ঢাকা, শনিবার, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬ মহররম ১৪৪৬

ক্রিকেট

স্কটল্যান্ডের স্বপ্ন ভেঙে ইংল্যান্ডকে সুপার এইটে তুলে দিল অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৫৪ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০২৪
স্কটল্যান্ডের স্বপ্ন ভেঙে ইংল্যান্ডকে সুপার এইটে তুলে দিল অস্ট্রেলিয়া

অ্যান্টিগায় বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে নামিবিয়াকে হারিয়ে নিজেদের কাজটা সেরে রেখেছিল ইংল্যান্ড। এরপর স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার জয়ের অপেক্ষায় ছিল ইংলিশরা।

তাদের অবশ্য হতাশ করেনি অজিরা। গ্রস আইলেটের ম্যাচে স্কটিশদের বিদায় করে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের সুপার এইটে তুলে দিয়েছেন মার্শ-ওয়ার্নাররা।  

অস্ট্রেলিয়ার জয়ে হৃদয় ভেঙেছে স্কটিশদের। কারণ আগে ব্যাট করে ব্র্যান্ডন ম্যাকমুলেনের ৩৪ বলে ৬০, জর্জ মানসির ২৩ বলে ৩৫ রান এবং অধিনায়ক রিচি বেরিংটনের ৩১ বলে অপরাজিত ৪২ রানের ইনিংসে ভর করে ১৮০ রানের বড় সংগ্রহ গড়ে দলটি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তাদের সর্বোচ্চ ইনিংস এটি। এমনকি টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আইসিসির সহযোগী কোনো দলের এটাই সর্বোচ্চ দলীয় রান।  

বিশাল লক্ষ্য দিয়ে অনেকটা সময় জোরদার লড়াই করে স্কটল্যান্ড। বিশেষ করে প্রথম ১৩ ওভার পর্যন্ত অজিদের অনেকটাই আটকে রেখেছিল তারা। এই সময়ে ৩ উইকেটে ৯২ রান করে মার্শবাহিনী। ক্রিজে তখন ট্রাভিস হেডের মতো বিধ্বংসী ব্যাটার থাকা সত্ত্বেও রানের গতি তুলতে পারছিল না অস্ট্রেলিয়া।  

১৪তম ওভারে ম্যাচ হেলে পড়ে অস্ট্রেলিয়ার দিকে। ওই ওভারে মার্কাস স্টইনিস হাঁকান ২টি ছক্কা ও একটি চার। পরের ওভারে ফিফটির দেখা পান হেড। যা পেতে তাকে খেলতে হয়েছে ৪৫ বল। তবে ফিফটির পরেই হাত খুলতে শুরু করেন হেড। শেষ ৫ ওভারে যখন ৬০ রান দরকার, তখন ১৬তম ওভারের প্রথম ৩ বলেই ছক্কা হাঁকিয়ে আস্কিং রেট কমিয়ে আনেন হেড। চতুর্থ বলে অবশ্য বিদায় নেন তিনি। যাওয়ার আগে ৪৯ বলে ৬৮ রান করেন এই বাঁহাতি ওপেনার।

হেড গেলেও অস্ট্রেলিয়ার সমস্যা হয়নি। স্টইনিস ওই ওভারের শেষ বলে চার হাঁকিয়ে ২৫ বলে ফিফটির দেখা পান। ১৭তম ওভারের শেষ বলে স্টইনিস (৫৯) বিদায় নেন। তখন হাল ধরেন আরেক বিধ্বংসী ব্যাটার টিম ডেভিড। শেষ পর্যন্ত দলকে ২ বল বাকি থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন তিনি। নিজে অপরাজিত থাকেন ১৪ বলে ২৪ রান করে।

এ নিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টানা ৭ ম্যাচে জয় পেল অস্ট্রেলিয়া। সমান জয় আছে ইংল্যান্ড ও ভারতের দখলেও। আর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া নিজেদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ লক্ষ্য তাড়ায় জয় পেল। এর আগে ২০১০ সালে পাকিস্তানের দেওয়া ১৯২ রানের লক্ষ্য পার করেছিল তারা।  

অস্ট্রেলিয়ার এ জয়ে নেট রানরেটের হিসাবে পিছিয়ে থাকায় বিদায় নিতে হলো স্কটিশদের। তাদের পয়েন্ট ইংল্যান্ডের সমান ৫। অস্ট্রেলিয়াকে বড় লক্ষ্য দিয়ে এই নেট রানরেটের দিকেই তাকিয়ে ছিল স্কটল্যান্ড (+১.২৫৫)। কিন্তু ইংলিশরা (+৩.৬১১) এগিয়ে বড় ব্যবধানে। ফলে গ্রুপ 'বি' থেকে অজিদের সঙ্গী হলো ইংল্যান্ড।

বাংলাদেশ সময়: ১০৫৪ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০২৪
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।