ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ চৈত্র ১৪৩০, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০২ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

ক্ষতি সামান্য-হ্যাকাররা টাকাও দাবি করেনি: বিমান প্রতিমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৫৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৬, ২০২৩
ক্ষতি সামান্য-হ্যাকাররা টাকাও দাবি করেনি: বিমান প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা: কিছুদিন আগে বিমানের ওয়েবসাইট হ্যাক ও কর্তৃপক্ষের কাছে ৫২ কোটি টাকা (৫০ লাখ ডলার) দাবির যে খবর রটে, সেটি সত্য নয় বলে মন্তব্য করেছেন বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী। তিনি বলেন, সামান্য ক্ষতি হয়েছে।

তেমন ক্ষতি করতে পারেনি। অ্যাটাক হয়েছে এটাই একটা ক্ষতি।

রাজধানীর একটি হোটেলে ‘মুজিবের বাংলাদেশ’ স্মারক গ্রন্থের প্রকাশনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বিমান প্রতিমন্ত্রী বলেন, টাকা দাবি করার মতো তথ্য আমাদের কাছে নেই। তারা তেমন কোনো তথ্যও নিতে পারেনি। তারা (হ্যাকার) ফায়ার ওয়ালের মধ্যে ঢুকতে পারেনি।

হ্যাকারদের থেকে সাইট উদ্ধারে কি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যে যে ব্যবস্থা নেওয়া দরকার নেওয়া হয়েছে। জিডি করা হয়েছে। এ নিয়ে তদন্ত হচ্ছে।

এ বিষয়ে বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শফিউল আজিম বলেন, আমাদের নলেজে এলে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছি। আইনুযায়ী ডিজিটাল সিকিউরিটি বিভাগকে জানিয়েছি, তাদের টিম পরিদর্শন করেছে। আইসিটি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রণালয়ের সাথে সমন্বিতভাবে আমরা কাজ করবো।

তিনি আরও বলেন, আমাদের অপারেশনে সমস্যা হয়নি, আজকেও আমাদের কাজ চলছে। আমাদের বড় ধরনের ক্ষতি হয়নি। আইসিটি মন্ত্রণালয় থেকে এ ব্যাপারে তেমন সতর্ক করা হয়নি বলেও উল্লেখ করেন শফিউল আজিম।

হ্যাকিংয়ে বিমানের ব্যর্থতার বিষয়ে এমডি বলেন, কীভাবে এ ধরনের ঘটনা ঠেকান যায় সেটা নিয়ে কার্যক্রম চলমান। গাফিলতি যদি থেকে থাকে তাহলে কমিয়ে আনা হবে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের নান্দনিক সৌন্দর্য বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে ট্যুরিজম মাস্টারপ্ল্যান শেষ পর্যায়ে বলে জানান বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী। মাহবুব আলী এ ব্যাপারে বলেন, প্ল্যান চূড়ান্ত হলে বাংলাদেশ আরও সামনের দিকে এগিয়ে যাবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে ‘মুজিবস বাংলাদেশ’ ব্রান্ডিংয়ের মাধ্যমে দেশের ট্যুরিজমকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে।

বিমান প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের অনেক দেশ স্বাধীন হয়েছে। কিন্তু আফ্রিকাসহ অনেক দেশে কেন্দ্রীয় ব্যাংক নেই। বঙ্গবন্ধু এদেশে কেন্দ্রীয় ব্যাংক স্থাপন করেছেন। দেশ স্বাধীনের একবছরের মধ্য সুন্দর সংবিধান উপহার দিয়েছেন। সংবিধানে বঙ্গবন্ধু সেক্যুলারিজম এনেছেন। তখন তিনি বলেছিলেন, আজীবন আমি ধর্মনিরপেক্ষতার জন্য সংগ্রাম করেছি।

পরে বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী নিয়ে স্মারক গ্রন্থের উদ্বোধনী আয়োজনে তার জীবনকর্ম নিয়ে আলোচনা করা হয়।

বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোকাম্মেল হোসেনের সভাপতিত্বে মুখ্য আলোচক হিসেবে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সাবেক মুখ্যসচিব কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী। আলোচক হিসেবে বক্তব্য দেন জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০০ ঘণ্টা, মার্চ ২৬, ২০২৩
এনবি/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।