ঢাকা, বুধবার, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

প্রবাসে বাংলাদেশ

ওরা ১১ জন

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০১২
ওরা ১১ জন

ঢাকা: নিউ ইয়র্কে বসে বাঙালি সংস্কৃতিকে প্রবাসীদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে কাজ করছেন ১১ নারী। তারা ২০১০ সালের বিজয়ের মাসে বাঙালি জাতির স্বাধীনতা ও মুক্তির চেতনাকে সামনে রেখে ব্রঙ্কস বাংলাদেশ উইমেনস অ্যাসোসিয়েশন (বিবিডব্লিউএ) নামে একটি সংগঠন গড়ে তুলেন।



সেই থেকে সংগঠনটি প্রবাসীদের মাঝে বাঙালি চেতনাকে জাগরত রাখতে বিভিন্নভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

বিবিডব্লিউএ এর সভানেত্রী ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, আমরা অতি সাধারণ ১১ জন নারী একত্রে স্বপ্ন দেখি কিছু করার। তাই গত এক বছরে বিবিডব্লিউএ এর আয়োজনে পালন করা হয়েছে মাতৃভাষা দিবস, স্বাধীনতা দিবস, ঈদ উৎসব, বাবা দিবস, পহেলা বৈশাখ ও বিশ্ব নারী দিবস।

ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, উইমেন্স অ্যাসোসিয়েসনের মূল লক্ষ্য ছিল- প্রবাসে নতুন প্রজন্মের কাছে বাঙালি সংস্কৃতিকে পরিচয় করিয়ে দেওয়া। সেই প্রতিশ্রুতিকে সামনে রেখে বিবিডব্লিউএ শুরু করেছে বাংলাদেশি কালচার স্কুল বাফা। সেখানে প্রতি শনিবার সঙ্গীত, নৃত্য ও ফ্রি বাংলা শেখানো হয়। সবার সহযোগিতা পেলে এ স্কুলকে একটি পরিপূর্ণ বাংলাদেশি স্কুল হিসেবে গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখে বিবিডব্লিউএ।

গত ২৫ ডিসেম্বর অ্যাসোসিয়েশনের প্রথম বছর পূর্তি উপলক্ষে আলোচনাসভা ও নৈশ ভোজের অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। বিবিডব্লিউএ এর সেক্রেটারি শিউলি হকের বাসভবনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বিবিডব্লিউএ সংগঠনটি বিভিন্ন সময় বাংলাদেশ থেকে আগত অভিবাসীদের পাশে দাঁড়িয়েছে। ভবিষ্যতে বিদেশি কম্যুনিটির সঙ্গে এক হয়ে বিভিন্ন কল্যাণমূলক কাজ করারও আগ্রহ রয়েছে বলে জানান ফরিদা ইয়াসমিন।

সংগঠনের পক্ষ থেকে সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, কালের আবর্তে হারিয়ে যাওয়ার পথে আরও একটি বছর। আগামী বছরে সবাই আমাদের সঙ্গে থাকবেন এমনটাই আশা করি আমরা।

বাঙালির বিজয় অর্জনের ৪০তম বার্ষিকী উদযাপিত হলো এ বছরের ১৬ ডিসেম্বর। আর সেই রক্তমাখা বিজয় অর্জনে যারা জীবন দিয়েছেন সেই শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে অনুষ্ঠানের শুরুতেই বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক সম্পাদক হারুনা আক্তার। আলোচনা পর্বে আরও অংশ নেন কার্যকরী সদস্য নার্গিস বানু, শিউলি হক, শামীম আরা বেগম, মাকসুদা আহমেদ, রেক্সোনা মজুমদার, ফারহানা ইয়াসমিন, নুসরাত আম্বিয়া, মাহমুদা হাসান ও মন্নুজান রহমান।

আলোচনা সভায় উপদেশমূলক বক্তব্য রাখেন অ্যাডভোকেট হেমায়েত উদ্দিন তালুকদারসহ বেশ কয়েকজন সম্মানিত ব্যক্তি। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- কৃষিবিদ আব্দুস সবুর, মোহাম্মেদ এন মুজুমদার (মাস্টার অফ ল), বীমা কর্মকর্তা মো. নাসিরুল্লাহ, ব্যবসায়ী আহসানুল হক সানি, হাসান মাহমুদ, মামুন আহমেদ, নূরুল চৌধুরী, মো. জুনাইদ ও আবুল বাসার।  

অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ছিল নৈশ ভোজ এবং দ্বিতীয় পর্বে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনাসভা।

বাংলাদেশ সময়: ১০২১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০১২

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa