ঢাকা, বুধবার, ৫ আষাঢ় ১৪৩১, ১৯ জুন ২০২৪, ১১ জিলহজ ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

অপেক্ষার পালা শেষ, বাজারে আসছে নওগাঁর আম

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৫ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২৪
অপেক্ষার পালা শেষ, বাজারে আসছে নওগাঁর আম আম

নওগাঁ: প্রশাসনের বেধে দেওয়া সময় অনুযায়ী নওগাঁর বাগানগুলো থেকে গুটি জাতের আম নামানোর মধ্য দিয়ে শুরু হচ্ছে জেলার আম সংগ্রহ ও বাজারজাতকরণ।

বুধবার (২২ মে) থেকে প্রতিবছরের মতো জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এই আম নামানো শুরু হয়।

এছাড়া প্রকারভেদে আম নামানোর জন্য একটি তালিকাও প্রকাশ করা হয়। গুটি জাতের আম পাড়া শুরু হলেও সুস্বাদু উন্নতজাতের আমের জন্য আর কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে ভোক্তাদের।

চলতি মৌসুমে জেলা থেকে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকার আম বিক্রির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানায় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। এছাড়াও এ বছর ১ হাজার মেট্রিক টন আম বিদেশে রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া সময় অনুযায়ী এরপর ৩০ মে থেকে গোপালভোগ, ২ জুন থেকে ক্ষীরসাপাত ও হিমসাগর, ৫ জুন থেকে নাক ফজলি, ১০ জুন থেকে ল্যাংড়া ও হাড়িভাঙা, ২০ জুন থেকে আম্রপালি, ২৫ জুন থেকে ফজলি এবং আগামী ১০ জুলাই থেকে আশ্বিনা, বারি-৪, বারি-১১, গৌড়মতি ও কাটিমন আম পাড়ার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

জেলা কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে- এ বছর জেলার ৩৩ হাজার ৩০০ হেক্টর জমির বাগানে আম চাষ হয়েছে। এসব বাগানে ব্যানানা ম্যাংগো, মিয়াজাকি, কাটিমন, গৌড়মতি, বারি আমসহ দেশি-বিদেশি প্রায় ১৬ জাতের আম চাষ করেছেন চাষিরা। নওগাঁ থেকে এ বছর অন্তত ৪ লাখ ৩১ হাজার ৫০০ টন আম উৎপাদনের আশা করছে কৃষি অফিস।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবুল কালাম আজাদ জানান, আজ থেকে স্থানীয় গুটি জাতের আম বাজারে আসা শুরু করবে। কোনো ব্যবসায়ী বা চাষি অপরিপক্ব ও ক্ষতিকারক কেমিক্যালযুক্ত আম বাজারজাত না করতে পারে সেদিকে আমাদের কড়া নজরদারি থাকবে। তবে নির্ধারিত সময়ের আগে যদি কোনো বাগানে আম পেকে যায় তাহলে চাষিরা সেগুলো নামাতে পারবেন। সেক্ষেত্রে বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি বিভাগকে জানাতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৩ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২৪
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।