ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ মাঘ ১৪২৯, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮ রজব ১৪৪৪

প্রবাসে বাংলাদেশ

রাজাকারদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা তৈরির তাগিদ

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২১১ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০১৯
রাজাকারদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা তৈরির তাগিদ গোলটেবিল বৈঠকে আলোচকরা। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার রাজাকারদের তালিকা তৈরির যে উদ্যোগ নিয়েছে এতে যেন কেউ প্রভাব বিস্তার করতে না পারে, সেজন্য নজরদারির আহ্বান জানিয়েছেন বক্তারা।

সোমবার (৮ জুলাই) লন্ডনে প্রজন্ম ’৭১ যুক্তরাজ্য শাখা আয়োজিত এক গোলটেবিল আলোচনায় বক্তারা এ আহ্বান জানান।

পূর্ব লন্ডনের মাইক্রো বিজনেস সেন্টারে আয়োজিত আলোচনায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে স্বাধীনতাবিরোধী পরিবারের সন্তানদের অনেকেই বর্তমানে খোলস পাল্টে রাজনৈতিক ফায়দা লুটে চলেছে।

বাংলাদেশকে স্বাধীনতার চেতনায় এগিয়ে নিতে হলে এসব সুবিধাভোগী স্বাধীনতাবিরোধী চক্রকে খুঁজে বের করে প্রতিহত করা সময়ের দাবি।

বক্তারা বলেন, দেরিতে হলেও রাজাকারদের তালিকা তৈরির এ উদ্যোগ প্রশংসনীয়। রাজাকার এবং রাজাকারের বংশধর যারা প্রভাবশালী হয়ে উঠেছে তারা যেন এ তালিকা প্রণয়নে কোনো প্রভাব বিস্তার করতে না পারে সেজন্য দরকার সরকারের কঠোর নজরদারি।

সভায় বক্তারা ৩০ লাখ শহীদের তালিকা তৈরি, গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ে ব্যবস্থা নেওয়া, গণহত্যার সঙ্গে জড়িত পাকিস্তানি বাহিনীর সদস্যদের আন্তর্জাতিক আদালতে বিচারের মুখোমুখি করা, যারা পাকিস্তানি বাহিনীকে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে সহযোগিতা করেছে তাদের রাজাকার হিসেবে তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা, শহীদ পরিবার কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন করে শহীদ পরিবারগুলোকে রাষ্ট্রীয়ভাবে দেখভালের ব্যবস্থা নেওয়া, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস রক্ষা, মুক্তিযুদ্ধের সময়কার স্থাপনা-স্থান ইত্যাদি সরকারিভাবে রক্ষণাবেক্ষণের জন্য পর্যাপ্ত বাজেট প্রণয়ন, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ত্যাগ, তাদের জীবনের প্রকৃত চিত্র তুলে ধরা এবং সব শহীদের কবর সরকারিভাবে সংরক্ষণের দাবি জানান।

নতুন প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে পাঠ্যপুস্তকে পর্যাপ্ত তথ্য যোগ করার পাশাপাশি ‘জয় বাংলা’ স্লোগান সংবিধানে অন্তর্ভুক্ত করার দাবিও জানান বক্তারা।

বক্তারা আশা করেন, স্বাধীনতার প্রকৃত চেতনায় একটি উন্নত-সমৃদ্ধ, শহীদদের স্বপ্নের দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে গড়ে তুলবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের আহ্বায়ক মোহাম্মদ বাবুল হোসেন। সভা পরিচালনা করেন এ কে এম আবদুল্লাহ।

গোলটেবিল আলোচনা সভায় অংশ নেন সাবেক সংসদ সদস্য সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ, মুক্তিযোদ্ধা ও রাজনীতিবিদ দেওয়ান গৌস সুলতান, যুক্তরাজ্য মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার আবুল কাশেম খান, সাংবাদিক ও গবেষক মুক্তিযোদ্ধা ইসহাক কাজল, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা আহবাব চৌধুরী, আমির খান, আবদুল হাদি, ফয়জুর রহমান খান, আশরাফ উদ্দিন মুকুল, সৈয়দ গোলাম আলী, দেওয়ান কামাল, আতিকুর রহমান।

আরও উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ জালাল উদ্দিন, সহ-সভাপতি হরমুজ আলী, যুগ্ম-সম্পাদক নইমুদ্দিন রিয়াজ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহাদ চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক শাহ শামীম আহমদ, আইন সম্পাদক এম এ করিম, ধর্ম সম্পাদক সুরুক মিয়া, যুক্তরাজ্য ন্যাপের সভাপতি আবদুল আজিজ, বাসদের আহবায়ক গয়াসুর রহমান গয়াস, জাসদ জেএসডি’র সভাপতি সমির উদ্দিন, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য আনসার আহমদ উল্লাহ, সর্ব ইউরোপীয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, সদস্য ড. রোয়াব উদ্দিন, ডা. আবদুল কাদির, হেলাল উদ্দিন আহমদ, লন্ডন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ এহসান, সাধারণ সম্পাদক আলতাফুর রহমান মুজাহিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম চৌধুরী, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক নেতা তৌহিদুল ইসলাম বাহার, যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সায়েদ আহমদ সাদ, সহ-সভাপতি আহবাব হোসেন, যুক্তরাজ্য বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদের মাহমুদুর রহমান, যুক্তরাজ্য যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাবুল খান, প্রজন্ম ’৭১-এর মেহেদি হাসান, মজুমদার আলী মিয়া, সৈয়দ গোলাপ আলী, হুমায়ুন কবির, আবুল হোসেন ওদুদ, আমিনুল হক জিল্লু, সাইদুর রহমান, যুক্তরাজ্য ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সরওয়ার কবির, কবি নজরুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সাংবাদিক সুমেল প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১১ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০১৯
এইচএডি/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa