ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

কর্পোরেট কর্নার

বাংলাদেশের বাজারে হিরোর নতুন দুই মোটরসাইকেলের যাত্রা শুরু 

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২৪
বাংলাদেশের বাজারে হিরোর নতুন দুই মোটরসাইকেলের যাত্রা শুরু 

প্রিমিয়াম সেগমেন্ট এবং বর্তমান প্রযুক্তিগত পণ্যের প্রতি নজর রেখে, বিশ্বের সবচাইতে বড় মোটরসাইকেল ও স্কুটার ম্যানুফ্যাকচারার হিরো মোটরকর্প বাংলাদেশের বাজারে এনেছে দারুণ দুটি প্রিমিয়াম মোটরসাইকেল- কারিজমা এক্সএমআর এবং থ্রিলার ১৬০আর ৪ভি।  

মিলানের এআইসিএমএ মোটর শো এবং ইন্ডিয়ায় লঞ্চ হওয়ার কয়েক মাসের মধ্যেই বাংলাদেশে লঞ্চ হয়েছে এই দুটি বাইক।

এবং এতে কোম্পানির গ্লোবাল গ্রোথ প্ল্যানে বাংলাদেশ মার্কেটের তাৎপর্য আবারো ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছে। গ্লোবাল ইন্ডিয়ান এমএনসি দ্বারা দেশের অন্যতম বড় প্রোডাক্ট লঞ্চ এটা।  

নতুন কারিজমা এক্সএমআর এই দেশের ২০০সিসি সেগমেন্টে হিরো মোটরকর্প-এর উপস্থিতি সজোরে জানান দিয়ে দারুণ প্রভাব ফেলেছে। এই মোটরসাইকেলকে প্রাণ দিয়েছে জোরালো ২১০সিসি লিকুইড কুল্ড ডিওএইচসি ইঞ্জিন সিক্স স্পিড ট্রান্সমিশন যার সঙ্গে আছে স্লিপ এন্ড অ্যাসিস্ট ক্লাচ এবং ডুয়েল চ্যানেল এবিএস– যা স্পোর্টস সেগমেন্টে পারফেক্ট রাইডের কথা মাথায় রেখেই তৈরি করা হয়েছে। এতে রাখা হয়েছে এই সেগমেন্টের সকল প্রথম ফিচারস, যেমন অ্যাডজাস্ট্যাবল উইন্ডশিল্ড, ইন্টালিজেন্ট ইলুমিনাশন হেডল্যাম্প এবং টার্ন বাই টার্ন ন্যাভিগেশন, যাতে নতুন প্রজন্মের বাইকারদের একটি সম্পূর্ণ ভিন্ন অভিজ্ঞতা দেয়া যায়।  

এছাড়া কোম্পানির প্রিমিয়াম পোর্টফোলিওকে আরও প্রসারিত করতে এসেছে থ্রিলার ১৬০আর ৪ভি, যা দারুণ জনপ্রিয় থ্রিলার ব্র্যান্ডের সফলতার যাত্রায় একটি নতুন দিগন্ত উন্মোচন করেছে। এই মোটরসাইকেলটিতে পারফরম্যান্স, পুরুষালি কায়দা, স্মার্ট ফিচারস ও তীক্ষ্ণ কন্ট্রোলের এক অতুলনীয় প্যাকেজ রয়েছে।  

গত ফেব্রুয়ারি ১৪ দুটি মোটরসাইকেলের প্রি-বুকিং শুরু হয়েছে। সকল আগ্রহী গ্রাহকরা মাত্র ৩০,০০০ টাকা দিয়ে বুক করতে পারবেন কারিজমা এক্সএমআর এবং মাত্র ২০,০০০ টাকা দিয়ে বুক করতেপারবেন থ্রিলার ১৬০আর ৪ভি। আগামী মার্চ মাস থেকে ডেলিভারি দেয়া শুরু হবে।  

এ হিরো মোটরকর্প-এর চিফ বিজনেস অফিসার গ্লোবাল বিএউ সঞ্জয় ভান বলেন, বাংলাদেশ আমাদের একটি মূল গ্রোথ কেন্দ্র হিসেবে সবসময় বেড়ে চলেছে, এবং দুটি জনপ্রিয় প্রিমিয়াম মোটরসাইকেল কারিজমা এক্সএমআর এবং থ্রিলার ১৬০আর ৪ভি এখানে লঞ্চ হওয়া তারই একটি অন্যতম প্রতিচ্ছবি। হাঙ্ক এবং থ্রিলার এর মত প্রিমিয়াম ব্র্যান্ডস এখানে কাস্টমারদের কাছে দারুণভাবে সুগৃহীত হয়েছে এবং কারিজমা এক্সএমআর দিয়ে ২০০সিসি সেগমেন্টে প্রবেশ করা আমাদের জন্য খুবই এক্সাইটিং। বাইকে উৎসাহী জনগণের মাঝে কারিজমা এক্সএমআর দারুণভাবে ব্র্যান্ড ইকুইটি ধরে রেখেছে, এবং থ্রিলার ১৬০আর ৪ভি একসঙ্গে নিয়ে বাংলাদেশের নতুন প্রজন্মের জন্য আমরা প্রিমিয়াম রাইডিং এক্সপেরিয়েন্স নিয়ে এসেছি।
 
দুটি মোটরসাইকেলকে ডিজাইন এবং ডেভেলপ করা হয়েছে হিরো মোটরকর্প-এর অত্যাধুনিক আরএন্ডডি হাব, সেন্টার ফর ইনোভেশন অ্যান্ড টেকনোলজি(আইসিটি) তে যা ইন্ডিয়ার উত্তর প্রদেশ রাজস্থানে অবস্থিত।
 
হিরো মোটরকর্প– যা বাংলাদেশের নিটল-নিলয় গ্রুপ-এর সঙ্গে জয়েন্ট ভেঞ্চারে রয়েছে– তারা যশোরে অত্যাধুনিক ম্যানুফ্যাকচারিং ফ্যাসিলিটি রেখেছে যা বছরে ১ লাখ ৫০ হাজার  মোটরসাইকেল এবং স্কুটার তৈরি করার ক্ষমতা রাখে। হিরো মোটরকর্প-এর সকল প্রোডাক্ট দেশব্যাপী বিক্রয় করা হয় নিটল মোটর-এর মাধ্যমে এবং সারা দেশে হিরোর ৫০০-এর বেশি কাস্টমার টাচ-পয়েন্ট আছে। হিরো মোটরকর্প দেশের প্রথম ম্যানুফ্যাকচারার যারা নিজেদের প্রোডাক্টে ৫ বছরের ওয়ারেন্টি দিয়ে যাচ্ছে। কোম্পানিটির বাংলাদেশ প্রোডাক্ট পোর্টফোলিওতে ১০টির বেশি মোটরসাইকেল ও ২টি স্কুটার আছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২৪
এমএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।