ঢাকা, সোমবার, ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭, ০১ মার্চ ২০২১, ১৭ রজব ১৪৪২

শেয়ার

বন্ড মার্কেটকে শক্তিশালী করার আহ্বান ডিসিসিআইর

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০২১
বন্ড মার্কেটকে শক্তিশালী করার আহ্বান ডিসিসিআইর কথা বলছেন ডিসিসিআই প্রেসিডেন্ট রিজওয়ান রাহমান।

ঢাকা: দেশের অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করতে বন্ড মার্কেটকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) প্রেসিডেন্ট রিজওয়ান রাহমান।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) রাজধানীর দুপুর ১টায় মতিঝিলে ডিসিসিআই ভবনে আয়োজিত মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।



দেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে উদ্যোক্তাদের বন্ড মার্কেট থেকে টাকা তোলার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, এতে করে বন্ড মার্কেটের পাশাপাশি পুঁজিবাজার শক্তিশালী হবে।

রিজওয়ান রাহমান সমসাময়িক অর্থনীতি বিষয়ক ১১টি এজেন্ডার ওপর বিস্তারিত চিত্র তুলে ধরে বলেন, সরকার ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের ৫৪ দশমিক ১৩ শতাংশ ইতোমধ্যে বিতরণ করা হয়েছে এবং সামনের দিনগুলোতে এটি আরও দ্রুতগতিতে উদ্যোক্তাদের মধ্যে বিতরণ করা হবে।

তিনি বলেন, দেশের কুটির ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের সহায়তার লক্ষ্যে একটি বিশেষ ব্যাংক অথবা ‘এসএমই বন্ড’ প্রবর্তন করার প্রস্তাব করছি। এর মাধ্যমে কুটির, অতিক্ষুদ্র ও ক্ষুদ্র শিল্পের সার্বিক সহায়তা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

এছাড়াও দেশের এসএমই খাতের সার্বিক উন্নয়নে এসএমই নীতিমালার পরিবর্তে ‘এসএমই ডেভেলপমেন্ট অ্যাক্ট’ প্রবতর্নের প্রস্তাব করেন তিনি। এর মাধ্যমে এখাতের প্রতিবন্ধকতা তুলে ধরা সম্ভব হবে বলে তিনি মনে করেন।

তিনি বলেন, করোনার কারণে বিশ্বব্যাপী বৈদেশিক বিনিয়োগ কমেছে প্রায় ৫০ শতাংশ। বর্তমানে বাংলাদেশে বৈদেশিক বিনিয়োগ পরিস্থিতিও রাতারাতি পরিবর্তন হবে না। এমতাবস্থায় দেশের বিনিয়োগ পরিস্থিতি উন্নয়ন ও কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরির লক্ষ্যে বৈদেশিক বিনিয়োগকারীদের জন্য প্রদত্ত সুবিধা আমাদের স্থানীয় উদ্যোক্তাদেরকে প্রদানের প্রস্তাব করেন তিনি।  

তিনি আরো বলেন, আমাদের উৎপাদিত পণ্য বেশির ভাগই রপ্তানি হয় আমেরিকা ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশসমূহে, যারা করোনা মোকাবেলায় বেশ কঠিন চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এ পরিস্থিতি আরো দীর্ঘস্থায়ী হলে এ অঞ্চলের দেশসমূহ হতে আমাদের রপ্তানি পণ্যের অর্ডার কমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই আমাদের কে এশিয়া অঞ্চলের দেশসমূহের প্রতি আরো বেশি মাত্রায় নজর দিতে হবে।  

ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়াগের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা নিয়ে, কর্পোরেট করের বিদ্যমান হার কমানোর বিষয়টি বিবেচনার জন্য তিনি সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।  

সভাপতি জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে বৈদেশিক বিনিয়োগ আকর্ষণের জন্য ডিসিসিআইর পক্ষ হতে এবছর এশিয়া অঞ্চলে ‘ডিসিসিআই ইনভেস্টমেন্ট সামিট’ আয়োজনের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি এন কে এ মবিন, সহ-সভাপতি মনোয়ার হোসেনসহ পরিচালনা পর্ষদের নেতারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০২১
এসএমএকে/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa