ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ শাবান ১৪৪৫

কৃষি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে গাছপালা-ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

মেহেদী নূর, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০২২
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে গাছপালা-ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে গাছপালা ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এতে জেলার বিভিন্ন স্থানে বৈদ্যুতিক খুঁটিও উপড়ে পড়ার পাশাপাশি বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়কে গাছ পড়ে চলাচলে বিঘ্ন ঘটে।

 

বৈদ্যুতিক খুঁটি ভেঙে পড়ায় সোমবার (২৪ অক্টোবর) রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ ছিল। পরে সকাল ৯টার পর থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়। ঝড়ের কারণে জেলার চলতি আমন ধানসহ সবজির ক্ষতি হয়েছে।  

কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, জেলায় চলতি মওসুমে ৯৪৯ হেক্টর জমিতে শীতকালীন বিভিন্ন সবজির আবাদ হয়েছিল। সিত্রাংয়ের কারণে মাসকলাই, ফুলকপি, বাঁধাকপিসহ ৮৩ হেক্টর জমির বিভিন্ন শাক-সবজির ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া চলতি আমন মওসুমে ৫৪ হাজার ৫০৬ হেক্টর জমিতে আমনের আবাদ হয়েছে। সিত্রাংয়ের কারণে কোনো কোনো স্থানে জমির ধান গাছ কিছুটা হেলে পড়েছে। তবে এতে আমন উৎপাদনে কোনো বিরূপ প্রভাব পড়বে না বলে তারা মনে করছেন।  

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপপরিচালক শস্য মুন্সী তোফায়েল হোসেন জানান, আমন ধান ঘরে তুলতে আরও দুই সপ্তাহ সময় লাগবে। তবে যেসব জমির ধান ৮০ ভাগ পেকেছে, সেসব ধান কাটার জন্য ব্লক সুপারভাইজারদের মাধ্যমে কৃষকদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। যেসব কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হবেন, প্রণোদনা পাওয়া গেলে তাদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯২২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০২২
এসআই


 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।