ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

রাজনীতি

সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের স্বাধীনতা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২১
সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের স্বাধীনতা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি ছবি: শাকিল আহমেদ

ঢাকা: গণতন্ত্রের বিকাশের জন্য দেশের সব সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের স্বাধীনতা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে গণতান্ত্রিক বাম ঐক্য।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে এ দাবি জানায় রাজনৈতিক এ জোট।

গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের সমন্বয়ক ও বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের (এম-এল) সাধারণ সম্পাদক হারুন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সাধারণ সম্পাদক সামছুল আলম, সোস্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ, পিডিবির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশীদ খান, সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলী হোসেন ও সাবেক ছাত্রনেতা বিধান দাস প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর পরও দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হয় নাই। কারণ দেশের সংবিধানে প্রধানমন্ত্রীকে একক ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। এই ক্ষমতার বলে প্রধানমন্ত্রী সর্বময় একক ক্ষমতা পেয়েছেন। এই অবস্থা থেকে মুক্তির জন্য সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে পূর্ণ স্বাধীনতা দিতে হবে।

নেতারা বলেন, দুর্নীতি দমন কমিশনকে আইন দিয়ে স্বাধীন করে দিতে হবে। নির্বাচন কমিশনকে স্বাধীন করে দিতে হবে। বিচার বিভাগকে আইন মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণ থেকে মুক্ত করে দিতে হবে। জেলা বিচারপতিদের নিয়ন্ত্রণ হাইকোর্টের অধীনে ন্যস্ত করতে হবে। বিচারপতিদের নিয়োগ দেওয়ার জন্য সুপ্রিম কোর্টের নিয়ন্ত্রণে একটি নিয়োগ কমিটি গড়ে তুলতে হবে। জেলা আদালত থেকে উচ্চ আদালত পর্যন্ত সকল বিচারপতিদের নিয়োগের জন্য সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের সমন্বয়ে নিয়োগ কমিটি করে নিয়োগ দিতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২১
ডিএন/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa