ঢাকা, সোমবার, ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭, ০১ মার্চ ২০২১, ১৭ রজব ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

বেনাপোলে রেলখাতে ৬ মাসে রাজস্ব আয় ১২ কোটি টাকা

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২১
বেনাপোলে রেলখাতে ৬ মাসে রাজস্ব আয় ১২ কোটি টাকা বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন। ছবি: বাংলানিউজ

বেনাপোল (যশোর): বেনাপোল স্থলবন্দরের রেলপথে চলতি অর্থ বছরের ছয় মাসে ১১ কোটি ৮৫ লাখ ৫৪ হাজার টাকা রাজস্ব আদায় হয়েছে। এসময় পণ্য আমদানি হয়েছে ২ লাখ ৩৯ হাজার ৪৫৪.৩ মেট্রিক টন।

তবে চলতি অর্থ বছরের শেষে এ পথে দিগুণ রাজস্ব আদায় হবে বলে জানান রেল কর্মকর্তারা।

শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) বিকেলে রাজস্ব আয়ের তথ্য নিশ্চিত করেছেন বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার শাহিদুজ্জামান।

বেনাপোল রেলস্টেশন সূত্রে জানা যায়, বেনাপোল স্থলবন্দর রেলপথে চলতি ২০২০-২১ অর্থ বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয় মাসে ভারত থেকে পণ্য আমদানি হয়েছে ২ লাখ ৩৯ হাজার ৪৫৪.৩ মেট্রিক টন। যা থেকে সরকারের রাজস্ব আদায় হয়েছে ১১ কোটি ৮৫ লাখ ৫৪ হাজার টাকা। এদিকে গত বছরের ২০১৯-২০ অর্থ বছরে এপথে ভারত থেকে পণ্য আমদানি হয়েছে ১ লাখ ৮৪ হাজার ৭৩.৯ মেট্রিক টন। যা থেকে সরকারের রাজস্ব আদায় হয়েছে ৮ কোটি ৮৮ লাখ ২৬ হাজার টাকা।

বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার শাহিদুজ্জামান  জানান, বর্তমানে বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারত থেকে স্থলপথের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রেলপথে পণ্য আমদানি হচ্ছে। এতে করে বন্দরের রেল ইয়ার্ড না থাকায় পণ্য আমদানি কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে। তবে ইতোমধ্যে বন্দরে দুটি রেল ইয়ার্ড নির্মাণের ভিত্তি স্থাপনা করা হয়েছে। আশাকরি খুব শিগগিরই এ সমস্যা সমাধান হবে।

তিনি আরো জানান, আগে এপথে শুধুমাত্র পাথর ও সিমেন্ট তৈরির কাঁচামাল আমদানি হতো। বর্তমানে এপথে ছোট পিকআপ, ট্রাকট্রার, পাথর, সিমেন্ট তৈরির কাঁচামাল, ভুট্টা, গম, শুকনা মরিচ, জিরা, আদাসহ বিভিন্ন ধরনের পণ্য আমদানি হচ্ছে। তবে এভাবে যদি স্থলপথের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রেলপথেও পণ্য আমদানি হয় তাহলে এবছর রেলখাতে সরকারের রাজস্ব দিগুণ আদায় হবে বলে জানান তিনি।

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশন সভাপতি মফিজুর রহমান সজন জানান, আমাদের দেশের সব থেকে বড় বাণিজ্যিক কেন্দ্র ভারত। হঠাৎ করে মহামারি করোনা ভাইরাস শুরু হলে এর সংক্রমণ রোধে পেট্রাপোল-বেনাপোল বন্দরের স্থলপথে পণ্য আমদানি রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ করে দেয় ভারত সরকার। এতে করে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য স্থবির হয়ে পড়ে। পরবর্তীকারে আমদানি-রপ্তানি সচল করতে রেলপথে সব ধরনের পণ্য আমদানি চালু করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় বর্তমানে রেলপথে সব ধরনের পণ্য আমদানি সচল রয়েছে। এতে করে গত বছরের তুলনায় এবছর রেলখাতে সরকারের দিগুণ রাজস্ব আদায় হবে বলে তিনি জানান।

বাংলাদেশ সময়: ২০১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa