ঢাকা, শনিবার, ২১ মাঘ ১৪২৯, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১২ রজব ১৪৪৪

শেয়ারবাজার

ডিএসইতে কমলেও সিএসইতে বেড়েছে সূচক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫১৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৩, ২০১৫
ডিএসইতে কমলেও সিএসইতে বেড়েছে সূচক

ঢাকা: লেনদেন শেষে শুরুর ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা ধরে রাখতে পারেনি দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। বড় উত্থান দিয়ে এ বাজারটিতে লেনদেন শুরু হলেও দিন শেষে সবকটি সূচকের পতন ঘটেছে।


 
তবে অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্য সূচক ধনাত্মক থেকেই লেনদেন শেষ হয়েছে। ডিএসইর মতো এ বাজারটিতে সূচকের বড় উত্থান দিয়ে লেনদেন শুরু হয়। দিন শেষে সূচকের বড় উত্থান অব্যহত না থাকলেও সিএসইতে সবকটি সূচকই বেড়েছে।
 
সোমবার (২৩ নভেম্বর) লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় কমেছে ১১ পয়েন্ট। অন্য দু’টি সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচকটি কমেছে ২ পয়েন্ট। আর ডিএসই শরীয়াহ্ সূচক কমেছে দশমিক ৯৭ পয়েন্ট।
 
এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানেরই দাম আগের দিনের তুলনায় কমেছে। দিন শেষে দর বাড়া কোম্পানির তালিকায় রয়েছে ৯৪টি। অপরদিকে দাম কমার তালিকায় আছে ১৮৬টি এবং অপরিবর্তীত আছে ৩৬টি।
 
তবে লেনদেনের শুরুতে অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানই এদিন দর বাড়ার তালিকায় ছিলো। প্রথম ঘণ্টায় লেনদেন হওয়া ১২২টি প্রতিষ্ঠানেরই স্থান হয় দাম বাড়ার তালিকায়। এর বিপরীতে দাম কমার তালিকায় ছিল ৩৩টি এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৭টি।
 
লেনদেনের শুরুতে ডিএসইতে লেনদেনের গতিও ছিল বেশ ভালো। প্রথম এক ঘণ্টায় লেনদেন ২২৭ কোটি ২৮ লাখ টাকা ছাড়িয়ে যায়। শেষ মুহুর্তে লেনদেনের এ গতি অব্যহত না থাকলেও আগের দিনের তুলনায় দেড়শ’ কোটি টাকার উপরে বেড়েছে। দিন শেষে লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫৮৬ কোটি ২৮ লাখ টাকা। যা আগের দিনের তুলনায় ১৫৫ কোটি ৬৩ লাখ টাকা বেশি।
 
এদিন ডিএসইতে লেনদেনের ভিত্তিতে (টাকায়) শীর্ষ দশ কোম্পানির তালিকায় রয়েছে- সিমটেক্স, বেক্সিমকো ফার্মা, অলেম্পিক, সাইফ পাওয়ার, ইফাদ অটোস, ফার কেমিক্যাল, ইউনাইটেড পাওয়ার, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, তিতাস গ্যাস ও স্কয়ার ফার্মা।
 
বাজার পর্যালোচনা দেখা যায়, সোমবার ডিএসইতে মূল্য সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন শুরু হয়। প্রথম ৫ মিনিটে ডিএসইএক্স সূচক আগের দিনের তুলনায় ২৩ পয়েন্ট বেড়ে যায়। বেলা ১০টা ৪০ মিনিটে বাড়ে ২৭ পয়েন্ট। ১০টা ৫০ মিনিটে বাড়ে ৩৯ পয়েন্ট।
 
সূচকের এ ঊর্ধ্বমুখীতা টানা অব্যহত থাকায় বেলা ১১টায় ডিএসইএক্স সূচক আগের দিনের তুলনায় ৫১ পয়েন্ট বেড়ে যায়। ১১টা ১০ মিনিটে বাড়ে ৫৬ পয়েন্ট। বেলা ১১টা ২০ মিনিটে বাড়ে ৫০ পয়েন্ট। বেলা সাড়ে ১১টায় বাড়ে ৩২ পয়েন্ট। দুপুর ১২টায় বাড়ে ৩৬ পয়েন্ট।
 
এরপরই নিচের দিকে নামতে থাকে সূচক। তবে দুপুর ২টা পর্যন্ত সূচক ধনাত্মকই থাকে। শেষ অধাঘণ্টার লেনদেনে ঋণাত্মক হয়ে পড়ে সূচক। দুপুর ১টায় ডিএসইএক্স সূচক বাড়ে ২৪ পয়েন্ট। দুপুর ২টায় বাড়ে ২ পয়েন্ট। আর লেনদেন শেষে এই সূচকটি আগের দিনের তুলনায় ১১ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৫৮৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে।
 
অপর শেয়ারবাজার সিএসইতেও সূচকের উত্থান দিয়েই লেনদেন শেষ হয়েছে। সিএসইক্স সূচক আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে ২৯ পয়েন্ট। অন্য সূচকগুলোর মধ্যে সিএএসপিআই বেড়েছে ৪৭ পয়েন্ট, সিএসই-৫০ সূচক ৬ পয়েন্ট, সিএসই-৩০ সূচক ২৫ পয়েন্ট ও সিএসআই ৪ পয়েন্ট বেড়েছে।
 
এ বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৪৫ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। যা আগের দিনের তুলনায় ১৪ কোটি ৮৪ লাখ টাকা বেশি। দিন শেষে লেনদেন হওয়া ১১০টি প্রতিষ্ঠানের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। অপরদিকে দাম কমেছে ১০৫টির এবং অপরিবর্তিত আছে ২৫টি।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৫১৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৩, ২০১৫
এএসএস/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa