ঢাকা, শনিবার, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫ রজব ১৪৪৪

ব্যাংকিং

মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পরিচালকের পদ হারালেন শহিদুল আহসান

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২, ২০১৮
মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পরিচালকের পদ হারালেন শহিদুল আহসান শহিদুল আহসান।

ঢাকা: বাংলাদেশ ব্যাংকের আপত্তির মুখে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পরিচালকের পদ হারিয়েছেন ব্যাংকটির সাবেক চেয়ারম্যান শহিদুল আহসান।

এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংকে (এনআরবিসিবি) সংগঠিত আর্থিক অনিয়ম ও নিয়মবহির্ভুত কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ থাকায় শহিদুল আহসানের নিয়োগের বিষয়ে আপত্তি জানায় বাংলাদেশ ব্যাংক।

সোমবার (২ এপ্রিল) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মার্কেন্টাইল ব্যাংকের চেয়ারম্যান একেএম সাহিদ রেজা।

তিনি বলেন, ‘তাকে (শহিদুল আহসান) পরিচালক পদে রাখতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক অনুমোদন দেয়নি। এ কারণে তিনি আর র্মাকেন্টাইল ব্যাংকের পরিচালক থাকছেন না। ’

জানা গেছে, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান শহিদুল আহসানের পরিচালকের পদের মেয়াদ শেষ হওয়ায় ব্যাংকের ১৮তম বার্ষিক সাধারণ সভায় তাকে পুনরায় পরিচালক হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। পরিচালক নিয়োগের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনাপত্তি চেয়ে গত ৫ ফেব্রুয়ারি আবেদনও করা হয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে।

২৯ মার্চ (বৃহস্পতিবার) বাংলাদেশ ব্যাংক মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে চিঠি দিয়ে জানায় শহিদুল আহসানের নিয়োগের বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেওয়া যাচ্ছে না। কারণ হিসেবে এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংকে সংগঠিত আর্থিক অনিয়ম ও নিয়মবহির্ভুত কর্মকাণ্ডের অভিযোগের বিষয়টি উল্লেখ করে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। ওইদিনই চিঠিটি গ্রহণ করে মার্কেন্টাইল ব্যাংক এবং ব্যাংকটির ওয়েবসাইটে পরিচালকদের তালিকা থেকে শহিদুল আহসানের নাম মুছে ফেলা হয়।

এদিকে পরিচালক পদ হারালেও গত শুক্রবার ও রোববার বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকসের (বিএবি) পক্ষে অথর্মন্ত্রী ও গভর্নরের সঙ্গে বৈঠকে শহিদুল আহসানকে অংশ নিতে দেখা গেছে।

মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের(এমডি)কাছে পাঠানো কেন্দ্রীয় ব্যাংকের চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘ব্যাংকের ১৮তম বার্ষিক সাধারণ সভায় নির্বাচিত পরিচালক এএসএম ফিরোজ আলম এবং মোশাররফ হোসেনকে পরিচালক নিযুক্তিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন দেওয়া হলো।

এছাড়া এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংকে সংঘটিত আর্থিক ও নিয়মবহির্ভুত কর্মকাণ্ডের সঙ্গে শহিদুল আহসানের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ থাকায় তার নিয়োগের বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেওয়া গেলো না। ’ গত বৃহস্পতিবার চিঠি পাওয়ার পরপরই ব্যাংকের ওয়েবসাইট থেকে শহিদুল আহসানের নাম সরিয়ে ফেলে মার্কেন্টাইল ব্যাংক।

এর আগে এনআরবিসি ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও এমডিকে দেওয়া নোটিশে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ওই দু’জনের অপসারণের ১০টি কারণ তুলে ধরেছিল। বাংলাদেশ ব্যাংকের নোটিশ অনুযায়ী ১০টি কারণের মধ্যে ৭টির সঙ্গেই শহিদুল আহসান জড়িত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২৩২২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২, ২০১৮
এসই/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa