ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২৩ শাবান ১৪৪৫

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

সহপাঠীদের আবেদনে বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৩
সহপাঠীদের আবেদনে বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও

চট্টগ্রাম: হাটহাজারীর উপজেলার মরিয়ম তাহসিন আকতার (১৭) নামের এক স্কুল শিক্ষার্থীর বাল্যবিয়ে বন্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শাহিদুল আলমের কাছে আবেদন করেন তার সহপাঠীরা। পরে সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে এ বিয়ে বন্ধ করে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

 

তাহসিন গড়দুয়ারা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সে উপজেলার মেখল ইউনিয়নের মো. এমরান মিয়ার মেয়ে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) গড়দুয়ারা বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা একটি আবেদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে নিয়ে আসে। আবেদনে বিস্তারিত তথ্যের পাশাপাশি ২০২৪ সালে তাহসিনের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের আকুতির কথাও  জানায় তার সহপাঠীরা।

পরে মেখল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদস্যের মাধ্যমে তাহসিনের মা শামসুন্নাহারকে ইউএনও কার্যালয়ে নিয়ে আসেন। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি দোষ স্বীকার করেন ও ভবিষ্যতে মেয়েকে পূর্ণ বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ের চেষ্টা করবেন না বলে মুচলেকা প্রদান করেন।  

হাটহাজারী ইউএনও শাহিদুল আলম বাংলানিউজকে বলেন, তাহসিন আকতার নামের গড়দুয়ারা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর সহপাঠীরা তার বাল্যবিয়ে বন্ধে আবেদন নিয়ে আসেন। পরে তার মা শামসুন্নাহার তার মেয়ের প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবে না মর্মে মুচলেখা দেন। এ বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৩ 
বিই/পিডি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।