ঢাকা, শুক্রবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৯, ১৯ আগস্ট ২০২২, ২০ মহররম ১৪৪৪

জাতীয়

গাজীপুরে ১১টি অবৈধ ইটভাটা গুঁড়িয়ে দিলো পরিবেশ অধিদপ্তর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০২০
গাজীপুরে ১১টি অবৈধ ইটভাটা গুঁড়িয়ে দিলো পরিবেশ অধিদপ্তর গাজীপুরে ১১টি অবৈধ ইটভাটা গুঁড়িয়ে দিলো পরিবেশ অধিদপ্তর। ছবি: বাংলানিউজ

গাজীপুর: গাজীপুরে ১১টি অবৈধ ইটভাটা ভেঙে দিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে ওই ১১টি ইটভাটা মালিককে ছয় লাখ টাকা করে মোট ৬৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) দিনব্যাপী পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত এ অভিযান পরিচালনা করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজীদ আহমেদ।  

পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, গাজীপুর সদর উপজেলার পাইনশাইল ও ভাওয়াল মির্জাপুর এলাকায় অবৈধ ইটভাটা বিরোধী ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে পরিবেশ অধিদপ্তর। এসময় ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় ১১টি অবৈধ ইটভাটার আগুন নিভিয়ে ভেকু দিয়ে ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।  

ভেঙে দেওয়া ইটভাটা গুলো হল- আব্দুল আজিজের মেসার্স কাঁচা রস ব্রিকস (কে আর বি), জহিরুল হক পলাশের মেসার্স স্টার ব্রিকস, শরিফুল আলমের ডগরী ব্রিকস (এম এ কে-২), আব্দুর রহমান সরকারের মেসার্স আদিব ব্রিকস (এ আর সি), বশির আহমেদের বাংলাদেশ ন্যাশনাল ব্রিকস (বি এন বি), সোহান আহমেদ রিপনের মেসার্স হাজী ব্রিকস (এম এইচ বি), নাসিম সিকদারের মেসার্স সোহাগ-বাপ্পি ব্রিকস (এস বি সি) এবং রফিকুল ইসলামের এন আর ব্রিকস (এন আর বি)। এছাড়া ভাওয়াল মির্জাপুর এলাকায় আমীন উদ্দিনের সুইটি ব্রিকস (এস আর বি), আয়নাল হকের আঁখি ব্রিকস (এ আর বি) এবং ফজলুল হক মুসুল্লির ন্যাশনাল ব্রিকস।

এসময় পরিবেশ অধিদপ্তরের গাজীপুর জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আব্দুস সালাম সরকার, সহকারী পরিচালক আশরাফ উদ্দিন ও মমিন ভূঁইয়া, পরিদর্শক দিলরুবা আক্তার, গাজীপুর র‌্যাব-১, জেলা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০২০
আরএস/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa