ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

প্রবাসে বাংলাদেশ

এডিনবরায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপিত

প্রবাস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫১৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২২
এডিনবরায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপিত এডিনবরা সিটি চেম্বার চত্বরে স্থাপিত অস্থায়ী শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানানো হয়

স্কটিশ মূলধারার জনগণের অংশগ্রহণে এডিনবরায় উদযাপিত হয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।

সোমবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় এডিনবরা সিটি চেম্বার চত্বরে স্থাপিত অস্থায়ী শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়।

ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শহীদ মিনারে সর্বপ্রথম পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন সিটি অব এডিনবরা কাউন্সিলের লর্ড প্রভোস্ট ফ্রাঙ্ক রস। এরপর একে একে স্থানীয় কমিউনিটি সংঘঠনের নেতারা শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ইন্টারন্যাশন্যাল মাদার ল্যাঙ্গুয়েজ গ্রুপ স্কটল্যান্ডের কো-অর্ডিনেটর ও বাংলাস্কট সম্পাদক মিজান রহমানের উপস্থাপনায় সিটি চেম্বারের ইউরোপিয়ান রুমে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।



এতে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন লর্ড প্রভোস্ট কাউন্সিলর ফ্রাঙ্ক রস। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্কটিশ পার্লামেন্টের শ্যাডো কালচারাল মিনিস্টার লোদিয়ান রিজিওনের এমএসপি ফয়ছল চৌধুরী এমবিই। আরও বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ড. ওয়ালি তছর উদ্দনি এমবিই, বাংলাদেশ ক্যাটারিং অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট শাহনুর চৌধুরী, কমউনিটি কাউন্সিলর আ স ম মিরন এবং কমিউনিটি কাউন্সিলর ইশরাত জাহান প্রমুখ।

থিছল শাপলা কালচ্যারাল গ্রুপের প্রেসিডেন্ট ফখরুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সাংস্কৃতিক পর্বে ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো’ কবিতাটির ইংরেজি অনুবাদের আবৃত্তি করে শিশুশিল্পী অরুন্ধতী প্রীতি, স্বরচিত কবিতা আবৃত্তি করেন সাংবাদকি নাজমুল আহসান। অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশন করেন তন্বী ভট্টাচার্য্য। ভাষা দিবসের এবারের অনুষ্ঠানে প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল, ভিন্ন ভিন্ন ভাষা শিক্ষার ক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার: চ্যালেঞ্জ ও সুযোগসমূহ।

লর্ড প্রভোস্ট বলেন, এডিনবরার স্কুলসমূহে পড়ুয়া ১২০ ভাষাভাষী শিক্ষার্থী রয়েছে। মাতৃভাষা চর্চার ক্ষেত্রে কাউন্সিল নানাভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। প্রয়োজনে ভবিষ্যতে আরও সহায়তা দেবে।

স্কটিশ পার্লামেন্টের প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এমএসপি ফয়ছল চৌধুরী বলেন, এডিনবরা সিটি কাউন্সিলের সহযোগিতায় এডিনবরায় একটি স্থায়ী শহীদ মিনার প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। অচিরেই তা বাস্তবায়িত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।



বাংলাস্কট সম্পাদক মিজান রহমান বলেন, মাতৃভাষা দিবস স্কটল্যান্ডে বসবাসরত বিভিন্ন ভাষাভাষী জনগোষ্ঠীর সঙ্গে যোগসূত্র স্থাপনের এক অপূর্ব সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে। অন্যদের সঙ্গে যৌথভাবে নানা উদ্যোগ নেওয়ার মাধ্যমে স্কটিশ মূলধারায় বাঙালির কৃষ্টি, ভাষার ইতিহাস ও সংস্কৃতি সম্প্রসারিত হবে। এ ব্যাপারে স্থানীয় বাংলাভাষী কমিউনিটিকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, এ বছর করোনাভাইরাস জনিত নানা প্রতিকূলতা থাকা সত্বেও বিশেষ ব্যবস্থায় সীমিত পরিসরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে আরও ব্যাপক পরিসরে দিবসটি উদযাপনের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

সিটি অব এডিনবরা কাউন্সিলের পৃষ্ঠপোষকতায় এডিনবরা অ্যান্ড লোদিয়ান রিজিওনাল ইকুয়ালিটি কাউন্সিলের উদ্যোগে আয়োজিত হয়েছে এবারের অনুষ্ঠান। সার্বিক সহযোগিতায় ছিল থিছল শাপলা কালচ্যারাল গ্রুপ ও বাংলা স্কট ট্রাস্ট।

২০০৮ সাল থেকে এডিনবরা কাউন্সিলের সহযোগিতায় এবং স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটি গ্রুপ ও অন্যান্যদের অংশগ্রহণে স্কটল্যান্ডের রাজধানীতে ভাষা দিবস উদযাপিত হয়ে আসছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২২
এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa