্রমিকদের এ নিবন্ধন করা হয়। এ কার্ডের মেয়াদ আগামী বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত থাকবে।

অবৈধ অভিবাসীবিরোধী অভিযানে বহু বাংলাদেশি আটক

বাংলাদেশ সময়: ১০৫০ ঘণ্টা, জুলাই ০১, ২০১৭
এমএন/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa