ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০, ০১ জুন ২০২৩, ১২ জিলকদ ১৪৪৪

রাজনীতি

তারেক রহমান কোনো নেতা নন: হানিফ

জাবি করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫০ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২৩
তারেক রহমান কোনো নেতা নন: হানিফ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়: আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, তারেক রহমান কোনো রাজনৈতিক নেতা নন। উনি হাওয়া ভবন বানিয়ে দেশে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিলেন।

বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) সন্ধ্যা ৬টায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ ‘সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আরাধ্য বাংলাদেশ ও তার সুযোগ্য কন্যার নেতৃত্বে স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথরেখা’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপির সময়ে বাংলাদেশ পাঁচবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তারেক জিয়ার ভাবনা হলো ক্ষমতায় এলে মুজিব আদর্শের মানুষেদের হত্যা করে সারাজীবন রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকা, যা পূর্বে আমরা দেখেছি। তিনি লন্ডনে বসে স্লোগান দিচ্ছেন টেক ব্যাক বাংলাদেশ। এসব কখনো একজন রাজনৈতিক নেতার বৈশিষ্ট্য হতে পারে না।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে আ.লীগের এ জ্যেষ্ঠ নেতা বলেন, বিএনপি কখনও মুক্তিযুদ্ধের দল ছিল না। জিয়া কখনও মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন না। জিয়া হয়তো ঘটনাচক্রে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিতে বাধ্য হয়েছিলেন আদর্শিকভাবে তিনি কখনও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করেনি, ধারণও করেনি। জিয়া যদি সত্যি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি হতেন তাহলে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর ইনডেমনিটি আইন করে খুনিদের রক্ষা করতেন না।

আগামী জাতীয় নির্বাচন নিয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে মন্তব্য করে হানিফ বলেন, ষড়যন্ত্র হবে এটাও আমরা জানি৷ ষড়যন্ত্র কীভাবে মোকাবিলা করে এগিয়ে যেতে হয় সেটা আওয়ামী লীগ জানে। জননেত্রী শেখ হাসিনা এসব ষড়যন্ত্রের পরোয়া করে না।

তিনি আরও বলেন, আজ যারা আমাদের নির্বাচন নিয়ে কথা বলছেন সেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও পরজিত দল তাদের নির্বাচন নিয়ে প্রশ্নবিদ্ধ কথা বলছেন। আমরা চাই আগামী সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য হোক। আমরা আবারও জনগণের সমর্থন নিয়ে রাষ্ট্র ক্ষমতায় এসে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাব৷ পশ্চিমা প্রহরা যতই লাফঝাঁপ করুক না কেন যতদিন শেখ হাসিনা স্বয়ংসম্পূর্ণ আছেন, ততোদিন কেউ তাকে ক্ষমতা থেকে সরাতে পারবে না।  

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ্য করে হানিফ বলেন, কয়েকদিন আগে তিনি বললেন এমন বাংলাদেশ আমরা চাইনি। তাহলে কোন বাংলাদেশ চেয়েছিলেন? আপনারা তো বাংলাদেশই চান নাই। আপনার বাবা রাজাকার ছিল, এটা সবাই জানে।  

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো: নুরুল আলমের পৃষ্ঠপোষকতায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. এ এ মামুন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. নুরুল আলম বলেন, বঙ্গবন্ধু জন্ম না হলে আমরা আজ এখানে দাঁড়িয়ে কথা বলতে পারতাম না। বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এক ও অভিন্ন। বাংলাদেশ বললে বঙ্গবন্ধুর নাম চলে আসে, আর বঙ্গবন্ধুর নাম বললে বাংলাদেশ চলে আসে। তাকে বহুবার মারার চেষ্টা করা হয়েছিল৷ কিন্তু মহান আল্লাহ তাকে রক্ষা করেন। ফলে আমরা পেয়েছি আমাদের স্বাধীনতা।

আলোচনা সভায় পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আলমগীর কবিরের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য  (প্রশাসন) অধ্যাপক শেখ মো. মনজুরুল হক, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক রাশেদা আখতার, বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদের সদস্য সচিব অধ্যাপক বশির আহমেদ প্রমুখ।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৫ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২৩
এসএএইচ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa