ঢাকা, শনিবার, ৩০ চৈত্র ১৪৩০, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

নিউইয়র্ক

নিউইয়র্কে ‘হাজারো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ গাইবেন প্রবাসীরা

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৪৬ ঘণ্টা, আগস্ট ২৩, ২০১৫
নিউইয়র্কে ‘হাজারো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ গাইবেন প্রবাসীরা ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: দেশের সীমানা পেরিয়ে এবার প্রবাসে ‘হাজারো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ গাইবেন বাংলাদেশি প্রবাসীরা।

বিদেশের মাটিতে ‘হাজারো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ গেয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়ার এ উদ্যোগ নিয়েছে নর্থ আমেরিকার প্রথম বাংলাদেশি মালিকানাধীন ক্যাবল অপরারেটর ‘টোটাল ক্যাবল’।



নিউইয়র্কের কুইন্স, ব্রুকলিন ও ব্রঙ্কসে পৃথক দিনে একসঙ্গে কয়েক হাজার বাংলাদেশি সমবেত কণ্ঠে গাইবেন জাতীয় সঙ্গীত ‘আমার সোনার বাংলা’।

আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর ব্রঙ্কসের পার্কচেস্টারে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। কুইন্স ও ব্রুকলিনের তারিখ এখনও নির্ধারিত হয়নি। এ উপলক্ষে দিনব্যাপী পথমেলার আদলে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ মেলা।

শুক্রবার (২১ আগস্ট) নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ উদ্যোগের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন একুশে পদকপ্রাপ্ত ও স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের প্রখ্যাত লোকশিল্পী রথীন্দ্রনাথ রায়।

এ অনুষ্ঠানের যৌথ আয়োজক ব্রঙ্কস ভিত্তিক মূলধারার সংগঠন বাংলাদেশি আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিল ও ব্রুকলিনভিত্তিক বাংলাদেশি আমেরিকান ফ্রেন্ডশিপ সোসাইটি।

অনুষ্ঠানে শিল্পী রথীন্দ্রনাথ রায় ছাড়াও বক্তব্য রাখেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী শহীদ হাসান, টোটাল ক্যাবল ও নিউইয়র্কের বাংলা টিভি চ্যানেল টিবিএন টোয়ান্টিফোরের সিইও আহমদুল বারভূঁইয়া পুলক, বাংলাদেশি আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ও কমিউনিটি বোর্ড-৯ এর সদস্য আইনজীবী মোহাম্মদ এন. মজুমদার, বাংলাদেশি আমেরিকান ফ্রেন্ডশিপ সোসাইটির সেক্রেটারি মাকসুদুল হক চৌধুরী, টোটাল ক্যাবলের চিফ ইনফরমেশন অফিসার রনি আহমেদ, মামুন টিউটোরিয়ালের কর্ণধার অধ্যাপক শেখ আল মামুন এবং সঙ্গীতশিল্পী শামীম সিদ্দিকী।

সংবাদ সম্মেলনের সঞ্চালক ছিলেন টোটাল ক্যাবল ও টিবিএন টোয়ান্টিফোরের পরামর্শক এবং টিভি সাংবাদিক ও উপস্থাপক হাসানুজ্জামান সাকী।

আহমদুল বারভূঁইয়া পুলক বলেন, প্রবাসে প্রায় সব কমিউনিটি তাদের মাতৃভাষায় কথা বলে। কিন্তু আমরা বাংলাদেশিরা এ ব্যাপারে পিছিয়ে পড়ছি। প্রবাসে নতুন প্রজন্মের মধ্যে বাংলা ভাষাকে বাঁচিয়ে রাখতে আমরা সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এ উদ্যোগ নিয়েছি।

তিনি বলেন, টোটাল ক্যাবল প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে ‘আমরা বাংলায় কথা বলি’ স্লোগান নিয়ে পথ চলছে। এ স্লোগান আমরা প্রবাসে সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে চাই। প্রবাসে নিজ দেশের জাতীয় সঙ্গীত একসঙ্গে হাজারো কণ্ঠে এর আগে কোনো জাতি গেয়েছে বলে জানা নেই। এ কারণেই এটি বিশ্বরেকর্ড গড়বে বলে আমরা আশাবাদী।

আয়োজকরা জানান, হাজারো কণ্ঠে সোনার বাংলা গাওয়ার এ উদ্যোগের নেতৃত্ব দেবেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী রথীন্দ্রনাথ রায় ও শহীদ হাসান। তাদের সঙ্গে নিউইয়র্কের শতাধিক শিল্পী অংশ নেবেন। ব্রঙ্কস ও কুইন্সে প্রায় ১০ হাজার এবং ব্রুকলিনে ২০ হাজারেরও বেশি প্রবাসী বাংলাদেশের জাতীয় সংগীতে কণ্ঠ মেলাবেন বলে আশা করছেন তারা।

অনুষ্ঠানে জাতীয় সঙ্গীতের পাশাপাশি অমর একুশের কালজয়ী ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি ও ‘ওরা আমার মুখের ভাষা কাইরা নিতে চায়’ গান দুটিও গাওয়া হবে। পরবর্তীতে নর্থ আমেরিকার বিভিন্ন শহরে এ আয়োজনটি করার ঘোষণা দেন আয়োজকরা।

সংবাদ সম্মেলন শেষে রথীন্দ্রনাথ রায়ের নেতৃত্বে সব সাংবাদিক, সংগীতশিল্পী, সংস্কৃতিকর্মীরা সমবেত কণ্ঠে ‘আমার সোনার বাংলা’ গেয়ে শোনান।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৬ ঘণ্টা, আগস্ট ২৩, ২০১৫
এসএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

নিউইয়র্ক এর সর্বশেষ