ঢাকা, শনিবার, ১৩ মাঘ ১৪২৯, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫ রজব ১৪৪৪

শেয়ারবাজার

ডিসেম্বরের মধ্যে ডিএসইর মোবাইল অ্যাপস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০১৫
ডিসেম্বরের মধ্যে ডিএসইর মোবাইল অ্যাপস ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: বিনিয়োগকারীদের পুঁজিবাজার সংক্রান্ত তথ্যপ্রাপ্তি সহজ করতে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে মোবাইল অ্যাপস চালু করবে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। ‘ডিএসই মোবাইল’ নামে অ্যাপসের মাধ্যমে পুঁজিবাজার সংক্রান্ত তথ্য পাবেন বিনিয়োগকারীরা।


 
সোমবার (২৬ অক্টোবর) রাজধানীতের মতিঝিলে অবস্থিত ডিএসইর কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) স্বপন কুমার বালা।
 
তিনি বলেন, মক ট্রেডিং’র সিডিউল ডেভলপ করা হয়েছে। এর কাঠামোও ঠিক করা হয়েছে। নভেম্বরের মাঝামাঝি থেকে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে মক ট্রেডিং শেষে ডিসেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে আমরা মোবাইল অ্যাপসটি উদ্বোধন করবো বলে আশা করছি।
 
বালা বলেন, ওয়েবসাইটে কোম্পানির যেসব তথ্য দেওয়া হয় সেগুলো আরও আপডেট করা হবে। বর্তমানে যেসব তথ্য দেওয়া হচ্ছে তা মানসম্পন্ন না। এটিকে মানসম্পন্ন করতে ওয়েবসাইটের উন্নয়ন করা হবে। যাতে বিনিয়োগকারীরা কোম্পানির অর্থিক তথ্যগুলো সহজে পেতে পারেন।
 
তিনি আরও বলেন, সাধারণ মানুষ যাতে আর্থিক প্রতিবেদনগুলো ভালোভাবে অর্জন করতে পারে সে জন্য আমরা কাজ করছি। যাতে আর্থিক প্রতিবেদন পড়ে বিনিয়োগকারীরা ঝুঁকির বিষয়গুলো জানতে পারেন।
 
এ সময় তিনি আরও বলেন, ডেরিভেটিভ মার্কেট বেশ ঝুঁকিপূর্ণ মার্কেট। এটি মার্কেটের এক্সপোজার ও পজিশনের উপর নির্ভর করে। থাইল্যান্ডে ডেরিভেটিভ মার্কেটে হিসাব খোলার আগে একটি পরিক্ষী নেওয়া হয়। পরীক্ষায় পাশ না করেলে কোন বিনিয়োগকারীকে হিসাব খুলতে দেওয়া হয় না।
 
ইটিএফ (এক্সচেঞ্জ ট্রেডেড ফান্ড) চালু করতে প্রস্তুত। আমাদের অবকাঠামো সম্পন্ন করেছি। ফান্ড ম্যানেজাররা এতে অর্থায়ন করতেও প্রস্তুত ছিলেন। কিন্তু দেরি হওয়ার কারণে তারা হতাশ। অবশ্য এর জন্য কিছু নিয়ম-নীতির বিষয় আছে। এটি নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাজ। তারপরও আমরা আশা করছি আগামী বছরের প্রথম প্রান্তিকে মধ্যে এটি সম্পন্ন হবে।
 
নাসডাকের তিনজন প্রতিনিধি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইএসি) আমন্ত্রণে বাংলাদেশে এসেছেন। তারা বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে বৈঠক করছেন এবং বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করেছেন। এর মাধ্যমে তারা বাংলাদেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।
 
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন ডিএসর পরিচালক রুহুল আমিন ও চিফ রেগুলেটরি কর্মকর্তা (সিটিও) এ কে এম জিয়া হাসান খান।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০১৫
এএসএস/এমজেএফ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa