ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

টেনিস

করোনা জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য মানবসৃষ্ট ভাইরাস: আমির খান

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ৭, ২০২০
করোনা জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য মানবসৃষ্ট ভাইরাস: আমির খান বক্সার আমির খান/ছবি: সংগ্রহীত

মহামারি করোনা ভাইরাসে নাকাল পুরো বিশ্ব। এই ভয়ানক ভাইরাসের থাবায় প্রতিদিনই প্রাণ হারাচ্ছে অসংখ্য মানুষ। কিন্তু এখন পর্যন্ত এর উৎপত্তি কীভাবে হয়েছে তা নিশ্চিত হতে পারেননি গবেষকরা। যদিও ধারণা করা হচ্ছে, এর শুরুটা হয়েছে চীনের উহানে অবস্থিত কোনো একটি বন্য প্রাণীর বাজার থেকে। কেউ কেউ বলছেন বিলুপ্তপ্রায় প্রাণী বনরুই থেকে এটি ছড়িয়ে পড়েছে। কিন্তু নিশ্চিত করে কেউ বলতে পারছেন না। 

উৎপত্তি নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হওয়ায় অনেকেই ধারণার বশবর্তী হয়ে অনেক তত্ত্ব নিয়ে হাজির হচ্ছেন। কেউ বলছেন এটা প্রকৃতির অভিশাপ, কেউ বলছেন চীনের কোনো ল্যাবে এটি প্রস্তুত করা হয়েছে।

কেউ আবার বলছেন এটি জীবাণু অস্ত্র, যা দিয়ে বিনাযুদ্ধে হাজারো মানুষের প্রাণ কেড়ে নেওয়া যায়। তবে বিশ্ববিখ্যাত ব্রিটিশ বক্সার আমির খানের ধারণা, করোনা মূলত বিশ্বের জনসংখ্যা কমানোর জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে।

পাকিস্তানি বংশোদ্ভুত এই বক্সারের মতে, করোনার উৎপত্তি নিয়ে যা বলা হচ্ছে তা মোটেই সত্য নয়। নিজের তত্ত্বের স্বপক্ষে তিনি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে বিস্তারিত যুক্তিও দাঁড় করিয়েছেন। ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসে তিনি বলেন, 'আমি মনে করি না এটা (করোনা ভাইরাস) চীন থেকে এসেছে। এটা একটা নির্জলা মিথ্যা। মানুষ বলছে তারা (চীনারা) বাদুড় এবং বিষাক্ত সাপ খাচ্ছে। এটা কী ধরনের ফালতু কথা? করোনা ভাইরাস এই হয়েছে, সেই হয়েছে। আর সবার মতো আমিও এসব কথায় বিরক্ত। '

আমির দাবি করেন, এই মহামারি ছড়ানো হয়েছে বিতর্কিত 'ফাইভ জি' সেল টাওয়ার বাস্তবায়ন করার জন্য। তিনি বলেন, 'আপনি কি মনে করেন এটার সঙ্গে যেসব ফাইভ জি টাওয়ার বসানো হচ্ছে তার কোনো যোগসূত্র আছে? এটা মানবসৃষ্ট জিনিস। এটাকে এমন সময় উদ্দেশ্যমূলকভাবে ছড়ানো হয়েছে যখন তারা ফাইফ জি নিয়ে পরীক্ষা করছে। '

করোনার সঙ্গে জনসংখা কমানোর সম্পর্ক নিয়ে আমির বলেন, 'এটা হয়তো জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য করা হচ্ছে। বিশেষ করে যখন তারা বলে এটা (করোনা ভাইরাস) বয়স্ক মানুষের ক্ষতি করে। আপনারা রাতের বেলা এসব (ফাইভ জি) টাওয়ারের দিকে তাকান এবং এরপর মানুষকে বাইরে যেতে বারণ করুন। '

সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ লাখ ৬২ হাজার ১১৯ এবং মৃতের সংখ্যা ৭৬ হাজার ৩৪০।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৭, ২০২০
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa