ঢাকা, শনিবার, ৭ কার্তিক ১৪২৮, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বাণিজ্যমেলা

বাণিজ্যমেলায় বেচাকেনায় ব্যস্ততা বেড়েছে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০১৮
বাণিজ্যমেলায় বেচাকেনায় ব্যস্ততা বেড়েছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা

ঢাকা: চলছে জানুয়ারির শেষ ভাগ। তাই এখন আর কেবল ছুটির দিনের অপেক্ষা নয়। সময় পেলেই ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় ঢুঁ মারছেন সবাই। আগে থেকে ঠিক করে নেওয়া পণ্য তো কিনছেনই, মেলায় এসেও পছন্দের দ্রব্যটি যোগ করছেন তালিকায়। সবমিলিয়ে বেচাকেনায় ব্যস্ততার মধ্যে সময় পার করছেন ক্রেতা-বিক্রেতারা।

সোমবার (২২ জানুয়ারি) সরেজমিন মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা যায়, সব বয়সী মানুষের সমাগম ঘটেছে।  

নিজের প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির সঙ্গে শিশু সন্তানের পছন্দের বিষয়টিও বাদ পড়ছে না।

সবচেয়ে বেশি ভিড় দেখা গেছে, কসমেটিকস, ক্রোকারিজ, গহনা আর ঘর সাজানোর দ্রব্য নিয়ে পসরা সাজানো দোকান গুলোতে।

মেয়েরা নিজেদের পছন্দের গহনা, ক্রোকারিজ আর ঘর সাজানোর দ্রব্য কিনতে ব্যাপক ব্যাস্ত। ছেলেরাও পিছিয়ে নেই। স্ত্রীর দেওয়া লিস্ট নিয়েও অনেককে ঘুরতে দেখা গেছে স্টল থেকে স্টলে। এদের বেশিরভাগই আবার ঢাকার বাইরে থেকে এসেছেন।

যশোহর থেকে মেলায় আসা এমনই এক ক্রেতা স্বপন কুমার বাংলানিউজকে বলেন, ঢাকায় ব্যবসায়িক কাজে এসেছিলেন। কাজ শেষে স্ত্রীর দেওয়া তালিকা নিয়ে মেলায় ঘুরছেন। ক্রোকারিজ সামগ্রী কিনবেন। আর কিছু তৈরি পোশাক কেনার ইচ্ছাও রয়েছে।  

মেলায় এলাকার চেয়ে অনেক কম দামেই জিনিস পাওয়া যাচ্ছে বলেও তিনি জানান।
ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা
এদিকে বিদেশি প্যাভিলিয়নগুলোতেও রয়েছে অনেক ভিড়। এসব প্যাভিলিয়নে ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের ভিড়ই বেশি। পাকিস্তানি, থাই আর চাইনিজ পণ্যের প্রতি ব্যাপক আগ্রহ দেখা গেছে তাদের মধ্যে। এসব স্টলে এতো ব্যস্ততা যে কারো যেন কথা বলারও ফুসরত নেই। বিক্রেতারাও দরদামে যেন কুলিয়ে ওঠতে পারছেন না। একজনের সঙ্গে দাম নিয়ে কথা বলার ফাঁকে আরেকজনের প্রশ্নের উত্তরও দিতে হচ্ছে।  

থাই প্যাভিলিয়নের সেলসম্যান বেঞ্জামিন বাংলানিউজকে বলেন, বিক্রি আগের তুলনায় এখন অনেক ভালো। আশাকরি সামনের সময়গুলোতে আরও ভালো হবে।

ইলেকট্রনিক সামগ্রীর স্টলগুলোর প্রতি ব্যাপক আগ্রহ ক্রেতাদের। তবে এসব স্টলে ক্রেতার চেয়ে দর্শনার্থী বেশি লক্ষ্য করা যায়। অনেকেই ঘুরে ঘুরে দেখছেন।

মেলায় যে শুধু স্টল ঘুরেই পণ্য কিনছেন ক্রেতারা তা নয়, অনেক বিক্রেতারা বাইরেও দাঁড়িয়ে বিক্রি করছেন। এগুলোর মধ্যে রয়েছে- চাদর, মেয়েদের টপস এ গুলোর প্রতিই আকর্ষণ বেশি।

পছন্দের জিনিস কেনার পর একটু না খেলে কি হয়। ক্রেতাদের কথা মাথায় রেখে আকর্ষণীয় নানা ডিজাইনে ব্যবসায়ীরা বসেছে খাবারের পসরা সাজিয়ে। খাবারের দোকানগুলোর মধ্যে পুরান ঢাকার হাজীর বিরিয়ানি, মালিবাগের আবুল হোটেলেই ক্রেতাদের আকর্ষণ বেশি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০১৮
ইইউডি/জিপি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa