ঢাকা, বুধবার, ১৮ মাঘ ১৪২৯, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯ রজব ১৪৪৪

ব্যাংকিং

আরও ৮ সাধারণ বিমা কোম্পানিতে নিরীক্ষক নিয়োগ

মাহফুজুল ইসলাম, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩০৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০১৭
আরও ৮ সাধারণ বিমা কোম্পানিতে নিরীক্ষক নিয়োগ

ঢাকা: ব্যবস্থাপনা খাতে মাত্রাতিরিক্ত ব্যয়সহ অন্যান্য অনিয়মের কারণে তৃতীয় দফায় আরও ৮টি সাধারণ বিমা কোম্পানিতে বিশেষ নিরীক্ষক নিয়োগ দিয়েছে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)।

কোম্পানিগুলো হলো- ই‌উনাইটেড, গ্লোবাল, দেশ জেনারেল, প্রাইম, রুপালি, রিলায়েন্স, সিটি জেনারেল, সেন্ট্রাল এবং ঢাকা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। আইডিআরএ সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

এ নিয়ে তিন দফায় মোট ২৪টি সাধারণ বিমা কোম্পানিতে নিরীক্ষক নিয়োগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বাকি কোম্পানিগুলো হচ্ছে- পাইওনিয়ার, বাংলাদেশ ন্যাশনাল, জনতা, নর্দান জেনারেল, তাকাফুল, সোনার বাংলা, পিপলস, মেঘনা, গ্রিন ডেল্টা, এক্সপ্রেস, কন্টিনেন্টাল, ফিনিক্স, প্রগতি, ফেডারেল, ইসলামী ইন্স্যুরেন্স বাংলাদেশ ও ইউনিয়ন ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি।

সূত্র জানায়, কোম্পানিগুলো ২০১৩, ২০১৪ এবং ২০১৫ সালের বিনিয়োগ, ঋণ, অগ্রিম, স্থায়ী সম্পদ ও অন্যান্য সম্পদ, গাড়ি, জমি ও বিল্ডিং, নগদ টাকা, ট্যাক্স ও ভ্যাট, চেয়ারম্যান ও পরিচালকরা কী পরিমাণ সম্মানি ও অন্যান্য সুবিধা নিয়েছেন তার পর্যালোচনাসহ কোম্পানির এ তিন বছরের আয়, ব্যয় ও সম্পদের বিষয়গুলো খতিয়ে দেখবে নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠান।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে ই‌উনাইটেড ইন্স্যুরেন্সে একনাবিন চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টস কোম্পানি, গ্লোবালে আজিজ হালিম খায়ের চৌধুরী অ্যান্ড কোম্পানি, ঢাকায় হুদাভাসি চৌধুরী অ্যান্ড কোম্পানি, দেশ জেনারেলে মসিহ মুহিত হক অ্যান্ড কোম্পানি, প্রাইমে এমজে আবেদিন অ্যান্ড কোং চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টস কোম্পানি, রুপালিতে মেসার্স নুরুল ফারুক হাসান অ্যান্ড কোম্পানি, রিলায়েন্সে রহমান মোস্তফা আলম অ্যান্ড কোম্পানি এবং সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডে এস এফ আহমেদ অ্যান্ড কোম্পানি নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠানকে নিরীক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

বিমা আইন ২০১০’র ২৯ ধারার ক্ষমতা বলে কোম্পানিগুলোতে এ নিরীক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে ২ মাসের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন আইডিআরএ’র কাছে জমা দিতে বলা হয়েছে। সম্প্রতি নিরীক্ষক নিয়োগের বিষয়টি চিঠি দিয়ে কোম্পানিগুলোকে জানিয়ে দিয়েছে আইডিআরএ।

বিশেষ নিরীক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত বিমা আইনের ২৯ ধারায় বলা হয়েছে- আইনের অন্য কোনো বিধানে যা কিছুই থাকুক না কেন, কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশ বিমা ব্যবসা পরিচালনাকারী যে কোনো বা সব বিমা কোম্পানির বিমা সংক্রান্ত সব লেনদেন, রেকর্ডপত্র, দলিল দস্তাবেজ, প্রবিধান দ্বারা নির্ধারিত পদ্ধতিতে এক বা একাধিক নিরীক্ষক দ্বারা নিরীক্ষা করাতে পারবে।

ধারায় আরও বলা হয়েছে, এ ধারার অধীনে নিযুক্ত নিরীক্ষক বিমাকারীর বিমা ব্যবসা সংক্রান্ত যাবতীয় রেকর্ডপত্র, হিসাব বই, রেজিস্টার, ভাউচার, পত্র এবং অন্য সব দলিল পরিদর্শন করতে পারবে এবং এ উদ্দেশ্যে বিমাকারীর যে কোনো পরিচালক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীর বক্তব্য শুনতে এবং বিমাকারীর কাছ থেকে প্রাসঙ্গিক কাগজপত্র ও তথ্য তলব করতে পারবে।

এ ধারা অনুসারে, নিরীক্ষা কাজের জন্য নিয়োগ পাওয়া নিরীক্ষক সর্বোচ্চ ৪ মাসের মধ্যে একটি নিরীক্ষা প্রতিবেদন প্রস্তুত করবে। প্রস্তুতকৃত প্রতিবেদনের ৪টি কপি আইডিআরএ’র কাছে জমা দিতে হবে।

আইডিআরএ সদস্য জুবের আহমেদ খান বাংলানিউজকে বলেন, সবকটি বিমা কোম্পানিতে নিরীক্ষক নিয়োগের ধারাবাহিকতায় আরও ৮টি কোম্পানি কর্তৃপক্ষকে নিরীক্ষক নিয়োগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০১৭
এমএফআই/ওএইচ/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa