ঢাকা, বুধবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

খেলা

ম্যান্ডেলার ছোঁয়া পেলো বিশ্বকাপ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৪৩ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০১০

জোহানেসবার্গ: যার জন্য বিশ্বকাপ আফ্রিকায় সেই বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনের অবিসংবাদিত নেতা নেলসন ম্যান্ডেলাকে সমাপনী অনুষ্ঠানে দেখার জন্য অধীর অপেক্ষায় ছিল বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ। ‘মাদিবা’ এলেন, মহিমান্বিত করলেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিশ্বকাপ বিদায় অনুষ্ঠানকে।



৯১ বছর বয়সী এই নেতা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হাজির হতে পারেননি প্রপোত্রি জেনানি ম্যান্ডেলার (১৩) মৃত্যুর কারণে। বিশ্বকাপ শুরুর আগের দিন মারা যান জেনানি। শোক কাটিয়ে উঠতে পারেননি এখনো। শেষ পর্যন্ত ফিফার দাবি এবং কোটি কোটি মানুষের আবেগকে উপেক্ষা করতে পারেননি।

খোলা গাড়িতে স্ত্রী গ্রাসা মিশেলকে নিয়ে স্টেডিয়াম প্রদক্ষিণ করেন। অভিবাদন গ্রহণ করেন উপস্থিত ৮০ হাজার দর্শকের। দর্শকরা ভুভুজেলা বাজিয়ে ও মাদিবা, মাদিবা বলে চিৎকার করে স্বাগত জানায় তাদের প্রিয় নেতাকে। ম্যান্ডেলা পরিচিত হাসি ও হাত নাড়িয়ে অভিবাদনের জবাব দেন। কয়েক মিনিট অবস্থান করে স্টেডিয়াম থেকে বাসার উদ্দেশ্যে বেরিয়ে যান।

স্পেন ও নেদারল্যান্ডসের মধ্যকার শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচটি মাদিবা বাসায় বসেই উপভোগ করবেন বলে জানিয়েছে তাঁর পরিবার সূত্র।

ম্যান্ডেলার প্রোপোত্র এনকোসি জউইলিভেলিলে ম্যান্ডেলা বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানান, ফিফার চাপের মুখে অনুষ্ঠানের মাত্র দুই ঘন্টা আগে সেখানে উপস্থিত বিশ্বের ১৭টি দেশের রাষ্ট্র প্রধান, রাজন্যবর্গ ও হলিউড তারকাদের সঙ্গে দেখা করার সম্মতি দেন তিনি।

যদিও মাদিবার কাছে ফিফার দাবি ছিল, বিশ্বকাপ জয়ী দলকে নিজ হাতেই ট্রফি তুলে দিতে হবে তাঁকে। তবে ৯২ বছরে পা রাখতে যাওয়া এই নেতার পক্ষে সেটা কঠিন ছিল বলে জানান ম্যান্ডেলার প্রোপোত্র।

গত বৃহস্পতিবার ফিফা সভাপতি সেপ ব্লাটার ম্যান্ডেলাকে ফাইনালে দেখার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। তিনি বলেন,‘‘২০০৪ সালে জুরিখে তাঁর হাতেই (ম্যান্ডেলা) বিশ্বকাপ ট্রফি তুলে দেওয়া হয়েছিলো। তিনি ফাইনালে থাকলে সেটি হবে তাঁর নিজের, ফুটবলের ও গোটা আফ্রিকার জন্য অনন্য সাধারণ মুহূর্ত। ’’

ম্যান্ডেলাকে দেখেই ফিফা বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব দিয়েছিলো দক্ষিণ আফ্রিকাকে। অনেকটা ঝুকি নিয়েছিলেন মাদিবা। আইনশৃঙ্খলার অবনতিসহ বেশি কিছু সমস্যাকে সামনে এনে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে বিশ্বকাপ সরিয়ে নেওয়ারও দাবি ওঠেছিলো। তখনো নেতার আর্বিভাবে চুপ হয়ে গেছে পুরো দুনিয়া।

সেই নেতা বিশ্বকাপ সমাপনীতে না থাকলে অপূর্ণই থেকে যেতো পুরো আয়োজন।     

বাংলাদেশ সময়: ০১৩৭ ঘন্টা, জুলাই ১২, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa