ঢাকা, শনিবার, ২১ মাঘ ১৪২৯, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১২ রজব ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

নীলফামারী খাদ্য গুদামের ধান-চাল খালাস দু’দিন থেকে বন্ধ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২২
নীলফামারী খাদ্য গুদামের ধান-চাল খালাস দু’দিন থেকে বন্ধ ফাইল ছবি

নীলফামারী: চালের বস্তা প্রতি ১০ টাকা মজুরি দাবি করায় নীলফামারীর খাদ্য গুদামে মুখোমুখী অবস্থানে শ্রমিক-মিলাররা। এ ঘটনায় গত দু’দিন ট্রাক থেকে চাল আনলোড বন্ধ রয়েছে।

 

স্থানীয় চাল মিল মালিকরা জানান, ধান-চাল সংগ্রহের ভরা মৌসুমে শ্রমিকদের অনৈতিক দাবি তাদের বেকায়দায় ফেলেছে।

সূত্র জানায়, গত বুধবার নূহা অটো রাইস মিল কর্তৃপক্ষ সরকারের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ চাল ভর্তি কয়েকটি ট্রাক খাদ্য গুদামে নিয়ে গেলে সেখানে নিয়োগকৃত শ্রমিকরা চাল খালাসে বস্তা প্রতি ১০ টাকা করে মজুরি দাবি করেন। এনিয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে মিল কর্তৃপক্ষের বাদানুবাদের ঘটনায় ট্রাক থেকে চালের বস্তা খালাস বন্ধ করে দেন শ্রমিকরা। এ ঘটনায় গত দু’দিন থেকে নীলফামারী খাদ্য গুদামের ধান-চাল লোড-আনলোড কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।  

ভুক্তভোগী নূহা অটো রাইস মিল লিমিটেডের স্বত্বাধিকারী সৈয়দ রাকিব হাসান (মিশুক) বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে সরকারি খাদ্য গুদামের শ্রমিক সিন্ডিকেটের বিষয়ে জেলা প্রশাসক (এসপি) খন্দকার ইয়াসির আরেফীন বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

সরকারি খাদ্য গুদামের শ্রমিক সর্দার ও সংগঠনের সভাপতি মমেদুল ইসলাম বস্তা প্রতি ১০ টাকা মজুরি দাবির বিষয়ে সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সরকার বস্তা প্রতি মাত্র ১ টাকা করে দেয়। এতে আমাদের পেট চলে না।

সদর উপজেলা খাদ্য পরিদর্শক তফিউজ্জামান জুয়েল বলেন, মিলারদের সঙ্গে শ্রমিকদের

অতিরিক্ত অর্থ দাবির কারণে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। মিলারদের কাছ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে শ্রমিকদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০১, ২০২২
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa